Connect with us

রূপচর্চা

বিয়ের আগে মুখের মেদ ঝরাতে সহজ ৫টি ব্যায়াম শিখে নিন

ফ্যাট2

ওয়েবডেস্ক : সামনেই বিয়ের দিন ঠিক হয়ে গিয়েছে? হাতে মাত্র ক’টা দিন। তাই বিয়ের কথা শুরু হওয়ার পর থেকে নিজেকে ঝরঝরে বানানোর জন্য ব্যায়াম যোগাসন নিয়মিত করছেন। ফলও পাচ্ছেন। কিন্তু মুখটা যেমন বেলুনের মতো ফোলা সেটাই রয়ে গিয়েছে। এক কণা মেদও সেখান থেকে ঝরাতে পারেননি। তাই মনের মধ্যে একটা খারাপ লাগা কাজ করছে। বিয়ের অমন সুন্দর সাজে সব ঠিক থাকলেও আসল ব্যাপারটাই মার খেয়ে যাবে। তাই বিরক্তও লাগছে খুব। কিন্তু না আর বিরক্ত লেগে কাজ নেই। বরং সঠিক পদ্ধতি প্রয়োগ করে মুখটাকেও চিকন করে ফেলুন। তার জন্য একটু ধৈর্য এবং একাগ্রতা প্রয়োজন।

আমাদের শরীর যেমন বহু রকমের মাংসপেশির সম্বন্বয়ে তৈরি। তাদের কাজও ভিন্ন। তেমনই আমাদের মুখও নানান রকমের পেশির সম্বন্বয়ে তৈরি। নয়-নয় করে প্রায় ৫০ রকমের পেশি রয়েছে। তাই তাদের ব্যবহার স্থান কাজ এবং তাদের মেদ কমানোর পদ্ধতি সবই আলাদা।

তাই শুধু শরীরের বিভিন্ন অংশের ব্যায়াম করে শরীরের বিভিন্ন অংশের মেদ কমানো গেলেও মুখের মেদ কমানো সম্ভব নয়। তা কমানো যাবে শুধুমাত্র মুখের ব্যায়ামের মাধ্যমেই। সেই মুখের ব্যায়ামও করতে হবে নিয়ম করে।

এ বার বরং জেনে নেওয়া যাক ব্যায়ামগুলো কী কী? করতেই বা হবে কেমন করে?

প্রথম ব্যায়াম –

প্রথমে চোখ বন্ধ করে চোখের ওপর আঙুল রেখে চোখের পাতা নিচের দিকে নামানোর সঙ্গে ভ্রু ওপরে তোলার চেষ্টা করতে হবে। এতে কপাল টান টান হবে। রোজ ৫ মিনিট করে এই ব্যায়াম করতে হবে। এতে চোখের তলায় জমে থাকা মেদ ঝরে যায়। এ ছাড়াও চোখ বন্ধ অবস্থায় চোখের মণি ওপর থেকে নিচে নামাতে হবে, ঠিক চোখ বন্ধ অবস্থায় কিছু দেখার চেষ্টা করার মতো করেই করতে হবে। টানা ১৫ মিনিট এই ব্যায়াম করা যেতে পারে। প্রতিদিন অন্তত একবার করে এই ব্যায়াম করলে উপকার পাওয়া যাবে।

দ্বিতীয় ব্যায়াম –

দ্বিতীয় ব্যায়ামে মুখ যতটা সম্ভব হাঁ করে খোলার চেষ্টা করতে হবে, যতক্ষণ না গালে, ঠোঁটে এবং থুতনিতে টান বা চাপ অনুভব হচ্ছে। এই ভাবে মিনিট দু’য়েক থাকার পরে ১০ থেকে ১৫ সেকেন্ড রিল্যাক্স করতে হবে। দিনে ৫ থেকে ৬ মিনিট এই পদ্ধতিতে ব্যায়াম করতে হবে। এর ফলে মুখের রক্ত সঞ্চালন বেড়ে যায় যা মুখের অতিরিক্ত মেদ ঝরাতে সাহায্য করে।

