বেঙ্গালুরু: ভারতের প্রথম এবং একমাত্র সফল মঙ্গল কক্ষপথ অভিযান ছিল ২০১৩ সালের ‘মার্স অরবাইটাল মিশন’ (মম)। মঙ্গলযান নামেই অবশ্য সারা দেশে বেশি জনপ্রিয় হয়েছিল অভিযান। তবে গৌরব গাঁথার আড়ালেই রয়ে গেছে অন্য এক ইতিহাস। সে ইতিহাস মঙ্গল অভিযানের দায়িত্বে থাকা তিন ভারতীয় মহিলার। 

সাফল্যগুলো স্বীকৃতি পায়, নথিভুক্ত হয়। কিন্তু প্রায়শই সবার অলক্ষ্যে থেকে যায় সাফল্যের পেছনে থাকা মানুষগুলোর কথা। তেমনই তিন মহিলার কথা সামনে এল কিছুটা অপ্রত্যাশিত ভাবেই। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে ‘মম’ অভিযানের প্রোজেক্ট ম্যানেজার নন্দিনী হরিনাথ জানিয়েছেন তাঁর অভিজ্ঞতার কথা।মঙ্গলযান তার পথ চলা শুরু করেছিল ২০১৩ সালের ৫ নভেম্বর।  মহাকাশযানটির যাত্রার প্রস্তুতিপর্ব থেকেই বিশেষ আবেগ জড়িয়ে ছিল নন্দিনীর। ইসরোর প্রোগ্রাম ডিরেক্টর সীতা সোমাসুন্দরমও ছিলেন ওই সাক্ষাৎকারে। তিনি বলেছেন  আরেক ঐতিহাসিক মুহূর্তের অনুভূতি। ২০১৪ সালের ২৪ সেপ্টেম্বর, যে দিন প্রথম মঙ্গলের কক্ষপথে পৌঁছয় মঙ্গলযান। সোমার ভাষায়, “সে দিনের অনুভূতির কথা সারা জীবন মনে থাকবে। খবরটা শোনার সময়টাই ছিল গোটা দিনটার সুন্দরতম মুহূর্ত”। পেশায় ইসরোর ইঞ্জিনিয়ার মিনাল রোহিতের কাছেও এই মিশনের সাফল্য স্বপ্ন ছোঁয়ার চেয়ে কিছু কম নয়। 

 

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here