নামের পেছনে না ছুটে কাজের ক্রিকেটার তুলল কেকেআর, নজরে বোল্ট-ওক্স

0
385

কলকাতা: টার্গেট ছিল বেন স্টোক্স বা কাগিসো রাবাদা। কিন্তু এঁদের না পেয়ে শেষমেশ নিউজিল্যান্ডের পেস বোলার ট্রেন্ট বোল্টের ওপরই ভরসা রাখল কলকাতা নাইট রাইডার্স। এক কথায় বলতে গেলে কম পয়সা খরচ করে বেশি ক্রিকেটার কিনে নিল কেকেআর।

অবশ্য প্রথম আইপিএল থেকেই এই একই ধারা বজায় রেখে এসেছে কেকেআর। নামের পেছনে না ছুটে কম খরচে বেশি ‘কাজের’ খেলোয়াড়কে তোলাই টার্গেট থাকে কেকেআরের। সে জন্য আইপিএলের দ্বিতীয় সংস্করণে দুই দামি প্লেয়ার ফ্লিন্টফ আর পিটারসনকে নেওয়ার কোনো আগ্রহই দেখায়নি তারা। এ বারও সেই একই  পথে হাঁটল শাহরুখ খানের টিম। বেন স্টোক্সকে নেওয়ার ব্যাপারে প্রাথমিক ভাবে আগ্রহ দেখালেও, নিলামে তাঁর জন্য দরই করেনি তারা। অন্য দিকে টাইমাল মিলসের জন্য একটু দর করলেও পিছিয়ে আসে তারা। দক্ষিণ আফ্রিকার তারকা কাগিসো রাবাদার পেছনেও ছুটতে দেখা যায়নি কেকেআরকে।

স্টোক্স-মিলসের বদলে সোমবার কেকেআরের সংসারে এলেন নিউজিল্যান্ডের পেসার ট্রেন্ট বোল্ট এবং ইংল্যান্ডের অলরাউন্ডার ক্রিশ ওক্স। নিউজিল্যান্ড বোলিং-এর শিরদাঁড়া বোল্ট, অন্য দিকে দুর্দান্ত বোলিং-এর পাশাপাশি ব্যাট হাতেও আন্তর্জাতিক ম্যাচে ইংল্যান্ডের হয়ে উল্লেখযোগ্য অবদান রাখেন ওক্স।

নিলামের আগে পর্যন্ত বিদেশি ক্রিকেটারদের ভাণ্ডার ভালো ছিল না কেকেআরের। ছ’জন বিদেশি ক্রিকেটারকে ছেড়ে দেওয়া এবং ডোপিং-এর অভিযোগে আন্দ্রে রাসেলের নির্বাসন হওয়ার কেকেআরের হাতে ছিল মাত্র তিন জন বিদেশি। তাই এ দিন বোল্ট এবং ওক্সের সঙ্গে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ড্যারেন ব্রাভো, রোভম্যান পাওয়েল, অস্ট্রেলিয়ার ন্যাথার কাউন্টার নাইলকে কিনেছে কলকাতা। বাংলার এই দলে একমাত্র বাঙালি ক্রিকেটার হিসেবে থাকবেন পেসার সায়ন ঘোষ। এখন দেখার ‘করব-লড়ব-জিতল’র ঝলক কতটা দেখাতে পারে কেকেআর।

কেকেআরের পাশাপাশি পঞ্জাব আর পুনে দলের দিকেও বাঙালিদের নজর থাকবে ঋদ্ধিমান সাহা, অশোক দিন্দা এবং মনোজ তিওয়ারির জন্য।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here