তৃতীয় ব্যায়াম –

এর পরের ব্যায়ামটিতে মুখের মধ্যে একটি বা দু’টি আঙুল ঢুকিয়ে যতটা সম্ভব জোরে চুষতে হবে। অথবা ওই একই ভঙ্গিতে মুখের ভেতরে হাওয়া টেনে গাল দু’টিকে যতটা সম্ভব সংকুচিত করতে হবে। সেলফি তোলার সময় অনেকেই ‘পাউট’ করে ছবি তোলে। এটা অনেকটা পাউট করার মতো। দিনে অন্তত ১০ বার যদি এই পদ্ধতিতে ব্যায়াম করা যায় তা হলে গালের ফোলা ভাব খুব তাড়াতাড়ি কমে যাবে।

চতুর্থ ব্যায়াম –

এ বার মাথাটা পেছন দিকে যতটা সম্ভব হেলিয়ে দিতে হবে। তারপরে দু’ হাত দিয়ে গালের ওপর সমান ভাবে চাপ দিতে হবে। একই সঙ্গে যতটা সম্ভব মুখ বন্ধ অবস্থাতেই হাসারও চেষ্টা করতে হবে। অন্তত ১০ মিনিট টানা এই ব্যায়াম করতে হবে। নিয়মিত করতে পারলে গাল থেকে অতিরিক্ত মেদ সহজেই কমে যাবে।

পঞ্চম ব্যায়াম –

শেষ ব্যায়ামটিতে ধীরে ধীরে মাথা যতটা সম্ভব পেছন দিকে হেলানো যায় হেলাতে হবে। যতক্ষণ না ঘাড়ে চাপ অনুভব হচ্ছে। এ বার চোয়াল ডান দিক থেকে বাঁ দিক এবং বাঁ দিক থেকে ডান দিকে ধীরে ধীরে ঘোরানোর চেষ্টা করতে হবে। দিনে অন্তত ৩ থেকে ৪ মিনিট করে মোট ৫ বার এই ব্যায়াম করতে হবে। এই ব্যায়াম করলে ঘাড় এবং গলার পেশি টান টান হয়। একই সঙ্গে ঘাড় এবং গলার অতিরিক্ত মেদও ঝরে যায়। ফলে ডবল চিনের সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

তা হলে আর এক দিনও দেরি না করে শুরু করেদিন মুখের এই ব্যায়ামগুলি। কয়েকদিনের মধ্যেই সুফল নিজেই বুঝতে পারবেন।

দেখুন – পেটের মেদ কমাতে ৫টি খুব সহজ ব্যায়াম

জীবন যেমন

বারবার সাবানে ধুয়ে শুষ্ক হয়ে যাওয়া হাত কোমল হবেই এর যে কোনো ১টি উপায়ে

skin

খবরঅনলাইন ডেস্ক : করোনার হাত থেকে বাঁচতে এখন কথায় কথায় হাত সাবান দিয়ে ধোয়া অথবা হাতে স্যানিটাইজার বোলানো একটি নিয়মে পরিণত হয়েছে। কেউ কেউ মনের আশঙ্কা থেকে দিনের মধ্যে বেশ কয়েক বার কোনো কারণ ছাড়াই হাত সাবানে ধুয়ে নিশ্চিন্ত হচ্ছেন। এই ব্যাপারটা এখন কমবেশি সকলকেই প্রায় গ্রাস করেছে। পরিণতি যেটা হয়েছে, তা হল হাতের দফারফা। চূড়ান্ত খসখসে শুষ্ক হাতের ত্বক নিয়ে মনের মধ্যে একটা অশান্তি। আবার এর থেকে বেরোনোরও তো কোনো উপায় নেই। তা হলে কী করা যায়?

করার উপায় আছে, একটা নয় একাধিক। আগের মতো সুন্দর নরম হাত ফিরে পেতে হলে কয়েকটি ঘরোয়া প্রামর্শ নিয়মিত মেনে চললেই বাজিমাত। তার পর যত খুশি সাবান স্যানিটাইজার ব্যবহার করুন না কেন হাত ঠিক থাকবেই থাকবে।

দেখে নেওয়া যাক –

১. ঘৃতকুমারী অর্থাৎ অ্যালোভেরা

ঘৃতকুমারী বা অ্যালোভেরাতে ত্বক ভালো ময়েশ্চারাইজ হয়। খুব তাড়াতাড়ি আমাদের শুষ্ক হাত নরম করে। জেলটি হাতে মালিশ করতে হবে। দিনে অন্তত ২ বার। যদি কাঁচা অ্যালোভেরা পাতা পাওয়া যায় তার জেল বের করে হাতে ভালো করে মালিশ করে ১৫-২০ মিনিট রেখে দিতে হবে। তার পর হালকা গরম জলে ধুয়ে ফেলতে হবে। এই পদ্ধতিটি দিনে ১-২ বার নিয়ম করে করলেই শুকনো ত্বক ছু মন্তর।

সব সময় বাড়িতে গাছ নাও থাকতে পারে। সে ক্ষেত্রে ব্যবহার করতে হয় বাজার চলতি জেল। অ্যামজনের এই জিনিসগুলি কিনতে পারেন…..….

ইন্দাস ভ্যালি, বায়ো অর্গানিক, নন টক্সিক অ্যালোজেল। ১৭৫ এমএল, দাম ১৯৯ টাকা।

কিনতে হলে এখানে ক্লিক করুন

নিউইশ, পিওর অ্যালোভেরা জেল, ১০০ এমএল, ১৯৭ টাকা দাম।

কিনতে হলে ক্লিক করুন এখানে।

২. ভ্যাসলিন ক্রিম বা লোশন

ভ্যাসলিনের উপকারিতা সকলেরই জানা। রাত্রিবেলা ঘুমোনোর আগে অনেকটা মোটা করে ভ্যাসলিন হাতে লাগিয়ে দুই-তিন মিনিট ভালো করে মালিশ করুন। ঘুম থেকে উঠে, হাতের কোমলতা দেখে নিজেই চমকে যাবেন। প্রত্যেক দিন এই সামান্য কাজটি করুন।

ভ্যাসলিন ইনটেনসিভ কেয়ার কোকো গ্লো। ৪০০ এমএল, দাম ২৫৯ টাকা।

কিনতে হলে ক্লিক করুন।

ভ্যাসলিন স্কিন প্রোটেকটিং জেলি ২৫০ এমএল, ৩৪০ টাকা। ।

কিনতে হলে ক্লিক করুন

.অলিভ অয়েল

অলিভ অয়েল ত্বকের জন্য দারুণ পথ্য। দিনে অন্তত এক বার এই তেল হাতে লাগিয়ে ভালো করে মালিশ করে নিন। হাত নিজের কোমলতা ফিরে পাবে।

বৈদ্যনাথের অলিভ অয়েল,৫০০ এমএল, দাম ২০৮ টাকা।

কিনতে হলে ক্লকিও করুন

বার্টুলি অলিভ অয়েল, ৫০০ এমএল, দাম ৫২৫ টাকা।

কিনতে হলে ক্লিক করুন।

৪. গ্লিসারিন

শুষ্ক ত্বকের ক্ষেত্রে গ্লিসারিন একটি ভালো উপকরণ। এই ক্ষেত্রে তো অবশ্যই। এক চা চামচ জলে ৪– ৫ ফোঁটা গ্লিসারিন ফেলে তা হাতে মেখে নিলে সঙ্গে সঙ্গেই হাতের শুষ্কতা দূর হয়ে কোমল হয়ে উঠবে।

অ্যালিড গ্লিসারিন, ১০০ গ্রাম। ১৬০ টাকা।

কিনতে হলে ক্লিক করুন

অ্যালকনস গ্লিসারিন, ২০০ গ্রাম। দাম ২২০ টাকা।

কিনতে হলে ক্লিক করুন

৫. তেল চিনির মিশ্রণ

তেলের ক্ষেত্রে অলিভ অয়েল, নারকেল তেল, আমন্ড অয়েল, সূর্যমুখীর তেল ব্যবহার করা যেতে পারে। এক চামচ তেল এবং ২ চামচ চিনি ভালো করে মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণটি শুষ্ক হাতে বেশ কিছুক্ষণ মালিশ করুন। ২-৩ মিনিট ঘষার পর হাত হালকা গরম জলে ধুয়ে ফেলুন। এর পর কয়েক ফোঁটা গ্লিসারিন লাগিয়ে নিন।

১০০% অর্গানিক, কোল্ড প্রেসড অয়েল, ৩০ এমএল, দাম ১৫০ টাকা।

কিনতে হলে ক্লিক করুন

পিওর সানফ্লাওয়ার ১০০% কোল্ড প্রেসড। ১০০ এমএল, দাম ২৪৯ টাকা।

কিনতে হলে ক্লিক করুন।

৬. মধু

এক চামচ পাতিলেবু এবং মধু মিশিয়ে সম্ভব হলে দিনে দু’ বার দুপুরে ও রাতে নিয়ম করে ১০ থেকে ১৫ মিনিট মালিশ করুন। এর পর হালকা গরম জলে হাত ধুয়ে ফেলুন। হাতের শুষ্কতা সহজেই দূর হবে।

জিভা হানি, ১ কেজি, দাম ৩৬০ টাকা।

কিনতে হলে ক্লিক করুন।

ডাবর হানি স্কুইজি প্যাক। ১টা কিনলে ১টা ফ্রি।

কিনতে হলে ক্লিক করুন।

৭.কাঠবাদাম

হালকা গরম জলে কাঠবাদাম ভিজিয়ে রাখুন। এর পর খোসা ছাড়িয়ে ভালো করে পিষে নিন। এর সঙ্গে মধু মিশিয়ে একটি পেস্ট তৈরি করুন। এ বার এই পেস্টটিকে হাতে লাগিয়ে, দুই থেকে তিন মিনিট ভালো করে মালিশ করুন এবং হালকা গরম জলে হাত ধুয়ে নিন। নিয়মিত ব্যবহারে করুন। উপকার পাবেন।

তুলসী ক্যালিফোর্নিয়া আমন্ড, ২০০ গ্রাম। দাম ১৯০ টাকা।

কিনতে হলে ক্লিক করুন।

ন্যাচারোজ ক্যালিফোর্নিয়া আমন্ডস, ২০০ গ্রাম। ১৯৫ টাকা।

কিনতে হলে ক্লিক করুন

৮. খেজুর

খানিকটা খেজুর মিহি করে বেটে নিন। তাতে খানিকটা আমন্ড অয়েল মিশিয়ে ফোটান। মিশ্রণ ঘন হয়ে এলে ঠান্ডা করে নিন। কাচের পাত্রে এটি তুলে রাখুন। প্রতি দিন দু’ বার এই মিশ্রণটি হাতে লাগিয়ে ৫ থেকে ৬ মিনিট মালিশ করুন। হাত নরম ও মসৃণ হয়ে উঠবে।

ক্রাউন, ১কেজি খেজুর, দাম ৩৯৯ টাকা।

কিনতে হলে ক্লিক করুন

কিং সোলেমন ওরিয়েন্ট্যাল ২৫০ গ্রাম খেজুর, দাম ১৯৫ টাকা।

কিনতে হলে ক্লিক করুন।

এই পরামর্শগুলির কোনো একটি নিয়মিত পালন করুন। পরিবর্তন নিজের চোখেই দেখতে পাবেন।

দেখে নিন – দীর্ঘ সময় মাস্ক পরে ত্বকের ক্ষতি হচ্ছে না তো?

Continue Reading

জীবন যেমন

বর্ষাকালে চুল পড়ার সমস্যা? মুক্তি পেতে ১১টি উপায়

খবরঅনলাইন ডেস্ক : সময়টা বর্ষাকাল। ঘামের সমস্যা কিছুটা কমে। কিন্তু এই সময়ের সব থেকে বড়ো সমস্যা হয় চুলের। গাদাগাদা চুল ওঠে। চুলের বিভিন্ন রকম সমস্যা খুসকি, ঘামাচি, স্ক্যাল্পে ইনফেকশন ইত্যাদি দেখা যায়। বর্ষাকালের আর্দ্র আবহাওয়ার জন্য চুলের বেশি ক্ষতি হয়। তাই এই সময়ে দরকার বিশেষ যত্নের। এই সময়ে চুলের বিশেষ যত্ন কী ভাবে নেবেন? দেখে নিন –

১। বৃষ্টির জল ধুয়ে ফেলা

প্রথমেই খেয়াল রাখতে হবে, বৃষ্টিতে চুল ভিজে গেলে বাড়ি এসে চুল ভালো করে ধুয়ে নেবেন। বৃষ্টির নোনা জল চুলের ক্ষতি করে, জট বাধাতে পারে। তা ছাড়া বৃষ্টির জল বসে জ্বর হবে, সে খেয়ালও তো রাখতে হবে।

২। গোড়া শুকনো রাখা

গায়ের ঘাম কম হলেও মাথা কিন্তু অনবরত ঘামতেই থাকে। চুলের গোড়া ঘেমে যায় তার থেকেই হয় খুশকি ও চুল ঝরা শুরু হয়। তাই চুলের গোড়া সব সময় শুকনো রাখুন।

৩। গরম তেল ম্যাসাজ

শ্যাম্পু করার আগে নিয়ম করে নারকেল তেল গরম করে হালকা ভাবে ম্যাসাজ করুন। সারা রাত রেখে পরের দিন সকালবেলা শ্যাম্পু করে নিন।

৪। শ্যাম্পু করা

সপ্তাহে তিন দিন অবশ্যই শ্যাম্পু করুন। খুশকি তাড়ানোর শ্যাম্পু অনেক বেশি রুক্ষ হয়। তাই শ্যাম্পুর সঙ্গে ঘরোয়া উপাদান মিশিয়ে নিলে ভালো। শ্যাম্পুর সঙ্গে পেঁয়াজ মিশিয়ে নিলে চুল ঝরঝরে ও উজ্জ্বল হয়। শুষ্কতা থাকে না। সপ্তাহে একদিন সম্ভব হলে টকদই লাগাতে পারেন।

৫। ভেজা চুল নয়

ভেজা চুল কখনওই বাঁধা উচিত নয়। ভেজা চুল বেঁধে রাখলে মাথায় দুর্গন্ধ হয়। ভেজা চুলে জল ও ঘাম জমে খুশকি, উকুনের মতো সমস্যা দেখা যায়। চুলের ত্বকে ছত্রাকের সংক্রমণ হয়। যা চুলের স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর।

৬। ড্রায়ারের ব্যবহার

হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহার না করাই ভালো। এর কারণেও প্রচুর চুল পড়ে। তাই যতটা পারবেন এড়িয়ে যাবেন।

৭। কন্ডিশনার

শ্যাম্পু করার পর চুলে অবশ্যই কন্ডিশনার লাগাবেন। তাতে রুক্ষ ভাব দূর হয়। তবে কন্ডিশনার মানে কিন্তু চুলের গোড়ায় দেওয়া নয়। শুধু লম্বা চুলে।

৮। অ্যালোভেরা

চুলের জন্য অ্যালোভেরা ভীষণ ভালো। অ্যালোভেরার রস সপ্তাহে ২ -৩ বার লাগাতে পারেন। ভালো ফল পাবেন।

৯। মেথির ব্যবহার

চুলের জন্যে মেথি খুব উপকারী। সারা রাত একটি পাত্রে মেথি ভিজিয়ে নিয়ে সকালে জল ছেকে নিন। তার পর শ্যাম্পু করার পর সবার শেষে ওই মেথি ভেজানো জলটা দিয়ে মাথা ধুয়ে নিন। এতে চুল পড়া বন্ধ হবে, খুসকি দূর হ। চুলের উজ্জ্বলতা বাড়বে।

১০। পাতিলেবুর রস

বর্ষাকালে স্ক্যাল্প খুব তেলতেলে হয়ে যায়। তাতে খুসকি বাড়ে। সে ক্ষেত্রে পাতিলেবুর রস মাখলে সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

১১। কলপ নয়

এই সময় চুলে কালার করা ঠিক নয়। যতটা সম্ভব কসমেটিক প্রোডাক্ট থেকে দূরে থাকুন। এতে চুল ওঠার সম্ভাবনা বেশি থাকে।

অবশ্যই দেখুন উপকার পাবেন – চুলের যত্নে পেঁয়াজ রস কী ভাবে ব্যবহার করবেন? ৫টি টিপস

Continue Reading

জীবন যেমন

মুখের দুর্গন্ধ? দূর করার মোক্ষম ওষুধ বেকিং সোডার এই মিশ্রণ

bad-breath

খবরঅনলাইন ডেস্ক : অনেকেরই মুখে সাংঘাতিক গন্ধ থাকে। ফলে তারা হীনমন্যতায় ভোগে। লোকজনের সঙ্গে ঠিকভাবে মিশতেও ভয় পায়। এটি ভুক্তভোগীকে যেমন বিব্রত করে তেমন আত্মবিশ্বাস কমিয়ে দেওয়ার পক্ষেও যথেষ্ট। মুখে দুর্গন্ধ হয় অনেকগুলি কারণে। কোনোটি সাময়িক কোনোটি দীর্ঘস্থায়ী।

যেমন অনেকক্ষণ জল না খাওয়া, শুকনো মুখ, ভালো করে ব্রাশ না করা এবং পেঁয়াজ বা রসুন বেশি বা কাঁচা খাওয়া এই সব কারণে মুখে দুর্গন্ধ সৃষ্টি হয়। সমস্যার দ্রুত সমাধানও হয়। জল খেলে, ঠিকমতো দাঁত মাজলে এই গন্ধ চলে যায়। কিন্তু কিছু কারণ আছে যার জন্য গন্ধ যেতে চায় না। সেগুলি অভ্যন্তরীণ কারণ, যেমন মুখের ব্যাকটেরিয়া, টনসিলের সংক্রমণ, পাচনতন্ত্রের সমস্যার কারণে মুখে দুর্গন্ধ হতে পারে। আবার ধূমপানের জন্যও মুখ থেকে বদ গন্ধ ছাড়ে।

মুখের দুর্গন্ধে ভুগলে কী হবে সমাধান?

এর সমাধান আছে রান্নাঘরেই। এই সমস্যায় মোক্ষম বেকিং সোডা। দুর্গন্ধের প্রধান কারণ উচ্চ অ্যাসিড স্তরকে কমিয়ে দেয় বেকিং সোডা। বেকিং সোডা হল অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল, ফলে মুখের ব্যাকটেরিয়া মেরে ফেলে। আবার অ্যাসিড নয় বলে দাঁত, মাড়ি বা হাড়ের কোনো ক্ষতিও করে না।

কী ভাবে ব্যবহার করতে হবে?

বেকিং সোডা এবং টুথপেস্ট
টুথপেস্টের সঙ্গে আধ চা চামচ বেকিং সোডা মিশিয়ে তা ব্রাশে নিয়ে দাঁত ব্রাশ করুন। টানা এক সপ্তাহ ব্যবহার করলেই সুফল মিলবে।

বেকিং সোডা এবং জল

গরম জলে বেকিং সোডা গুলে একটি মাউথওয়াশ তৈরি করুন। জল হালকা ঠান্ডা হলে ৩০ সেকেন্ড থেকে এক মিনিট মুখে রেখে গার্গল করুন। এমন ভাবে কয়েক বার করতে পারলে ভালো হবে। টানা কয়েক দিন এই ভাবে গার্গল করলে খারাপ ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস হবে।

দাঁতে হলদে ছোপ পড়ছে? দূর করতে ১০টি ঘরোয়া উপায়

বেকিং এবং নুন

বেকিং সোডার মতো উপকার নুনেও। পিএইচ মাত্রা হ্রাস করে, অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল নুন। এক গ্লাস জলে ১ চা চামচ বেকিং সোডা, ১ চামচ নুন দিয়ে মিশ্রণ তৈরি করে নিয়মিত এক থেকে দুই মিনিট গার্গল করুন। দুর্গন্ধ দূর না হওয়া পর্যন্ত এটি করে যান।

এই সমস্যা সমাধানে পরের পর্বে থাকবে আরও কিছু টিপ।

পড়ুন – ডাক্তারের চেম্বার থেকে: মুখের দুর্গন্ধের সমস্যা

Continue Reading
Advertisement
দেশ13 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ৫২৫০৯, সুস্থ ৫১৭০৬

গাড়ি ও বাইক7 hours ago

পেট্রোলচালিত গাড়ি ‘এস-ক্রস’ বাজারে নিয়ে এল মারুতি সুজুকি

দেশ11 hours ago

রুপোর ইট দিয়ে রামমন্দিরের শিলান্যাস করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

রাজ্য2 days ago

লকডাউনের সূচি ফের বদলাল রাজ্যে

ক্রিকেট1 day ago

বিতর্কের মধ্যেই আইপিএলের সঙ্গত্যাগ করল চিনা সংস্থা ভিভো

দেশ3 days ago

কমল নতুন আক্রান্তের সংখ্যা, বাড়ল সুস্থতার হার, রোগীবৃদ্ধির হারও সর্বনিম্ন স্তরে

ক্রিকেট11 hours ago

আইপিএলের নিয়মাবলি: গুচ্ছের টেস্টিং, চলা-ফেরায় নিয়ন্ত্রণ, একটি দলের জন্য একটি হোটেল

ক্রিকেট14 hours ago

অঘটন! ৩২৯ তাড়া করে বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের হারাল আয়ারল্যান্ড

রবিবারের খবর অনলাইন

কেনাকাটা

things things
কেনাকাটা5 days ago

করোনা আতঙ্ক? ঘরে বাইরে এই ১০টি জিনিস আপনাকে সুবিধে দেবেই দেবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : করোনা পরিস্থিতিতে ঘরে এবং বাইরে নানাবিধ সাবধানতা অবলম্বন করতেই হচ্ছে। আগামী বেশ কয়েক মাস এই নিয়মই অব্যাহত...

কেনাকাটা1 week ago

মশার জ্বালায় জেরবার? এই ১৪টি যন্ত্র রুখে দিতে পারে মশাকে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: একে করোনা তায় আবার ডেঙ্গুর প্রকোপ শুরু হয়েছে। এই সময় প্রতি বারই মশার উৎপাত খুবই বাড়ে। এই বারেও...

rakhi rakhi
কেনাকাটা2 weeks ago

লকডাউন! রাখির দারুণ এই উপহারগুলি কিন্তু বাড়ি বসেই কিনতে পারেন

সামনেই রাখি। কিন্তু লকডাউনের মধ্যে মনের মতো উপহার কেনা একটা বড়ো ঝক্কি। কিন্তু সেই সমস্যা সমাধান করতে পারে অ্যামাজন। অ্যামাজনের...

কেনাকাটা2 weeks ago

অনলাইনে পড়াশুনা চলছে? ল্যাপটপ কিনবেন? দেখে নিন ৪০ হাজার টাকার নীচে ৬টি ল্যাপটপ

ইনটেল প্রসেসর সহ কোন ল্যাপটপ আপনার অনলাইন পড়াশুনার কাজে লাগবে জেনে নিন।

কেনাকাটা2 weeks ago

করোনা-কালে ঘরে রাখতে পারেন ডিজিটাল অক্সিমিটার, এই ১০টির মধ্যে থেকে একটি বেছে নিতে পারেন

শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা বুঝতে সাহায্য করে এই অক্সিমিটার।

কেনাকাটা3 weeks ago

লকডাউনে সামনেই রাখি, কোথা থেকে কিনবেন? অ্যামাজন দিচ্ছে দারুণ গিফট কম্বো অফার

খবরঅনলাইন ডেস্ক : সামনেই রাখি। কিন্তু লকডাউনের মধ্যে দোকানে গিয়ে রাখি, উপহার কেনা খুবই সমস্যার কথা। কিন্তু তা হলে উপায়...

laptop laptop
কেনাকাটা3 weeks ago

ল্যাপটপ কিনবেন? দেখে নিন ২৫ হাজার টাকার মধ্যে এই ৫টি ল্যাপটপ

খবরঅনলাইন ডেস্ক : কোভিভ ১৯ অতিমারির প্রকোপে বিশ্ব জুড়ে চলছে লকডাউন ও ওয়ার্ক ফ্রম হোম। অনেকেই অফিস থেকে ল্যাপটপ পেয়েছেন।...

কেনাকাটা3 weeks ago

হ্যান্ডওয়াশ কিনবেন? নামী ব্র্যান্ডগুলিতে ৩৮% ছাড় দিচ্ছে অ্যামাজন

খবরঅনলাইন ডেস্ক : করোনাভাইরাস বা কোভিড ১৯ এর সঙ্গে লড়াই এখনও জারি আছে। তাই অবশ্যই চাই মাস্ক, স্যানিটাইজার ও হ্যান্ডওয়াশ।...

কেনাকাটা4 weeks ago

ঘরের একঘেয়েমি আর ভালো লাগছে না? ঘরে বসেই ঘরের দেওয়ালকে বানান অন্য রকম

খবরঅনলাইন ডেস্ক : একে লকডাউন তার ওপর ঘরে থাকার একঘেয়েমি। মনটাকে বিষাদে ভরিয়ে দিচ্ছে। ঘরের রদবদল করুন। জিনিসপত্র এ-দিক থেকে...

কেনাকাটা4 weeks ago

বাচ্চার জন্য মাস্ক খুঁজছেন? এগুলোর মধ্যে একটা আপনার পছন্দ হবেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিউ নর্মালে মাস্ক পরাটাই দস্তুর। তা সে ছোটো হোক বা বড়ো। বিরক্ত লাগলেও বড়োরা নিজেরাই নিজেদেরকে বোঝায়।...

নজরে

Click To Expand