Connect with us

সাজপোশাক

নখ যখন ক্যানভাস, কিছু পরামর্শ

Published

on

nail

ওয়েবডেস্ক: পুজো এসে যাচ্ছে। শরীর ত্বক চুল নখ – এই সবের জন্য বিশেষ যত্ন নেওয়ার সময়ও এসে গিয়েছে। প্রত্যেকেই নিজের নিজের মতো করে নিজেকে সাজিয়ে তুলতে, আকর্ষণীয় করে তুলতে পছন্দ করে। ঠিক সেই আকর্ষণের অন্যতম একটি বিষয় হল সুন্দর নখ। তা সে হাত হোক বা পায়ের নখ। তাকে সুন্দর সুস্থ্য ও নজরকাড়া করে তুলতে হলে নিতে হবে বিশেষ যত্ন।

যত্নের কথাতেই মনে হবে তার জন্য মেনিকিওর পেডিকিওর তো রয়েছেই। তা হলে আর বেশি কী চাই। বেশি তো অবশ্যই চাই। কারণ নখকে সাজাতে হলেই চাই নখের রং। তবে আজকাল নখের রঙ অর্থাৎ নেলপলিশেই কিন্তু থেমে নেই। অনেকেই নেল আর্ট বা নখের ওপর কারুকাজ করতে বেশ পছন্দ করে।

আজ রইল তেমনই কয়েকটি নেল আর্টের পদ্ধতি নিয়ে আলোচনা।

এক রঙা নেলপলিশ

শুরু থেকেই চলে আসছে এক রঙা নেলপলিশ পরার রেওয়াজ। নখ ছোটো বা বড়ো, গোল বা চৌকো যেমনই হোক, নেল কালার দিয়ে ভরিয়ে দিলে দেখতে সুন্দর লাগে।

একের মাঝে অন্য রঙ

এখন একটা ট্রেন্ড উঠেছে আঙুলের চারটিতে এক রঙ মাত্র একটিতে আলাদা রঙ। অর্থাৎ দুই রঙের নেলপলিশ।

দুইয়ের অধিক রঙ

আবার কেউ কেউ পাঁচ আঙুলে তিন বা তার থেকে বেশি রঙ ব্যবহার করতে পছন্দ করেন পোশাকের সঙ্গে মিলিয়ে।

এই বারে আসা যাক বিশেষ ধরনের নেল আর্টের কথায় –

স্পাঞ্জ ববিং

নখের ওপরে করা যায় অ্যাক্রোম্যাটিক ডিজাইন। তার জন্য সব থেকে সহজ পদ্ধতি হল স্পাঞ্জ ববিং। এর জন্য প্রথমে একটি বেস কালার লাগিয়ে নিতে হবে। তার পর একটি স্পঞ্জের ওপর নিজের পছন্দমতো রঙ লাগিয়ে নখের ওপর চেপে ধরতে হয়। নখের খানিকটা বা পুরো নখই এই ভাবে ডিজাইন করা যায়।

স্টেনসিল মেথড

এখানেও বেস রঙ দরকার। বেস রঙের একটি ড্রাই কোট লাগিয়ে নিতে হবে। তার পর ব্যবহার করতে হয় স্টেনসিল। তার ওপর পছন্দের রঙের নেলপলিশ লাগাতে হয়। এই রঙ শুকিয়ে গেলে স্টেনসিল তুলে ফেলতে হয়।

ব্রাশ পেন্টিং

খুব সরু মুখওয়ালা নানান ধরনের ব্রাশ ব্যবহার করে এই পেন্টিং করা যায়। তার জন্য একটি বেস কালার লাগিয়ে নিতে হয়। তার পর বিভিন্ন প্যাটার্ন বা ডিজাইন যেমন খুশি বানানো যায়।

টেপিং

এতে টেপ ব্যবহার করে বিভিন্ন রং দিয়ে ডিজাইন বানাতে হয়। এতে নানান ধরনের জ্যামিতিক আকারের ডিজাইন ভালো হয়। এ ক্ষেত্রেও বেস কালার আগে করে নিতে হয়।

এয়ার ব্রাশ নেল আর্ট

এই বিষয়টি মূলত স্টেনসিল ব্যবহারের পর, ফিনিশিং ভালো করার জন্য ব্যবহার করা হয়। এটি একটি এয়ার ব্রাশ মেশিনের সাহায্যে করা হয়।  

ওয়াটার মার্বেল

এটি হয় জলের ওপর ভেসে থাকা রঙের ওপর পছন্দের মন গড়া ডিজাইন করে। বিষয়টা হল প্রথমে জলের ওপর নেলপলিশ ফেলতে হবে। তার ওপর পর পর আরও বেশ কয়েকটি রঙ দিতে হবে। তার পর একটি সরু মুখের কাঠি দিয়ে নেড়ে ঘেঁটে ডিজাইন বানাতে হবে। তার পর আঙুল ডুবিয়ে নখের ওপর ওই রঙের ডিজাইনটি তুলে আনতে হবে। ঠিক ভাবে নখের ওপর জলের নকশা উঠে আসার পর তার ওপর আবার ন্যাচারাল কালার নেলপলিশের কোটিং করতে হবে।

ডিজি আর্ট

nail

ক্যামেরার ছবি স্ক্যান করেও নখের ওপর ডিজাইন করা যায়। এতে করে মানুষের মুখের ছবি থেকে পৃথিবীর যে কোনো কিছুর ছবিই নখের ওপর আঁকা যায়।

স্টিকার ট্যাটু

নখের ওপর বেস কালার কোটিং করে তার ওপর স্টিকার, গ্লিটার ইত্যাদি দিয়ে নখ সাজানো যায়। তবে এ ক্ষেত্রে ধৈর্য্য বেশি লাগে।

কৃত্রিম নখের সৌন্দর্য্য

দেখতে পারেন – বর্ষায় চুল পড়ার হাত থেকে বাঁচতে ৫টি সহজ ঘরোয়া টিপস

নিজের নখে সন্তুষ্ট না হলে ব্যবহার করা যায় বাজার চলতি কৃত্রিম নখ। তাকে সাজিয়ে নিজের পছন্দের মতো করে নিজের নখের সঙ্গে সেট করে নিলেই হয়ে যাবে নেল আর্ট।

তা হলে পুজোর আগে এই নেল আর্টের পদ্ধতিগুলি ট্রাই করে দেখো। কোনটি বেশি ভালো লাগছে। সেইমতোই পুজোর সাজের জন্য প্রস্তুত করো নিজেকে।

জীবন যেমন

মেকআপ করে কী ভাবে ঢাকবেন ডবল চিন?

Published

on

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ডবল চিনের সমস্যায় অনেকেই ভোগেন। তাঁদের এই সমস্যা থেকে মুক্তি দেওয়ার জন্য নিয়মিত ব্যায়াম ও সঠিক খাদ্যাভ্যাস যেমন উপযুক্ত দিশা, তেমনই আরও একটি চটজলদি ও সাময়িক উপায় হল মেকআপ। ডবল চিনের সমস্যায় যে ব্যায়ামগুলি করলে দীর্ঘস্থায়ী সমাধান বেরোবে তেমন কয়েকটির কথা আগেই আলোচনা হয়েছে। এই পর্বে মেকআপ।

ব্যায়াম করে যত দিন সময় লাগবে ডবল চিন কমাতে তার মাঝেও তো সমস্যা হতে পারে। তাই এই মাঝের সময়টুকুর জন্য মেকআপের টিপগুলি কাজে লাগানো যেতে পারে।

মেকআপ পদ্ধতি

১। বেস

মুখটা ভালো করে পরিষ্কার করে নিন। তার পর বেস মেকআপ করুন। বেস মেকআপ নিখুঁত হলে গোটা মেকআপটাই খুব সুন্দর হবে।

২। ফাউন্ডেশন ও ব্রোঞ্জার

ফাউন্ডেশন এবং ব্রোঞ্জার বাছার ক্ষেত্রে ত্বকের স্বাভাবিক রঙের চেয়ে দু’ শেড গাঢ় নিতে হবে। ফর্সা হলে গোলাপি ঘেঁষা, মাঝারি বা চাপা গায়ের রং হলে একটু সোনালি ঘেঁষা ব্রোঞ্জার নিন।

৩। গাল ও চিবুক কাটা

চিবুকে ফাউন্ডেশন লাগানো হয়ে গেলে অল্প একটু ব্রোঞ্জার আঙুলে নিয়ে চোয়ালের হাড় বরাবর লাগান। এর পর হালকা হাতে ছোটো স্ট্রোকে তা গালের সঙ্গে মিশিয়ে দিন।

৪। ব্লেন্ড

মেকআপ করলেই হল না। তা ভালো করে ব্লেন্ড করতে হবে। স্পঞ্জ দিয়ে ভালো ভাবে ব্লেন্ড করুন।

৫। গলায়

চোয়ালের হাড়ের নীচে চিবুকের নরম অংশেও ব্রোঞ্জার লাগান তাতে গলা ও চিবুক এক রকম লাগবে।

৬। পাউডার

ট্রান্সলুসেন্ট পাউডার দিয়ে মেকআপ সেট করে নিন।

৭। ঠোঁট

ঠোঁটের মেকআপও জরুরি। গাঢ় রঙের লিপস্টিকও চেহারা একদম বদলে দেয়। তাই লোকের নজর ঘোরাতে চকচকে লিপ গ্লস, গাঢ় লাল, গাঢ় খয়েরি শেডের লিপস্টিক লাগান। ঠোঁটের দিকে নজর গেলে চিবুকে আর নজর ঘুরবে না।

৮। গাল ও চোখ

গাল আর চোখের মেকআপও জরুরি। চোখে হালকা রঙের আইশ্যাডো ও আইলাইনার লাগান। গালের উপরের দিকে ছোটো ছোটো টানে ব্লাশার লাগান। চিবুকে নজর যাবে না।

৯। চুলের স্টাইল

হেয়ারস্টাইলের ব্যাপারেও সচেতন হতে হবে। চিবুকের ঠিক নীচে বা ঘাড় পর্যন্ত লম্বা চুলের কোনো রকম স্টাইল না করাই ভালো। বরং চিবুকের দিকটা বেশি নজরে পড়বে না এমন হেয়ারস্টাইল করুন। এ ক্ষেত্রে সাইডে কোনো হেয়ার স্টাইল করা যেতে পারে।

আরও – ডবল চিনের সমস্যা? ম্যাজিকের মতো কাজ করবে এই ৬টি ব্যায়াম

পড়ুন – ত্বকের জেল্লা ফেরাতে ১০টি ঘরোয়া টোটকা

Continue Reading

কলকাতা

এ বারের পুজোয় কেনাকাটা: তেমন বেচাকেনা আদৌ হবে কি?

এই পরিস্থিতিতে পুজো তো আসছে। আর মোটামুটি পাঁচ সপ্তাহ পরেই পুজো। আর পুজো উপলক্ষ্যে কেনাকাটা তো কিছু করতে হবে, অল্পস্বল্প হলেও।

Published

on

কেনাকাটায় উৎসাহ নেই নতুন প্রজন্মের

শ্রেয়া সাহা

করোনা-আবহে থমকে গিয়েছে মানুষের জীবন। দীর্ঘ প্রায় ছ’ মাস ধরে গৃহবন্দি বেশির ভাগ মানুষ। স্কুল নেই, ফলত বাইরে যেতে মানা ছোটোদের। অন্য দিকে লকডাউনে কাজ হারিয়েছেন বহু মানুষ। ফলে পুজোর আনন্দ অনেকের কাছেই ফিকে হয়ে দাঁড়িয়েছে।

তবুও এই পরিস্থিতিতে পুজো তো আসছে। আর মোটামুটি পাঁচ সপ্তাহ পরেই পুজো। আর পুজো উপলক্ষ্যে কেনাকাটা তো কিছু করতে হবে, অল্পস্বল্প হলেও। কিন্তু কী ভাবে হবে সেই কেনাকাটা। কনটেনমেন্ট জোন ছাড়া সে ভাবে আর লকডাউন হবে না বলেই মনে হয়। সুতরাং বেশির ভাগ জায়গাতেই দোকানপাট খোলা। কিন্তু সবাই দোকানপাটে ঘুরে ঘুরে দরদাম করে কেনাকাটা করার উৎসাহ বা সাহস পাবেন তো? এ বার তা হলে অফলাইনের চেয়ে অনলাইনে বেশি কেনাকাটা চলবে?

এই সব প্রশ্ন নিয়ে খবর অনলাইন হাজির হয়েছিল সাধারণ মানুষের দরবারে। খবর অনলাইন জানতে চেয়েছিল, এ বার তাঁদের কী পরিকল্পনা? কোন পদ্ধতিতে তাঁরা কেনাকাটা করবেন, অনলাইন নাকি অফলাইন?      

গত মাসে এক সমীক্ষায় দেখা গিয়েছিল, লকডাউনে অফলাইনের তুলনায় অনলাইনেই কেনাকাটায় ভিড় জমিয়েছেন বেশির ভাগ মানুষ। এর প্রধান কারণ  করোনা সংক্রমণের ভয়। কিন্তু খুচরোখাচরা কিছু কেনা আর আশ মিটিয়ে পুজোর বাজার করা, দু’টোর মধ্যে আকাশপাতাল তফাত। পুজোর কেনাকাটার জন্য কি অনলাইনে ভরসা করা যায়?

কথা হচ্ছিল বারাসতের বাসিন্দা সুপ্রিয়া দাশগুপ্তের সঙ্গে। তিনি আইটি সংস্থায় কাজ করেন। কথা বলে বোঝা গেল সুপ্রিয়া দেবী কিছুটা দ্বিধাগ্রস্ত। পুজোর কেনাকাটা করার ব্যাপারে অনলাইনে তাঁর ভরসা নেই। আবার বাইরে বেরিয়ে দোকানে ঘুরে ঘুরে আগের মতো পছন্দসই জিনিস কিনবেন, এই পরিস্থিতিতে সে সাহসও করে উঠতে পারছেন না। তাই এ বার পুজোয় সে ভাবে আর কেনাকাটা করছেন না তিনি, এমনটাই জানালেন।

তাঁর কথায়, “অফিস যাওয়াটা প্রয়োজন। অফিস যেতে রোজ বাইরে বেরোতে হয়। কিন্তু প্রয়োজন না থাকলে বাইরে বেরোই না। তাই এ বারের পুজোয় আলাদা করে বিশেষ ভাবে কিছু কেনার কোনো পরিকল্পনাই নেই।”      

বেহালাবাসী ববি সেনের সঙ্গে কথা বলে বোঝা গেল, দেশের করোনা-পরিস্থিতি নিয়ে তিনি বেশ কিছুটা চিন্তিত, বিশেষ করে সাধারণ মানুষের অর্থনৈতিক অবস্থা নিয়ে। তাই পুজোয় এ বার কেনাকাটার কী পরিকল্পনা, জানতে চাইতেই ফোনের ও-পার থেকে স্পষ্ট বললেন, “পকেটে টাকাই নেই তো পুজোর পরিকল্পনা।” তাঁর কথায়, “এ বারের পুজোর আনন্দ শুধু বড়োলোকদেরই।”  

পুজোয় কেনাকাটার মধ্যে যে একটা কর্তব্য পালনের ব্যাপার আছে সেটা বোঝা গেল যাদবপুরের গৌরববাবুর সঙ্গে কথা বলে। তিনি মনে করেন, এ বার বাইরে বেরিয়ে কেনাকাটা করাটা ঝুঁকিপূর্ণ। তবে ছোটোদের জন্য তো কিছু কিনতেই হবে। সেই কর্তব্যই করছেন। আর বড়োদের জন্য কেনার কোনো পরিকল্পনা নেই গৌরববাবুর।

তাঁর কথায়, “এ বারে কিছু কেনার নেই। বাইরে যাওয়া ঝুঁকিপূর্ণ। বাড়ির ছোটোদের জন্য শুধু একটা করে জামা কিনেছি। বড়োদের আর কী! ভ্যাকসিন না আসা পর্যন্ত সংক্রমণের ভয়ে রয়ে যাচ্ছে।”   

তরুণ প্রজন্মের ছেলেমেয়েরাও এ বার পুজোয় কেনাকাটা নিয়ে খুব একটা উৎসাহ পাচ্ছেন না। প্রথম বর্ষের পড়ুয়া আকাশের কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিল, এ বারের পুজোয় কেনাকাটার পরিকল্পনা কী? আকাশ স্পষ্ট বলে দিলেন, “মাস্ক কিনেছি, স্যানিটাইজার কিনেছি। এ বার ভ্যাকসিন এলে ওটা কিনতে হবে। এটাই আমার পুজোর কেনাকাটা।”

