ওয়েবডেস্ক: বয়স বেড়ে যাচ্ছে? ত্বক নিয়ে চিন্তিত? আগের মতো ত্বকের সেই উজ্জ্বলতা আর খুঁজে পান না। অথচ নিজেকে সুন্দর রাখতে চান? সে তো স্বাভাবিক ব্যাপার। সে কে না চায় নিজেকে সুন্দর রাখতে।

প্রত্যেকেই একগুচ্ছ টাকা খরচ করে নিজেকে সুন্দর রাখার জন্য যেমন নামী-দামি পার্লারে যান আবার বিভিন্ন প্রসাধনীও কিনে থাকেন।

কিন্তু আপনি কি জানেন আপনার ত্বকের আসল রহস্য লুকিয়ে আছে ঘরোয়া পদ্ধতিতে। শাক-সবজি ও ফল খাওয়ার অভ্যাস কি আছে? থাকলে তো খুব ভালো কথা। আর যদি না থাকে তা হলে ত্বকের ঔজ্জ্বল্য ফেরাতে বেশি করে সবজি ও ফল খেতে হবে।

ভাবছেন কোন সবজি বা কোন ফল খেলে ত্বকের উজ্জ্বলতা ফিরে পাবেন?

তা হলে চলুন জেনে নেওয়া যাক-

১। আমলা

এতদিন কি জানতেন আমলা আপনার ত্বকের জন্য ঠিক কতটা উপকারী। না জানাটাই স্বাভাবিক। প্রতি দিন সকালে ঘুম থেকে উঠে খালি পেটে আমলা খান। কারণ এর মধ্যে রয়েছে ভিটামিন এ। এক মাসের মধ্যে আপনি নিজেই বুঝতে পারবেন আপনার হারিয়ে যাওয়া ত্বকের ঔজ্জ্বল্য ফিরে এসেছে।

২। আপেল

আপেল যে শুধু ত্বকের উজ্জ্বলতা ফিরিয়ে আনে তা নয়, রুক্ষ হয়ে যাওয়া ত্বকের প্রাণ ফিরিয়ে আনে। এ ছাড়া মুখের মধ্যে কোনো কালো বা সাদা ছোপ থাকলে তা তুলতেও সাহায্য করে। যদি মনে করেন, আপেল গোটা না খেয়ে জুস করে নিয়ে খাবেন তা-ও খেতে পারেন। আপেলের মধ্যে রয়েছে ভিটামিন সি।

৩। বিট

বিট এমনই একটি সবজি শরীরে রক্তের পরিমাণ কমে গেলে রক্তের অভাব পূরণ করতে সাহায্য করে। এনার্জির পরিমাণ বাড়াতেও সাহায্য করে। শুধু তা-ই না, ত্বকের মধ্যে রিঙ্কেল পড়লে তা তুলতেও সাহায্য করে।

প্রথমে বিটটা সেদ্ধ করে নিন এবং তার পরে সেদ্ধ করা বিটের মধ্যে এক চামচ লেবুর রস মিশিয়ে নিন। প্রতি দিনই খেয়ে দেখুন। দেখবেন আবার আগের মতো ত্বক ফিরে পাবেন।

৪। গাজর

গাজর দিয়ে মুখরোচক অনেক খাবার খেতে আমাদের ভালো লাগে। আবার গাজরের মধ্যে আছে বিটা ক্যারোটিন ও ভিটামিন এ। গাজর খেলে ত্বকের মধ্যে যেমন কোনো রিঙ্কেল পড়তে দেয় না, আবার ত্বকের মধ্যে যদি রিঙ্কেল এসে যায় গাজর খেলে তা আস্তে আস্তে চলে যায়।

৫। লেবু

লেবু যেমন রান্নার অনেক কাজে লাগে ঠিক তেমনই খাওয়ার সময় পাতে একটা লেবু না থাকলে ঠিক ভালো লাগে না। কিন্তু এটা কি জানেন লেবু ত্বকের উজ্জ্বলতা ফিরিয়ে আনার সঙ্গে সঙ্গে মুখের ট্যান ও কালো ছোপ দূর করে।

যদি মনে করেন, আগের তুলনায় আপনার ওজন বেড়ে গিয়েছে  তা হলে এক কাপ হালকা উষ্ণ জলের মধ্যে ২ চামচ লেবুর রস দিয়ে খান।

৬। কুমড়ো বীজ

কুমড়ো খাওয়া যে স্বাস্থ্যের পক্ষে ভালো তা অনেকেরই জানা। কিন্তু কুমড়োর বীজের মধ্যেও যে লুকিয়ে রয়েছে ভিটামিন তা মনে হয় অনেকেরই অজানা।

কুমড়োর বীজ খেলে শরীরে তৈরি হয় নতুন কোষ। এ ছাড়া কুমড়োর বীজ বেঁটে নিয়ে এর সঙ্গে অল্প জল দিয়ে একটি মিশ্রণ বানিয়ে নিন। মুখের মধ্যে যে সব জায়গায় রিঙ্কেল আছে সেখানে লাগান।

৭। শাক

শাক খাওয়ার অভ্যাস কি আছে? যদি না থাকে অল্প হলেও শাক খান। কারণ শাকের মধ্যে আছে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট। শাক খেলে ত্বক যেমন চকচকে হয় মুখের মধ্যে একটা নরম ও কোমল ভাব থাকে।

৮। স্ট্রবেরি

স্ট্রবেরির মধ্যে আছে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট ও ম্যালিক অ্যাসিড। স্ট্রবেরি খেলে ত্বকের রং উজ্জ্বল করে। তিন-চারটে স্ট্রবেরি নিয়ে আগে হালকা করে চটকে নিয়ে এর সঙ্গে এক চামচ মধু দিয়ে একটি প্যাক বানিয়ে নিন। এর পরে মুখে ও ঠোঁটের মধ্যে অন্তত ২০ মিনিট লাগিয়ে রাখুন। হালকা উষ্ণ জল দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন।

৯। আলু

আলুর মধ্যে রয়েছে ভিটামিন এ এবং ভিটামিন সি। প্রথমে আলুটা বেঁটে নিন। বেঁটে নেওয়ার পরে আলু থেকে যে রস বেরোবে ওই রসের সঙ্গে এক চামচ লেবুর রস দিয়ে মুখে লাগান। এতে মুখের মধ্যে থাকা মেচেদা, রিঙ্কেল, ট্যান চলে যায়।

১০। টমেটো 

টমেটোর মধ্যে আছে লাইকোপিন, অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট। টমেটো খাওয়া যেমন উপকারী, আবার ত্বকের জন্য খুব ভালো কাজ দেয়। ত্বকের উজ্জ্বল ভাব চলে যায় এবং ত্বকের মধ্যে ট্যান পড়লে তাও তুলতে সাহায্য করে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here