এই ৫টি বিষয় এড়িয়ে চলুন

ওয়েবডেস্ক: প্রেমিকের সঙ্গে প্রত্যেক দিনই কি কিছু না কিছু বিষয় নিয়ে সমস্যা হচ্ছে? চেষ্টা করেও কিছুতেই নিজের কথাটা বোঝাতে পারছেন না?

দেরি না করে বরং আপনার মনের মধ্যে যা কথা জমে আছে তা আপনার স্বামী বা প্রেমিকের কাছে বলুন। যে কোনও সমস্যাকেই হালকা ভাবে না নিয়ে যখনকার সমস্যা সঙ্গে সঙ্গে মিটিয়ে ফেলাই ভালো।

কারণ এই ধরনের ছোটোখাটো সমস্যার মধ্যেই লুকিয়ে থাকে বিপর্যয়ের আভাস৷ তাই যদি মনে হয় প্রেমিক আপনার দিকে ঠিকমতো মনোযোগ দিচ্ছেন না, বা আপনার মন বুঝতে পারছেন না, তা হলে ক্ষোভ মনের মধ্যে পুষে না রেখে সরাসরি কথা বলুন ওঁর সঙ্গে৷ কথা বলার সময় খুব ভাবনা-চিন্তা করে কথা বলবেন, যেন আপনার ব্যবহারে কোনও ভাবেই আপনার স্বামী বা প্রেমিক আঘাত না পায়। কারণ সম্পর্কের বাঁধন একবার আলগা হয়ে গেলে তা সহজে জোড়া লাগা কিন্তু খুব কঠিন।

১। অভিযোগ করা বন্ধ করুন

সঙ্গীর সঙ্গে কোনও বিষয়ে যখন তর্ক হচ্ছে, তখন যেন আপনার দিক থেকে একতরফা অভিযোগের সুর না থাকে৷ সমস্ত দোষ ওঁর ঘাড়ে চাপাবেন না৷ মনে রাখবেন, ওঁর সঙ্গে ঝগড়া হলে তাতে আপনারও দায় রয়েছে৷

২। কথা বলা বন্ধ করবেন না

যে কোনও স্বামী-স্ত্রীর মধ্যেই ঝগড়াঝাটি হতেই পারে৷ তার জন্য কখনোই কথাবার্তা বন্ধ করে দেবেন না৷ এতে কিন্তু আপনাদের সম্পর্কেই ফাটল ধরবে।

৩। বিদ্রুপের সুরে কথা বলবেন না

অনেক সময়ে মতের অমিল হতেই পারে৷ কিন্তু তার জন্য সঙ্গীকে বিদ্রুপ করবেন না৷ ঠাট্টার সুরে কথা বলে আপনি কিন্তু সঙ্গীকে অনেক বেশি আঘাত করছেন!

আরও পড়ুন: আপনার সঙ্গীর সঙ্গে এই প্রথম শারীরিক ঘনিষ্ঠতার জন্য আপনি তৈরি তো?

৪। সঙ্গীর কথা শুনুন

নিজের কথা তো বলবেনই৷ কিন্তু সম্পর্কের উন্নতি করার জন্য তাঁর কথা শোনাও সমান দরকার৷ আপনার সঙ্গী কী বলতে চাইছে মন দিয়ে ওঁর কথাগুলো ঠান্ডা মাথায় শুনুন। সমস্যার সমাধান ঠিক খুঁজে পাবেন৷

৫। সারাক্ষণ সমালোচনা করবেন না

সারাক্ষণ একে অন্যের ভুল খুঁজে বেড়াবেন না৷ সবসময় সঙ্গীর সমালোচনা করলে ওঁর ভালো দিকগুলো আর দেখতেই পাবেন না৷ সম্পর্কে ভালোবাসা ফিরিয়ে আনতে ওঁর ভালো দিকগুলোর প্রশংসাও করুন৷

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here