তবে সবাই যে খুব নেগেটিভ ভাবছেন তা নয়। অনলাইন না অফলাইন, কেনাকাটার জন্য কোন মাধ্যম ভালো লাগে, জানতে চাইতেই দ্বিতীয় বর্ষের পড়ুয়া গড়িয়ার অন্বেষা সাহা স্পষ্ট বললেন, “আমার অনলাইনে কেনাকাটা করতে একেবারেই ভালো লাগে না।”

তবে মাঝে একদিন কিছু কেনাকাটা করতে দোকানে গিয়েছিলেন অন্বেষা। কিন্তু কালেকশন দেখে হতাশ হয়েছেন। তাঁর কথায়, “দোকানেও তেমন কোনো ভালো কালেকশন নেই। সব পুরোনো ড্রেস।” মন ভরেনি অন্বেষার।

সকলের সঙ্গে কথা বলে বোঝা গেল, এ বারের পরিস্থিতি নিয়ে প্রায় সকলেরই মনের মধ্যে রয়েছে দ্বিধা, সংশয়, হতাশা এবং কিছুটা আতঙ্কও। এ বারের পুজোয় কেনাকাটা সে ভাবে যে জমবে না, তা স্পষ্ট – অনলাইন অফলাইন তো দূরস্থান।     

Continue Reading

কেনাকাটা

১০টি ওয়াশেবল মাস্ক দেখে নিন

Published

on

খবর অনলাইন ডেস্ক : বাইরে বেরোচ্ছেন। মাস্ক অবশ্যই ব্যবহার করুন। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, করোনাভাইরাসের হাত থেকে বাঁচতে তিন স্তর বিশিষ্ট মাস্ক ব্যবহার করতে। অর্থাৎ যত বেশি মোটা হবে মাস্ক ততই আপনার জন্য ভালো। এখন যখন মাস্ক সব সময়ের সঙ্গী হয়ে যাচ্ছে তখন এক আধটা নয় একাধিক মাস্ক থাকবে প্রত্যেকেরই। অ্যামাজনে পেয়ে যাবেন বেশ কয়েক রকমের উন্নত মানের মাস্ক। তারই মধ্যে কয়েকটি দেখে নিন। এই প্রতিবেদনটি লেখার সময় যে দামগুলি ছিল সেগুলিই দেওয়া হল –

১। এন৯৫ কটন ওয়াশেবল মাস্ক এটি ডবল লেয়ার মাস্ক। হেলমেট বা যে কোনো গার্ডের নীচেও পরা যাবে। দু’টি রং পাওয়া যাবে – নীল, কালো।

দাম – ৬৬% বাদ দিয়ে ৮৯ টাকা। ডেলিভারি চার্জ অতিরিক্ত।

২। কটসন ৫ লেয়ার অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল কেএন৯৫ মাস্ক। এটি এক সঙ্গে ৩টি পাওয়া যাচ্ছে। হলুদ সাদা ও ধুসর রঙের।

দাম – ৭৪% ছাড় দিয়ে ১৬৮ টাকা।

৩। মার্ক লয়রি স্ট্যান্ডার্ড সাইজ অ্যাডাল্ট মাস্ক। ৫ লেয়ার বিশিষ্ট। ওয়াশেবল মাস্ক। এক সঙ্গে ৩টি পাওয়া যাচ্ছে।

দাম – ২৯৮ টাকা

৪। জিওরদানো অ্যান্টিপলিউশন, অ্যান্টি হিট, অ্যান্টি ডাস্ট, অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল রেসপিরেট্যাল মাস্ক। ৬ লেয়ার। ৪টে এক সঙ্গে। কালো, ধুসর, কালচে লাল, নীল রঙের।

দাম – ৫৯৯ টাকা।

৫। মাউথ কভারিং মাস্ক। পুনঃ ব্যবহারযোগ্য। কালো রঙের, ব্রিদিং ভাল্ভ যুক্ত।

দাম – ৮৬% ছাড় দিয়ে ১৬৫ টাকা

ব্রিপ্রো সফট বাইক ফেস মাস্ক। কালো রঙের।

দাম- ৯২% ছাড় দিয়ে ২৩ টাকা।

৭। ইইউএমই প্রটেক্ট+৯৫ মাস্ক। ওয়াশেবল। ৪ লেয়ারের। রং লাল। ৩টে একসঙ্গে।

দাম – ