পুজো তো চলেই এল। বছরে নিয়ম করে  ত্বকের প্রতি সেভাবে খেয়াল না রাখলেও পুজোর আগে হঠাৎ করে মনে পড়ে রুপচর্চার প্রতি।

কারণ বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসব দুর্গাপুজো। আর উৎসবে নিজেকে সুন্দর দেখাতে কে না চায়।   তাই পার্লারে যাওয়া, এক্সারসাইজ ও সুষম আহার, ইত্যাদির প্রতি হঠাৎই ঝোঁক বেড়ে যায়।

সময় যখন হাতে খুবই কম। তখন আর সময় নষ্ট না করে চটপট জেনে নেওয়া যাক পুজোর আগে কীভাবে ত্ব্কের যত্ন নেবেন।

১। ওটমিল এবং মুলতানি মাটি

ত্বকের মরা কোষকে দূর করতে ওটমিলের কোনও তুলনা হয় না। অন্য দিকে মুলতানি মাটি ত্বকের অতিরিক্ত তেল দূর করে ত্বকের ভিতর থেকে ময়লা টেনে বের করে। ১ চামচ ওটমিল গুঁড়ো, ২ চামচ মুলতানি মাটি, ১  চামচ কাঁচা দুধ এবং শশার রস মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন।

এরপরে মুখে, গলায় ও ঘাড়ে ২০-২৫ মিনিট লাগিয়ে রেখে দিন। শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা জল দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। সপ্তাহে ২ দিন করলেই যথেষ্ট।

২। গাজর ও মধু

যদি ত্বকে কোনও উজ্জ্বলতা না থাকে সেক্ষেত্রে থাকে এই ফেসপ্যাকটি ব্যবহার করুন।

১ টি ছোট সাইজের গাজর কুরিয়ে নিয়ে তাতে ১ চামচ মধু মিশিয়ে নিন। এরপরে ওই পেস্টটি মুখে লাগিয়ে নিন। মিনিট ১৫ ফেসপ্যাকটি মুখে লাগিয়ে রাখুন। শুকিয়ে গেলে উষ্ণ জলে মুখ ধুয়ে নিন। সপ্তাহে ১ দিন নিয়মিত এই প্যাকটি ব্যবহার করুন।

৩। অ্যালোভেরা এবং গ্লিসারিন

১ চামচ অ্যালোভেরা জেলের মধ্যে ২-৩ ফোঁটা গ্লিসারিনের সঙ্গে মিশিয়ে মুখে লাগান।  ২০-২৫ মিনিট পরে জল দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। চটজলদি ত্বকে জেল্লা আনতে এই ফেসপ্যাকটির জুড়ি মেলা ভার। 

৪। পিচ এবং ব্র্যান্ডি

১ টি  পিচ চটকে নিন এবং তাতে ১ চামচ ব্র্যান্ডি মিশিয়ে নিন। এবারে ওই মিশ্রণটি  মুখে, গলায় এবং ঘাড়ে লাগিয়ে নিন। ১৫‐২০ মিনিট বাদে ঠান্ডা জলে মুখ ধুলেই দেখতে পাবেন ত্বক কত চকচক করছে।

৫। আমন্ড ও ডিম

৩-৪ টি আমন্ড গুঁড়ো করে তার মধ্যে একটা ডিম ফেটিয়ে ফেসপ্যাক তৈরি করে নিন। এরপরে ওই মিশ্রণটি মুখে লাগিয়ে অন্তত মিনিট ১৫-২০ রেখে দিতে হবে। পরে জল দিয়ে ধুয়ে নিন। ভালো ফল পেতে রাতে শোওয়ার আগে এই প্যাকটি লাগিয়ে সারা রাত রেখে পরদিন সকালে মুখ ধুয়ে নিন। সপ্তাহে ২ দিন নিয়ম করে এই ফেসপ্যাকটি ব্যবহার করুন।  

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন