সরস্বতী পুজোয় নিজেকে চকচকে বানাতে রইল ঘরোয়া পরামর্শ

0

খবর অনলাইন ডেস্ক : বিভিন্ন ঋতুতে চুল, ত্বকের যত্ন আলাদা হয়। গ্রীষ্মে যে সমস্যা ও যত্ন, শীতে তা নয়। আবার বর্ষা অন্য আবহাওয়ায় ত্বক চুলের সমস্যা ও যত্ন আলাদা হয়। এই কথা মোটামুটি অনেকেই জানেন। তাই শীতকাল ভর রূপটানে যে টোটকা ছিল তা আসন্ন ঋতুতে বদলাবেই।

যদিও হাওয়া দফতরের তথ্য অনুযায়ী শীতের ব্যাটিং আরও কিছুদিন কম বেশি চলবে। তবে, ঋতুরাজের আগমনের বার্তাও মাঝে মাঝে গায়ে লাগছে। তাই এবার সরস্বতী পুজোর প্রাক্কালে শুরু করতে হবে বসন্তের রূপচর্চা। বাঙালির ভ্যালেন্টাইন ডে অর্থাৎ সরস্বতী পুজোয় ত্বকের জেল্লায় তাক লাগিয়ে দিন সকলকে।  

Shyamsundar

তেমনই কয়েকটি ঘরোয়া পরামর্শ রইল আজ।

ঠোঁটের যত্ন

ঠোঁট ফাটা সকল আবহাওয়াতেই কমবেশি হয়েই থাকে। ফলে সুন্দর দেখানোর পথে প্রথম বাধাই এটি। খুব দ্রুত ঠোঁট ফাটে। এটি মনের মধ্যে একটি আলাদা অস্থিরতা তৈরি করে। তাই ঠোঁটকে সুস্থ সতেজ রাখতে, রইল একটি স্ক্রাবারের টোটকা।

আধ চামচ মধু, আধ চামচ নারকেল তেল ও আধ চামচ ব্রাউন সুগার ( বা সাধারণ চিনি) এক টেবিল চামচের চার ভাগের এক ভাগ ঈষদুষ্ণ গরম জল এক সঙ্গে মিশিয়ে হালকা হাতে ঠোঁটে চক্রাকারে মালিশ করুন। চার পাঁচবার করার পর জল দিয়ে ধুয়ে নিন। তারপর ঠোঁটে লিপবাম বা পেট্রোলিয়াম জেলি লাগিয়ে নিন।

ঘরোয়া ফেশিয়াল

ত্বকের জন্য খুবই উপকারী কমলালেবু, শশা, মধু, গোলাপজল, টক দই। এগুলি দিয়ে চটজলদি ঘরোয়া ফেস মাস্ক বানান।

একটা কমলালেবুর খোসা বাটা, চার ভাগের এক ভাগ শশা থেঁতো করা, এক চা চামচ মধু, আধ টেবিল চামচ গোলাপ জল, এক টেবিল চামচ টকদই মিশিয়ে নিন। মুখ পরিষ্কার করে মুখে লাগিয়ে আধ ঘণ্টা রেখে জল দিয়ে ধুয়ে নিন। পছন্দের ময়শ্চারাইজার লাগিয়ে নিন।

চুলের দীপ্তি

রুক্ষ ও বিবর্ণ চুলে ব্যবহার করুন নারকেল ও আমন্ড তেল। সপ্তাহে এক থেকে দুই দিন যে কোনো একটি তেল ব্যবহার করলেও হবে।

পাশাপশি একটি প্যাক বানান – ডিম, মধু, টকদই, পাকাকলা দিয়ে। এটি শ্যাম্পু করা মাথায় লাগিয়ে আধ ঘণ্টা রেখে হালকা ধরনের শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

খাওয়া ঘুম

এই সব কিছু বাইরের ব্যবস্থার সঙ্গে দরকার ভেতরের পরিচর্যাও। তা সম্ভব সঠিক খাওয়া ও পর্যাপ্ত ঘুমে। টাটকা সবুজ শাকসবজি ফল খাওয়ার সঙ্গে খেতে হবে পর্যাপ্ত জল। ঘুমোতে হবে কম করে সাত থেকে আট ঘণ্টা। ঘুমের অভাব ঘটলে তার প্রভাব ত্বকের ওপরেও পড়বেই।

ঘুম ভালো হওয়ার জন্য ব্যবহার করা যায় সুবাস। তার জন্য বালিশে চন্দন তেল বা ল্যাভেন্ডার অয়েল ব্যবহার করতে পারেন যদি এসবে কোনো রকম অ্যালার্জির সমস্যা না থাকে।

এই পদ্ধতিগুলি প্রয়োগ করে দেখুন, সরস্বতী পুজোর আগে চেহারার হারানো জেল্লা ফিরে আসবেই।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন