কী ভাবে দূর করবেন কপালের বলিরেখা?

ওয়েবডেস্ক: জীবন বড়ই অদ্ভুত! প্রত্যেকেরই জীবনে রয়েছে কিছু না কিছু সমস্যা। কম-বেশি প্রত্যেকেই চিন্তা ও মানসিক চাপের মধ্যে থাকেন।

সে পরিবারের চাপ হোক, বেকারত্ব, মাস গেলে একটা টাকা ব্যাঙ্কে জমানো কিংবা পড়াশুনার চাপ ইত্যাদি নানা কারণ নিয়ে মানুষ সব সময়ই ভেবে চলেছে।

আর এত চিন্তা-ভাবনা করার প্রভাব ত্বকের মধ্যে পড়ে। শুধু কপালেই যে ভাঁজ পড়ে তা নয় অনেক সময়ে মুখের মধ্যেও বলিরেখা দেখা যায়। ক্রমশ ত্বকের মধ্যে পড়তে থাকে বয়সের ছাপ।

সে আপনি কোনো মানুষের সঙ্গে কথা বলুন বা একটু হাসতে গেলেই কপালের মধ্যে মোটা মোটা দাগ পড়ে। তখন দেখতে তো খুবই বাজে লাগে। কিন্তু কপালের এই ভাঁজ থেকে মুক্তি পাবেন কী ভাবে তা কী জানা আছে?

কী বলছেন? ঠিক মতো জানেন না কি করলে কপালের ভাঁজ থেকে মুক্তি পাবেন।

তা হলে জেনে নেওয়া যাক কপালের ভাঁজ দূর করার উপায়গুলি-

১। নারকেল তেল 

ছবি সৌজন্য: ভিকুল 

প্রতিদিন রাতে শুতে যাওয়ার আগে অল্প পরিমাণ নারকেল তেল নিয়ে কপালে এবং সারা মুখে লাগিয়ে ভালো  করে ম্যাসাজ করতে হবে। নিয়ম করে প্রতিদিন করতে পারলে দেখবেন ধীরে ধীরে কপালের ভাঁজ অথবা বলিরেখা চলে যাবে।

আরও পড়ুন : ত্বকের পরিচর্যায় ব্যবহার করুন আম
২। রেড়ীর তেল 

ছবি সৌজন্য: ফোরগাট 

কপালের বলিরেখা দূর করতে রেড়ীর তেলের কোনো বিকল্প নেই বললেই চলে। প্রতিদিন ঘুমোতে যাওয়ার আগে ৫-৬ চামচ রেড়ীর তেল নিয়ে ভালো করে কপালে ম্যাসাজ করুন। এ ছাড়া মুখের মধ্যে যদি ফ্রিকেলসের ছাপ পড়ে তা দূর করতেও সাহায্য করে রেড়ীর তেল।

৩। অলিভ অয়েল 

 

ছবি সৌজন্য: অরগ্যানিক ফ্যাক্ট 

৬-৭ চামচ অলিভ অয়েল নিয়ে গরম করে নিন। তারপর একটু ঠান্ডা হলে তা কপালে এবং সারা মুখে লাগিয়ে কম করে ১০-১৫ মিনিট ভালো করে ম্যাসাজ করুন। ১ মাস করে দেখুন। দেখবেন কপালের বলিরেখা তো দূর হবেই সেইসঙ্গে হারিয়ে যাওয়া ত্বকের উজ্জ্বলতাও ফিরে পাবেন।

আরও পড়ুন: ঘরোয়া পদ্ধতিতে পেয়ে যান ব্ল্যাকহেডস থেকে মুক্তি 

 

৪। অ্যালোভেরা এবং ডিম

 

ছবি সৌজন্য: সারকোভার

২ চামচ অ্যালোভেরা জেল এবং ১ টা ডিমের সাদা অংশ নিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন। তারপর সেই মিশ্রনটি কপালের পাশাপাশি সারা মুখে ভালো করে লাগিয়ে ১০-১৫ মিনিট অপেক্ষা করুন। শুকিয়ে গেলে হালকা গরম জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

 

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন