winter skin care
বরং আর না ভেবে রূপচর্চার জন্য বাড়িতে তৈরি করে নিতে পারেন ফ্রুট ফেসপ্যাক।

ওয়েবডেস্ক: শুষ্ক ও রুক্ষ ত্বক শীতকালের একটি সাধারণ সমস্যা। গরমকালে ধুলোবালির কারণে ত্বকে শুষ্কতা দেখা দেয়। আর শীতের শুষ্ক বাতাস ত্বকের আর্দ্রতা শুষে নেয়, ফলে ত্বক রুক্ষ হয়ে যায়।

বরং আর না ভেবে রূপচর্চার জন্য ব্যবহার করুন ফ্রুট ফেসপ্যাক। যে ফল মানুষের শরীরকে তাজা রাখে, খাদ্য হিসাবে যে ফলের কোনো বিকল্প হয় না, সেই ফলেরই তৈরি ফেসপ্যাক। আর এই ফেসপ্যাক তৈরি করে নিতে পারেন বাড়িতেই।

১। কমলালেবু

কমলালেবুতে আছে প্রচুর ভিটামিন-সি, বিটাক্যারোটিন, ফসফরাস ও আয়রন। এই সব উপাদান ত্বকের কালো দাগ দূর করতে সাহায্য করে। তা ছাড়া কমলালেবুর খোসা শুকিয়ে গুঁড়ো করেও ব্যবহার করা যায়।

শুকনো কমলালেবুর খোসা ভালো করে মিক্সিতে গুঁড়ো করে নিন। এর পরে ওই গুঁড়োর মধ্যে ১ চামচ মধু, ১ চামচ অলিভ অয়েল, ১-২ চামচ টক দই মেশান। ভালো করে মিশিয়ে নিয়ে মিশ্রণটাকে মুখে লাগান। ১৫ মিনিট প্যাকটি লাগিয়ে রাখুন। শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা জলে মুখ ধুয়ে নিন।

২। আপেল

আপেল যেমন খেতে সুস্বাদু তেমনই কিন্তু এর উপকারিতাও অনেক। রূপচর্চায় চাইলে আপেল কাজে লাগাতে পারেন।

আপেলটা আগে ভালো করে পেস্ট করে নিন। আপেলের পেস্টের মধ্যে ১-২ চামচ মধু মিশিয়ে নিন। পুরো মুখে এই প্যাকটি লাগান। তার পর সার্কুলার মোশনে ৫ মিনিট ম্যাসাজ করুন। অন্তত ১০ মিনিট রেখে শুকিয়ে গেলে সামান্য উষ্ণ জলে ধুয়ে নিন। এতে মুখের সৌন্দর্য বাড়ে। ত্বক হয় লাবণ্যময়।

৩। কলা

ভিটামিন ও মিনারেলের ভাণ্ডার হচ্ছে কলা। এতে আছে ভিটামিন-সি ও বি, পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম বায়োটিন ইত্যাদি। কলা খেলে যেমন উপকার তেমনি কলার তৈরি ফেসপ্যাকও উপকারী। ত্বকের উজ্জ্বলতা হারিয়ে যাওয়ার হাত থেকেও রক্ষা করে কলা।

ঘরে পাকা কলা থাকলে একটি কলা ভালো করে পেস্ট করে তার সাথে ১ চামচ মধু অথবা ১ চামচ লেবুর রস মিশিয়ে নিন। এ বার এটি মুখে ও গলায় ১৫-২০ মিনিট লাগিয়ে রেখে দিন। শুকিয়ে গেলে হালকা উষ্ণ জলে ধুয়ে নিন।

৪। পেঁপে

শীতকালে সুস্থ সুন্দর ত্বক পেতে প্রতি দিন খেতে পারেন পাঁকা পেঁপে। তবে শুধু খাওয়া নয়, পেঁপে দিয়ে ফেসপ্যাকও বানানো যায়। কারণ এতে আছে প্রচুর ভিটামিন সি, ই এবং বিটাক্যারোটিন, যা ত্বকে পুষ্টি জোগায়। ব্রণর উপদ্রব কমাতে এবং ত্বককে সূর্যের ক্ষতিকর প্রভাব থেকে মুক্ত রাখতেও সাহায্য করে পেঁপে। ত্বকের মৃতকোষ দূর করে ত্বককে উজ্জ্বল করে তুলতেও পেঁপের তুলনা নেই।

পাকা পেঁপের পেস্টের মধ্যে ২ চামচ মধু, সামান্য লেবুর রস মিশিয়ে মুখে লাগান। ১০ মিনিট রেখে শুকিয়ে গেলে হালকা উষ্ণ জলে ধুয়ে নিন।

আরও পড়ুন: রসুনের ম্যাজিক! জেনে নিন এই ৮টি সমস্যার সমাধান সম্পর্কে

৫। টমেটো

ত্বকে পুষ্টি জোগাতেও সাহায্য করে টমেটো। রোদে পোড়া কালোভাব দূর করতে এর রস খুবই কার্যকর। চাইলে ক্লিনজার হিসেবেও টমেটো ব্যবহার করা যায়।

টমেটোর রসের সাথে ১ চামচ মধু, ১ চামচ হলুদ, ২ চামচ টক দই মিশিয়ে তৈরি করে নিন ফ্রুট ফেসপ্যাক। মিশ্রণটি পুরো মুখে লাগিয়ে ২-৩ মিনিট ম্যাসাজ করুন। ১০ মিনিট রেখে জল দিয়ে ধুয়ে নিন।

১ সপ্তাহ ফ্রুট ফেসপ্যাক ব্যবহার করলেই বুঝতে পারবেন ত্বকের শুষ্কতা দূর হয় কি না।

 

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here