বিশেষ প্রতিনিধি: পুজোর মরশুম যত শেষ হওয়ার দিকে এগোয়, কলকাতার চলচ্চিত্রমোদীদের মনের উড়ুউড়ু ভাবটা ততই বাড়তে থাকে। এবার অবশ্য পুজোর মরশুম এসে পড়েছিল কিছুটা আগেই। তাই শেষও হবে আগেভাগে। কিন্তু হেমন্ত যতই এগিয়ে আসছে, ততই তার সঙ্গে কাছে এসে পড়ছে কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব। এবার তাঁর বয়স হবে ২৩। প্রতিবারের মতো এবারও নভেম্বরের ১০ থেকে ১৭ তারিখ পর্যন্ত চলবে এই উৎসব।

সিনেমোদীদের আগ্রহ থাকে কোন কোন নতুন পরিচালকের ছবি দেখানো হবে, কার কার রেট্রোস্পেকটিভ হবে, কোন কোন নতুন দেশের ছবি দেখা যাবে- সে সব নিয়ে। সেই সব তথ্য এখনও খবর অনলাইনের কাছে আসেনি। আগামী দিনে আমরা সেগুলি সম্পর্কে জানতে পারলেই আপনাদের জানাবো। তবে যেটুকু জানা গেছে, তাও কম গুরুত্বপূর্ণ নয়।

কলকাতা ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে দুটি আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতা বিভাগ শুরু হয়েছিল আগেই। তার একটি উইমেন ডিরেক্টরস’ ফিল্মস অন্যটি ইনোভেশনস ইন মুভিং ইমেজেস। বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে এবছর শুরু হচ্ছে আরও একটি নতুন প্রতিযোগিতা বিভাগ, ন্যাশনাল কম্পিটিশন সেকশন। এর আগে ন্যাশনাল শর্ট ফিল্ম কম্পিটিশন ও ন্যাশনাল ডকুমেন্টারি ফিল্ম কম্পিটিশন থাকলেও এই বিভাগটি ছিল না। এই বিভাগে ঠিক কতগুলো ফিল্ম প্রতিযোগিতা করতে চলেছে এবিষয়ে ঠিক তথ্য এখনও পর্যন্ত জানা যায়নি। কিন্তু ‘বিলু রাক্ষস’-এর পরিচালক ইন্দ্রাশিস আচার্য’র নতুন ফিল্ম পিউপা এই বিভাগের প্রতিযোগিতায় অংশ নিচ্ছে বলে জানা গেছে। পিউপা-র  অন্যতম প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন পরিচালক কমলেশ্বর মুখোপাধ্যায়। নিঃসন্দেহে এটি একটি চমক। কমলেশ্বর মুখোপাধ্যায়কে এর আগে অন্য কোনো ফিল্মে এত গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে দেখা যায়নি। তিনি ছাড়াও এই ছবিতে অভিনয় করেছেন রাহুল ও সুদীপ্তা চক্রবর্তী। বিলু রাক্ষস-এর সাফল্য থেকে অনুমান করা যেতে পারে পিউপা-তেও ভালো কিছুই অপেক্ষা করছে দর্শকদের জন্য। অনুমান করাই যায় বিভিন্ন ভারতীয় ভাষার সেরা ফিল্মগুলির মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হতে চলেছে এই বিভাগে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here