জেনে নিন কি করবেন

ওয়েবডেস্ক: শীতকাল এলেই ঠোঁট ফাটা নিয়ে অনেককেই নাজেহাল হতে হয়। শীতকাল আসলেই সারাক্ষণ ঠোঁটটা শুকনো হতে থাকে। বারবার লিপবাম ব্যবহার করতে হয়।

এগুলি আমাদের ঠোঁটকে সাময়িক স্বস্তি দেয় ঠিকই। কিন্তু স্থায়ী স্বস্তি দেয় না। অথচ শীতকালের এই শুষ্ক ঠোঁটের সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়ার বহু উপায় বাড়িতেই রয়েছে। চলুন আর দেরি না করে না করে জেনে নিই।

১. দিনে একবার করে স্ক্রাব করুন

অনেকেরই নখ দিয়ে বা দাঁত দিয়ে ঠোঁটের শুকনো চামড়া তোলার অভ্যেস আছে। এই ব্যাপারটি একেবারে বাদ দিতে হবে। কারণ এতে ঠোঁটের আরো বেশি ক্ষতি হয়। এ ক্ষেত্রে দিনে অন্তত একবার করে আপনার ঠোঁট দু’টিকে স্ক্রাব করুন।

উপকরণ

১-২ চামচ চিনি ও ১-২ চামচ মধু।

পদ্ধতি

দু’টি উপকরণ সমানভাবে মিশিয়ে হালকা করে এই মিশ্রণটি দিয়ে ঠোঁট দু’টিকে স্ক্রাব করুন। এতে আপনার ঠোঁটের শুকনো চামড়া, ডেড স্কিনগুলি পরিষ্কার হয়ে যাবে। এর পর ঠোঁট দু’টি ধুয়ে লিপবাম লাগিয়ে নিন। এতে কখনোই আপনার ঠোঁট ড্রাই হবে না এবং ফেটেও যাবে না।

২. বারবার ঠোঁট চাটা বন্ধ করুন

শীতকাল মানেই ঠোঁট বারবার শুকিয়ে যায়। আর সেই ঠোঁট শুকিয়ে যাওয়ার অস্বস্তি থেকে বাঁচতেই ঠোঁট দু’টি বারবার চাটতে শুরু করেন। তাই যতই আপনার অস্বস্তি হোক না কেন এই স্বভাবটি কিন্তু পাল্টাতেই হবে। এ ক্ষেত্রে আপনি ব্যাগে লিপবাম বা পেট্রোলিয়াম জেলি রাখতেই পারেন।

৩. শশা

শশা আমাদের ত্বকের জন্য কতটা উপকারী তা আর নতুন করে বলার দরকার নেই। শীতের হাত থেকে নিজের ঠোঁটকে রক্ষা করার জন্যও কিন্তু আপনি নির্দ্বিধায় এই উপাদান ব্যবহার করতেই পারেন।

উপকরণ

কয়েক টুকরো শশা।

পদ্ধতি

শশার খোসা ছাড়িয়ে কয়েক টুকরো নিয়ে মিক্সিতে বেটে জুস বের করে নিন। এ বার তা ২-৩ বার তুলোয় ভিজিয়ে ঠোঁটে লাগান। ৫ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন। এতে কিন্তু আপনার ঠোঁটের পাতলা চামড়া সুরক্ষিত থাকবে।

আরও পড়ুন: এ বারের শীতে মধু ও ডিমের ছোঁয়ায় শুষ্ক ত্বককে করে তুলুন মধুময়

৪. নারকেল তেল

নারকেল তেল হলও সব থেকে সহজ উপায় যার দ্বারা সহজেই  রুক্ষ ঠোঁটকে ফাটার হাত থেকে রক্ষা করতে পারি। যদি আপনার ঠোঁট ফেটে গিয়েও থাকে তা হলেও কিন্তু নারকেল তেল তা সারিয়ে তুলতে বিশেষ সাহায্য করবে।

উপকরণ

১-২ চামচ নারকেল তেল ও ১-২ চামচ মধু।

পদ্ধতি

দু’টি উপকরণ ভালো করে মিশিয় নিন। এই মিশ্রণ দিনে ২-৩ বার ঠোঁটে লগিয়ে রাখুন ১০ মিনিট। পরে তা ধুয়ে ফেলুন। এতে ঠোঁটের নমনীয়তা বজায় থাকবে এবং রুক্ষতা দূর হবে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here