ঋতু বদলের সময় ত্বকের যত্নের ৭টি টিপস

0
স্কিন

ওয়েবডেস্ক: শীত এ বার যাব যাব করছে, রোদে বেশিক্ষণ থাকলেই বেশ গরম অনুভব হচ্ছে। এমন আবহাওয়ায় যেমন রোগের উপদ্রব বাড়ে, তেমনই ত্বকেরও মানিয়ে নিতে সমস্যা হয়। একবার ঠাণ্ডা, আবার হঠাৎ গরমে ত্বকের বিশেষ ধরনের যত্নের প্রয়োজন।

সেই বিশেষ যত্ন কিন্তু বাইরে থেকে বিভিন্ন কিছু মেখে বা লাগিয়েই যে নেওয়া সম্ভব, তা নয়। তার জন্য দরকার শরীরের ভেতর থেকে কিছু বিশেষ কেয়ার।

তেমনই কয়েকটা টিপস রইল এখানে।

১। জল –

এই আবহাওয়াটা এমনই, জল তেষ্টা বেশি পায় না। কিন্তু হালকা গরমে সামান্য সামান্য করে ঘাম বেরতে থাকে। যা কেউই অতটা খেয়াল করি না। তাতে হয় কী শরীরে জলের ঘাটতি হতে থাকে। জলের ঘাটতির কারণে কিন্তু ত্বকের আর্দ্রতা হ্রাস পেতে থাকে। ত্বক শুষ্ক হয়ে যায়। তাই নিজে থেকে মনে করে জল তেষ্টা না পেলেও বেশি করে যতটা সম্ভব জলপান করতে হবে।

২। ঘুম –

শরীর ভালো রাখতে যেমন পর্যাপ্ত পরিমাণ ঘুম আব্যশক। ঠিক তেমন ভাবেই ত্বক ভালো রাখতেও গুরুত্বপূর্ণ হল ঘুম। তাও পরিমাণ মতো। যে কোনো মানুষেরই সারা দিনে কম করে অন্তত সাত থেকে আট ঘণ্টা ঘুমানো দরকার। কিন্তু আজকাল অনেকেই সেই সময়টাকে আরও অন্য কাজে লাগানো যেতে পারে বলে মনে করে। ঘুমকে তেমন গুরুত্ব দেয় না। কিন্তু ভুল এখানেই হয়। শরীরের এই প্রাথমিক চাহিদা পূরণ না হলেই শরীর যেমন খারাপ হয়, তেমনই তাল মিলিয়ে তার ছাপ পড়ে ত্বকে। তাই ঋতু পরিবর্তনের সময় কিন্ত ঘুমের অবহেলা যেন একদম না হয়, সে বিষয়টি মাথায় রাখতেই হবে।

৩। খাবার –

জল আর ঘুমের মতোই আরও একটি প্রাথমিক চাহিদা হল খাবার। শুধু খাবার নয়, সুষম ও পুষ্টিকর খাবার। এই পুষ্টিগুণই তো শরীরে প্রবেশ করে ত্বকের প্রয়োজনীয় যাবতীয় চাহিদা মেটায়। তাই এই ঋতু পরিবর্তনের সময় সুষম উপযুক্ত খাবার খেতে হবে। শুধু পেট ভরানো উদ্দেশ্য হলে চলবে না, বা জাঙ্ক ফুড খেয়ে পেট ভরালেই চলবে না। তাতে রোগের উপদ্রব বাড়বে, তা শরীরের সঙ্গে সঙ্গে ত্বকের ক্ষতি করবে। তাই অবশ্যই করে দরকার উপযুক্ত পুষ্টিকর খাবার।  

৪। ময়েশ্চারাইজিং ক্রিম –

এ বার ধীরে ধীরে সময় আসছে লোশন ভুলে ময়েশ্চারাইজিং ক্রিম ব্যবহার করার। কারণ, আবহাওয়া অনুযায়ী যেমন ত্বকের পরিবর্তন হয়, তেমন পরিবর্তন হয় তার প্রয়োজনেরও। তাই তাকে সেই মতো যত্ন করতে হবে। তাই হালকা গরম, হালকা ঠাণ্ডা এমন সময় থেকেই লোশন থেকে ক্রিমে হাত বাড়াতে হবে। তবে হ্যাঁ, প্রত্যেকের ত্বকের ধরন আলাদা। তাই ত্বকের ধরন অনুযায়ী বাছাই করতে হবে ঠিক জিনিসটি। কোন ত্বকে কোনটি উপযুক্ত, তা ভালো ভাবে জেনে তবেই তা কেনা ও ব্যবহার করা উচিত।

৫। ফেসিয়াল –

ত্বকে অনেকেই ফেসিয়াল করায় অনেকেই করায় না। তবে উভয়ের জানার জন্যই বলে রাখা ভালো এই ঋতু পরিবর্তনের সময়টিই হল ফেসিয়াল করানোর জন্য আদর্শ সময়। কারণ এই সময় ত্বকের নিজস্ব ভারসাম্য নষ্ট হয় এবং ফেসিয়াল সেই ভারসাম্য রক্ষা করতে ত্বককে সাহায্য করে। ত্বককে পুষ্টি জোগায়। এই পুষ্টি বা খাবার ত্বককে এই পরিবর্তনের সঙ্গে খাপ খাইয়ে চলতে সাহায্য করে।

৬। সানস্ক্রিন –

গ্রীষ্ম আর বসন্তের রোদের মধ্যে পার্থক্য থাকলেও দুই সময়ের রোদেই কিন্তু অতিবেগুনী রশ্মি বর্তমান। অর্থাৎ তার থেকে হওয়া সম্ভাব্য ক্ষতিও বর্তমান। এই ক্ষতির কারণে অনেক ক্ষেত্রেই হতে পারে স্কিন ক্যানসারও। তবে ভয় পাওয়ার কোনো কারণ নেই, সব ক্ষেত্রেই যে একই ফল হবে তা তো নয়। যাই হোক, মোট কথা রোদ থেকে বাঁচতে ও ত্বককে বাঁচাতে সানস্ক্রিন ক্রিমের কথা ভোলা চলবে না।

৭। ছাতা –

অনেকেই ছাতা বইতে চায় না। আবার অনেকে ঋতু ভেদে ছাতা ব্যবহার করে। সকলের জন্যই বলা, এখন কিন্তু ছাতা ব্যবহারের সময় ধীরে ধীরে এগিয়ে আসছে। প্রথম রোদটা মিষ্টি লাগলেও কিছুটা সময় কাটার পরই গায়ে বেশ গরম লাগছে। সেই ক্ষেত্রে ছাতা ব্যবহার কিন্ত খুব খারাপ আইডিয়া নয়। তা ছাড়া সূর্যের তাপ লাগা যেমন ভালো তেমন অতিরিক্ত লাগা কিন্তু ভালো নয়। তাই ছাতা সঙ্গে থাকলে ত্বকই ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা পায়।

সুতরাং ঋতু পরিবর্তনের সময় ত্বককে সুস্থ স্বাস্থ্যোজ্জ্বল রাখতে হলে এই অতি সাধারণ বিষয়গুলিকেই গুরুত্ব দিতে হবে, যা কেউই প্রায় সাধারণত দিই না। তবে এইগুলি শুধু যে ঋতু পরিবর্তনের জন্যই প্রযোজ্য তা কিন্তু নয়। তা সারা বছর যে কোনো সময়ই গুরুত্বপূর্ণ।

দেখুন – ব্রণ-র হাত থেকে মুক্তি পেতে এই ঘরোয়া পদ্ধতিটি অবশ্যই প্রয়োগ করুন

------------------------------------------------
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.