Connect with us

জীবন যেমন

এখন অনভ্যস্তরা রান্নাঘরে, তাঁদের জন্য কয়েকটি জরুরি পরামর্শ

Published

on

kitchen

ওয়েবডেস্ক: শখের রাঁধুনি যাঁরা বা যাঁরা বাধ্য হয়ে রান্নাঘরে ঢুকছেন তাঁদের মধ্যে অনেকেই আছেন মোটেই রান্নাঘরের কাজে পোক্ত নন। কিন্তু লকডাউনের মধ্যে অবসর সময় কাটানোর জন্য বা উপায় না থাকার দরুণ রান্না করতে বাধ্য হচ্ছেন। তাঁদের জন্য রইল এই পরামর্শগুলি। এগুলো জেনে রাখা বা মাথায় রাখা খুবই জরুরি। কারণ খুব ছোটোখাটো কয়েকটি অসাবধানতা থেকেই ঘটে যায় বড়ো বিপদ। তাই নিজের সাবধানতা ও কাজের সুবিধার জন্য এই টিপস অবশ্যই মনে রাখবেন। তবে টিপস বলার আগে বলি, যে কোনো জায়গা গোছানো থাকলে সেখানে যে কোনো কাজই করতে সুবিধা হয়। জিনিসপত্র খুঁজে পেতে সুবিধা হয়। তাই রান্না শুরুর আগে তার জন্য প্রয়োজনীয় জিনিসগুলি চোখের সামনে সুন্দর ভাবে গুছিয়ে রাখলে রান্না করতে শুরু করার পর এটা কোথায় সেটা কোথায় করে কোনো রকম খোঁজাাখুঁজি করার ঝামেলায় পড়তে হবে না।

প্রথম কথা হল পরিকল্পনা।

আগে থেকে পরিকল্পনা করে সব কিছু হাতের কাছে গুছিয়ে রাখতে হবে। প্রয়োজন হলে আগে থেকে কুটে বেটেও রেডি করে রাখা যায়। তাতে ঠান্ডা মাথায় যেমন কাজটা করা যায়, তাতে কোনো কিছু বাদ পড়ে যাওয়ার ভয় থাকে না। তেমন একটানা কাজের ধকলও কমে।

দ্বিতীয় কথা হল আজকাল ফ্রিজে সব জিনিস গুছিয়ে রাখা থাকে।

কাঁচা সবজি হোক বা রান্না করা খাবার, বা রান্নার যে কোনো উপকরণ, যেগুলি ঠান্ডাই ব্যবহার করার নিয়ম সেগুলি ছাড়া বাকি যে কোনো উপকরণই কিন্তু ব্যবহারের আগে ফ্রিজ থেকে আধ ঘণ্টা বা এক ঘণ্টা আগে বের করে রেখে তা স্বাভাবিক তাপমাত্রায় আনা উচিত। তার পর ব্যবহার করুন। এতে গ্যাস খরচ বা বিদ্যুতের খরচ অনেকটা কমানো যায়।

তৃতীয় যে কথাটি বলা দরকার,

তা হল কাঁচা সবজি ফলমূল ইত্যাদি ধুয়ে ব্যবহার করার অভ্যাস। অনেকেই আছেন মুছে নিয়ে ফল খেয়ে ফেলেন। আবার অনেকেই আছেন আনাজ বা ফল কেটে নিয়ে ধোন। আবার কেউ আছেন আগে ধুয়ে নিয়ে তার পর কাটেন। এর মধ্যে ঠিক পদ্ধতি হল, আনাজ বা ফল যাবতীয় সব কিছু আগে ভালো করে ধুয়ে নিয়ে তার পর তার জল ভালো করে ঝরিয়ে নিয়ে তার পর কাটা উচিত।

চতুর্থ যে বিষয়টি মনে রাখতেই হবে,

শুধু আনাজপাতি ফলমূল ধুতে হবে তাই নয় ছুরি, বঁটি, কাঁচি বা যে কোনো কাটার যন্ত্র ব্যবহার করার আগে অবশ্যই তা ভালো করে ধুয়ে মুছে ব্যবহার করা উচিত।  

পঞ্চম, তবে মাছ মাংস বাজার থেকে এনে ফ্রিজে ঢোকানোর আগে

ভালো করে কেটে বেছে ধুয়ে নিন। ফ্রিজে রাখার আগে লক্ষ করতে হবে তা যেন এয়ারটাইট বক্সে করে রাখা হয়। কারণ তা না হলে তার থেকে গন্ধ বেরোবে, তার ফলে ফ্রিজের ভেতরে গন্ধ ভরে যাবে। ডিমের ক্ষেত্রে বলে রাখা ভালো, সেদ্ধ করা বা ব্যবহার করার করার আগে কাঁচা ডিম ভালো করে ধুয়ে নিলে ভালো হয়। কারণ খোলা বাজার বা সাধারণ দোকান থেকে আনা আনপ্যাকড ডিমের গায়ে অনেক সময়ই নোংরা লেগে থাকে।

ষষ্ঠে, এর পরই মনে প্রশ্ন আসবে তা হলে মাছ মাংস বা ডিম ইত্যাদির ক্ষেত্রে কী করা উচিত?

সে ক্ষেত্রেও তাই। মাছ মাংস বা ডিম কাটা বা ব্যবহারের আগে বের করে তা স্বাভাবিক তাপমাত্রায় এনে তার পর ব্যবহার করতে হবে। তা না হলে গরম তেলের মধ্যে দিলে তার থেকে বেরোনো জল তেলে পড়ে তেল ছিটকে এসে বিপদ ঘটাবে।

সপ্তম, এ বার আসা যাক গরম তেলে কোনো কিছু ছাড়ার পদ্ধতিতে।

তেলের কড়ায় ফোড়নই হোক বা মাছ, মাংস অথবা সবজি যা-ই হোক, খুব বেশি দূর থেকে ছাড়তে নেই। বেশি উঁচু থেকে ছাড়লে তেল ছিটকে এসে বিপদ ঘটাবে। তবে কাছ থেকে ছাড়ার সাহস না থাকলে একটি লম্বা হাতলের খুন্তি বা হাতা করে তেলে উপকরণ ছাড়তে পারা যায়। তাতে দূরত্বও বজায় থাকে এবং তেল ছেটকানোরও ভয় থাকে না।

এই ভাবে টোস্ট বানিয়ে কখনও খেয়েছেন? না খেলে অবশ্যই বানান

অষ্টম, এতক্ষণ কথা হচ্ছিল রান্না শুরুর আগের প্রস্তুতি নিয়ে। এ বার রান্নার পরের কথায় আসা যাক।

ভাতের ফ্যান গালার সময় অন্য কোনো দিকে মন দেওয়া যাবে না। খুব সচেতন ভাবে ও সাবধানে ধৈর্য ধরে ফ্যান গালাতে হবে। একটু এ-দিক ও-দিক হলেই কিন্তু প্রথমে হাতে ছ্যাঁকা লাগার ভয় তার পর তো হাতে ফ্যান পড়ে পুড়ে যাওয়ার ভয় পরে। তাই মোটেই অন্যমনস্ক নয়, রান্নার যে কোনো কাজই করতে হবে খুব মনোযোগ দিয়ে।

নবম, অনেকেই আছেন রান্নার পর কড়াই ভালো করে চেঁছে তোলেন না।

তলানি অংশ ফেলে দেন। কিন্তু তা করবেন না। তাতে অনেকটা স্বাদ নষ্ট হয়। তাই রান্নার শেষে কড়াই ভালো করে চেঁছে মুছে পদের মধ্যে মেশান। কারণ তা না করলে ও-তে অনেকটা মশলা নষ্ট হয়, যা স্বাদের জন্যই দেওয়া হয়েছিল।  

দশম, বাসন মাজার সময় খুব কম ক্ষারযুক্ত হালকা ধরনের ডিশ ওয়াশার ব্যবহার করা ভালো।

সঙ্গে মাজার স্ক্রাবারটিও যেন ভালো হয়। তা না হলে অতিরিক্ত ঘষে মাজতে গেলে হাতের দফারফা। সঙ্গে অনভ্যাসের কারণে হাতে কাঁধে ঘাড়ে পিঠে ব্যথাও হবে। তেমন হলে বাসন মাজার সময় গ্লাভসও পরে নেওয়া যায়। তাতে হাত নোংরা হবে না। বাসন মাজার কাজ শেষ করে ভালো করে হ্যান্ডওয়াশ দিয়ে হাত আঙুল নখের কোণ ভালো করে পরিষ্কার করে নিতে হবে। অবশ্যই ক্রিম বা ময়েশ্চরাইজার লাগিয়ে নিতে হবে।

একাদশ, আজকাল পরিস্থিতির কারণে স্যানিটাইজারের ব্যবহার খুবই বেড়েছে। কিন্তু তাই বলে রান্না করতে যাওয়ার আগে স্যানিটাইজার হাতে লাগিয়ে আগুনের কাছে মোটেই যাওয়া যাবে না। কারণ তাতে থাকে অ্যালকোহল। তা দাহ্য, ফলে আগুন ধরে যাওয়ার ভয় থাকে। তাই রান্নাঘরের কোনো কিছুকে জীবাণুমুক্ত করতে হবে মনে হলে খানিকটা গরম জল করে তাতে যে কোনো ওয়াশিং পাউডার ফেলে তাতে কাপড় চুবিয়ে তা দিয়ে পরিষ্কার করে তার পর স্বাভাবিক জলে ভালো করে মুছে নেওয়া যায়। তাতে ব্যকটেরিয়া বা জীবাণু বা ভাইরাস সবই দূর হবে। তবে স্যানিটাইজার নৈব নৈব চ।

দ্বাদশ, সব সাবধানতার পর একটি প্রতিকার।

যদি কোনো ভাবে শরীরের কোনো অংশ ছ্যাঁকা লেগে বা গরম তেলে বা গরম জলে পুড়ে যায় তা হলে কী করবেন? ভুল করেও জায়গাটা ঢলবেন না বা ঘষবেন না। সেই জায়গায় সঙ্গে সঙ্গে ফ্রিজে ঠান্ডা দুধ থাকলে তা লাগান। অথবা ঠান্ডা জল ঢালুন । এর পর জ্বালা কমলে বার্নল জাতীয় পোড়ার মলম লাগানো যায়। তবে বেশি সমস্যা হলে চিকিৎসকের পরামর্শ অবশ্যই নিতে হবে।

দেখুন – কিচেন গার্ডেন করতে চান? রইল টিপস

Advertisement
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

জীবন যেমন

মেকআপ করে কী ভাবে ঢাকবেন ডবল চিন?

Published

on

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ডবল চিনের সমস্যায় অনেকেই ভোগেন। তাঁদের এই সমস্যা থেকে মুক্তি দেওয়ার জন্য নিয়মিত ব্যায়াম ও সঠিক খাদ্যাভ্যাস যেমন উপযুক্ত দিশা, তেমনই আরও একটি চটজলদি ও সাময়িক উপায় হল মেকআপ। ডবল চিনের সমস্যায় যে ব্যায়ামগুলি করলে দীর্ঘস্থায়ী সমাধান বেরোবে তেমন কয়েকটির কথা আগেই আলোচনা হয়েছে। এই পর্বে মেকআপ।

ব্যায়াম করে যত দিন সময় লাগবে ডবল চিন কমাতে তার মাঝেও তো সমস্যা হতে পারে। তাই এই মাঝের সময়টুকুর জন্য মেকআপের টিপগুলি কাজে লাগানো যেতে পারে।

মেকআপ পদ্ধতি

১। বেস

মুখটা ভালো করে পরিষ্কার করে নিন। তার পর বেস মেকআপ করুন। বেস মেকআপ নিখুঁত হলে গোটা মেকআপটাই খুব সুন্দর হবে।

২। ফাউন্ডেশন ও ব্রোঞ্জার

ফাউন্ডেশন এবং ব্রোঞ্জার বাছার ক্ষেত্রে ত্বকের স্বাভাবিক রঙের চেয়ে দু’ শেড গাঢ় নিতে হবে। ফর্সা হলে গোলাপি ঘেঁষা, মাঝারি বা চাপা গায়ের রং হলে একটু সোনালি ঘেঁষা ব্রোঞ্জার নিন।

৩। গাল ও চিবুক কাটা

চিবুকে ফাউন্ডেশন লাগানো হয়ে গেলে অল্প একটু ব্রোঞ্জার আঙুলে নিয়ে চোয়ালের হাড় বরাবর লাগান। এর পর হালকা হাতে ছোটো স্ট্রোকে তা গালের সঙ্গে মিশিয়ে দিন।

৪। ব্লেন্ড

মেকআপ করলেই হল না। তা ভালো করে ব্লেন্ড করতে হবে। স্পঞ্জ দিয়ে ভালো ভাবে ব্লেন্ড করুন।

৫। গলায়

চোয়ালের হাড়ের নীচে চিবুকের নরম অংশেও ব্রোঞ্জার লাগান তাতে গলা ও চিবুক এক রকম লাগবে।

৬। পাউডার

ট্রান্সলুসেন্ট পাউডার দিয়ে মেকআপ সেট করে নিন।

৭। ঠোঁট

ঠোঁটের মেকআপও জরুরি। গাঢ় রঙের লিপস্টিকও চেহারা একদম বদলে দেয়। তাই লোকের নজর ঘোরাতে চকচকে লিপ গ্লস, গাঢ় লাল, গাঢ় খয়েরি শেডের লিপস্টিক লাগান। ঠোঁটের দিকে নজর গেলে চিবুকে আর নজর ঘুরবে না।

৮। গাল ও চোখ

গাল আর চোখের মেকআপও জরুরি। চোখে হালকা রঙের আইশ্যাডো ও আইলাইনার লাগান। গালের উপরের দিকে ছোটো ছোটো টানে ব্লাশার লাগান। চিবুকে নজর যাবে না।

৯। চুলের স্টাইল

হেয়ারস্টাইলের ব্যাপারেও সচেতন হতে হবে। চিবুকের ঠিক নীচে বা ঘাড় পর্যন্ত লম্বা চুলের কোনো রকম স্টাইল না করাই ভালো। বরং চিবুকের দিকটা বেশি নজরে পড়বে না এমন হেয়ারস্টাইল করুন। এ ক্ষেত্রে সাইডে কোনো হেয়ার স্টাইল করা যেতে পারে।

আরও – ডবল চিনের সমস্যা? ম্যাজিকের মতো কাজ করবে এই ৬টি ব্যায়াম

পড়ুন – ত্বকের জেল্লা ফেরাতে ১০টি ঘরোয়া টোটকা

Continue Reading

কেনাকাটা

সংসারের খুঁটিনাটি সমস্যা থেকে মুক্তি দিতে এই জিনিসগুলির তুলনা নেই

Published

on

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিজের ও ঘরের প্রয়োজনে এমন অনেক কিছুই থাকে যেগুলি না থাকলে প্রতি দিনের জীবনে বেশ কিছু সমস্যার মুখোমুখি হতে হয়। কিন্তু থাকলে অনেক কিছুর সহজ সমাধান যেমন হয়, ঝক্কিও কমে যায়। তেমনই কয়েকটি জরুরি জিনিসের খবরাখবর রইল এখানে অ্যামাজন থেকে।

প্রতিবেদনটি লেখার সময় যে দাম ছিল তাই দেওয়া হল।

১। ইলেকট্রনিক লিন্ট রিমুভার, উলের জামা কাপড় থেকে ববলিন দূর করার সহজ উপায়। দাম ৩৯৯ টাকা।

কিনতে হলে ক্লিক করুন

২। রিইউজেবল ফুড র‍্যাপার্স। প্লাস্টিক বা অ্যালুমিনিয়াম ফয়েলের মতো ব্যবহার কিন্তু একাধিক বার ব্যবহার করা যাবে। ৩টির সেট। দাম ৪৯৯ টাকা।

কিনতে হলে ক্লিক করুন

৩। ব্লু লাইট ব্লকিং গ্লাস, কম্পিউটারের সামনে বসে দীর্ঘক্ষণ কাজ করলে এটি চোখের জন্য খুবই ভালো। দাম ৬৯৯ টাকা।

কিনতে হলে ক্লিক করুন

https://www.amazon.in/dp/B078SR63MR/ref=as_li_ss_tl?&ascsub&linkCode=ll1&tag=khaboronline-21&linkId=e8b17f04f660e35ad16d647d21818a50&language=en_IN

৪। কেবিল ক্লিপস, বিভিন্ন জায়গায় তারের জটাজাল থেকে মুক্তি পেতে, ও বার বার তার পরে যাওয়ার হাত থেকে মুক্তি পেতে খুবই ভালো উপায়। ১০টির সেট। কম্পিউটার, টিভি, গাড়ি, টেবিল ইত্যাদিতে কাজে লাগানো যাবে। দাম ৩৫৯ টাকা।

কিনতে হলে ক্লিক করুন

৫। স্লিম জেল, পুনঃব্যবহারযোগ্য, কি বোর্ড, ল্যাপটপ, কার অ্যাকসেসরিস, ইলেকট্রনিক প্রোডাক্ট, রিমোর্ট ইত্যাদির গলি ঘুপচি থেকে ধুলো বের করে পরিষ্কার করার জন্য খুবই ভালো। দাম ২১০ টাকা।

কিনতে হলে ক্লিক করুন

আরও – রান্নাঘরের জনপ্রিয় কয়েকটি জরুরি সামগ্রী, আপনার কাছেও আছে তো?

Continue Reading

জীবন যেমন

মাত্র কয়েক বারেই চুল সিল্কি করার দারুণ ৬টি ঘরোয়া উপায়

Published

on

খবরঅনলাইন ডেস্ক: বিশ্বকর্মাপুজো, মহালয়া সবই হয়ে গেল। সামনেই পুজো। আর মাত্র ৩৫ দিন। এর মধ্যেই ঘরদোর পরিষ্কার, জিনিসপত্র কিনে, নিজের পরিচর্যা করে ঝকঝকে করে তোলা কত কাজ। এর মধ্যে আবার করোনার জন্য সচেতনতা ও সতর্কতাবিধি মেনে চলা। আবার পার্লার যাওয়া নিয়েও মনে আতঙ্ক। পুজোর আগে করোনা হলে আর রক্ষে নেই। কী যে করা যায়? তাই ভাবছেন তো! এর মধ্যে চুলের হাল বেশ খারাপ। এক্কেবারে ম্যাড়ম্যাড় করছে। একদিন না হয় নাক কান চোখ ঢেকে ছাঁট দিয়ে আসাই যায়। কিন্তু চুল মসৃণ ঝকঝকে করার জন্য তো বার বার পার্লার যাওয়াটা ঠিক হবে না। তাই পরামর্শ হল ঘরে বসেই চুলকে নজর কাড়া করে তুলুন মাত্র কয়েকটা দিনেই।

কিছু ঘরোয়া উপায়

১। তেল

সপ্তাহে মাত্র ২ থেকে ৩ দিন রাতে যদি মাথায় ভালো করে তেল মেখে শোওয়া যায় এবং পরের দিন সকালে ভালো করে শ্যাম্পু করে নেওয়া যায় তা হলে মাত্র কয়েক দিনেই চুল ঝলমলে আর সিল্কি হয়ে উঠবে।

২। গরম তেল

চুলের পুষ্টি জোগাতে তেল তো অবশ্যই উপকারী। গরম তেল আবার আরও ভালো।  চুলের রুক্ষতা দূর করতে ও চুলকে উজ্জ্বল করতে। এ ক্ষেত্রে ২ টেবিল চামচ বাদাম তেল, অলিভ অয়েল, জোজোবা অয়েল গরম করে নিন। এই তেলগুলি না থাকলে নারকেল তেলও নেওয়া যায়। তেল হালকা গরম হলে তা মাথায় চুলের গোড়ায় গোড়ায় ভালো করে ম্যাসাজ করুন। লম্বা চুলেও বেশ টেনে টেনে তেল লাগান। এর পর গরম জলে ভেজানো তোয়ালে দিয়ে মাথা মুড়ে রাখুন। ২০ মিনিট পর শ্যাম্পু করুন।

৩। অ্যালোভেরার প্যাক

চুল পরিচর্যায় অ্যালোভেরা দারুণ কাজ দেয়। অ্যালোভেরার ভেতরের জেলটা ৪ টেবিল চামচ, টক দই (বাড়িতে পাতা হলে ভালো হয়) ৩ টেবিল চামচ, মাথায় মাখার যে কোনো তেল ২ টেবিল চামচ নিয়ে ভালো করে মেশান। পেস্টটি মাথায় আধ ঘণ্টা লাগিয়ে রাখুন। তার পর শ্যাম্পু করে নিন। চুল খুব দ্রুত ঝলমলে সিল্কি হবে।

৪। মধু আর ভেজিটেবল অয়েল

চুলের জন্য মধু প্রাকৃতিক ময়েশ্চারাইজার। মধু ও ভেজিটেবল অয়েলের মিশ্রণ চুলে পুষ্টি জোগায়। ২ টেবিল চামচ মধু, ২ টেবিল চামচ ভেজিটেবল অয়েল মিশিয়ে চুলে লাগান। ২০ মিনিট পর শ্যাম্পু করে ধুয়ে ফেলুন।

৫। ডিম এবং দইয়ের প্যাক

চুলকে সিল্কি করতে বাড়িতে পাতা দই ও ডিমের প্যাক খুব ভালো। ২টি ডিমের সাদা, ২ টেবিল চামচ টকদই মিশিয়ে ঘন পেস্ট তৈরি করে লাগান। ২০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন। উপাদানগুলির প্রোটিন চুলকে গোড়া থেকে মজবুত ও ঝলমল করে।

৬। ডিমের সাদা অংশ 

চুলের রুক্ষতা কাটাতে ১টি ডিমের সাদা অংশ, ৩ টেবিল চামচ জল মিশিয়ে একটি প্যাক তৈরি করুন। প্যাকটি চুলে লাগিয়ে ৩০ মিনিট রাখুন। শুকিয়ে গেলে ভালো করে শ্যাম্পু করুন। শ্যাম্পুর পর চুলে কন্ডিশনার লাগান।

দেখুন – ত্বকের উজ্জ্বলতা ফেরাতে চান? এই মরসুমে লাগান আনারসের এই ফেসমাস্ক ২টি

আরও – ত্বকের জেল্লা ফেরাতে ১০টি ঘরোয়া টোটকা

Continue Reading
Advertisement
bangladesh foreign minister
বাংলাদেশ4 mins ago

সৌদিতে অবস্থানরত রোহিঙ্গাদের পাসপোর্ট দিতে বাংলাদেশকে চাপ

ক্রিকেট13 mins ago

বুমরাহ-বোল্টের দাপটে বিধ্বস্ত কেকেআর, লজ্জার হার দিয়ে আইপিএল যাত্রা শুরু

দেশ2 hours ago

বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক মজবুত গাঁথুনির উপরে দাঁড়িয়ে, বললেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান

রাজ্য4 hours ago

দৈনিক সংক্রমণ, মৃতের সংখ্যা প্রায় অপরিবর্তিত, সার্বিক ভাবে আশাপ্রদ রাজ্যের করোনা-পরিস্থিতি

কলকাতা4 hours ago

কলকাতার সিংহভাগ অভিভাবক চাইছেন না এখনই স্কুল খুলুক: অনলাইন সমীক্ষা

Currency
রাজ্য5 hours ago

রাজ্য সরকারি কর্মীদের বকেয়া ডিএ মেটাতে ফের সময়সীমা বেঁধে দিল স্যাট

LPG
দেশ6 hours ago

বিনামূল্যে এলপিজি সিলিন্ডার খুঁজছেন? মাত্র এক সপ্তাহ বাকি! প্রধানমন্ত্রী উজ্জ্বলা যোজনার আওতায় কী ভাবে পাবেন, জেনে নিন

দঃ ২৪ পরগনা6 hours ago

সুন্দরবনে ম্যানগ্রোভ রোপণে এ বার পরিবেশ-বান্ধব ‘জিও-জুট’ পদ্ধতি

কেনাকাটা

কেনাকাটা1 day ago

মহিলাদের পোশাকের পুজোর ১০টি কালেকশন, দাম ৮০০ টাকার মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : পুজো তো এসে গেল। অন্যান্য বছরের মতো না হলেও পুজো তো পুজোই। তাই কিছু হলেও তো নতুন...

কেনাকাটা4 days ago

সংসারের খুঁটিনাটি সমস্যা থেকে মুক্তি দিতে এই জিনিসগুলির তুলনা নেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিজের ও ঘরের প্রয়োজনে এমন অনেক কিছুই থাকে যেগুলি না থাকলে প্রতি দিনের জীবনে বেশ কিছু সমস্যার...

কেনাকাটা1 week ago

ঘরের জায়গা বাঁচাতে চান? এই জিনিসগুলি খুবই কাজে লাগবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : ঘরের মধ্যে অল্প জায়গায় সব জিনিস অগোছালো হয়ে থাকে। এই নিয়ে বারে বারেই নিজেদের মধ্যে ঝগড়া লেগে...

কেনাকাটা2 weeks ago

রান্নাঘরের জনপ্রিয় কয়েকটি জরুরি সামগ্রী, আপনার কাছেও আছে তো?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রান্নাঘরের এমন কিছু সামগ্রী আছে যেগুলি থাকলে কাজ করাও যেমন সহজ হয়ে যায়, তেমন সময়ও অনেক কম খরচ...

কেনাকাটা2 weeks ago

ওজন কমাতে ও রোগ প্রতিরোধশক্তি বাড়াতে গ্রিন টি

খবরঅনলাইন ডেস্ক : ওজন কমাতে, ত্বকের জেল্লা বাড়াতে ও করোনা আবহে যেটি সব থেকে বেশি দরকার সেই রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা...

কেনাকাটা2 weeks ago

ইউটিউব চ্যানেল করবেন? এই ৮টি সামগ্রী খুবই কাজের

বহু মানুষকে স্বাবলম্বী করতে ইউটিউব খুব বড়ো একটি প্ল্যাটফর্ম।

কেনাকাটা4 weeks ago

ঘর সাজানোর ও ব্যবহারের জন্য সেরামিকের ১৯টি দারুণ আইটেম, দাম সাধ্যের মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ঘর সাজাতে কার না ভালো লাগে। কিন্তু তার জন্য বাড়ির বাইরে বেরিয়ে এ দোকান সে দোকান ঘুরে উপযুক্ত...

কেনাকাটা1 month ago

শোওয়ার ঘরকে আরও আরামদায়ক করবে এই ৮টি সামগ্রী

খবর অনলাইন ডেস্ক : সারা দিনের কাজের পরে ঘুমের জায়গাটা পরিপাটি হলে সকল ক্লান্তি দূর হয়ে যায়। সুন্দর মনোরম পরিবেশে...

kitchen kitchen
কেনাকাটা1 month ago

রান্নাঘরের এই ৮টি জিনিস কাজ অনেক সহজ করে দেবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আজকাল রান্নাঘরের প্রত্যেকটি কাজ সহজ করার জন্য অনেক উন্নত ব্যবস্থা এসে গিয়েছে। তা হলে ঘণ্টার পর ঘণ্টা কষ্ট...

care care
কেনাকাটা1 month ago

চুল ও ত্বকের বিশেষ যত্নের জন্য ১০০০ টাকার মধ্যে এই জিনিসগুলি ঘরে রাখা খুবই ভালো

খবরঅনলাইন ডেস্ক : পার্লার গিয়ে ত্বকের যত্ন নেওয়ার সময় অনেকেরই নেই। সেই ক্ষেত্রে বাড়িতে ঘরোয়া পদ্ধতি অনেকেই অবলম্বন করেন। বাড়িতে...

নজরে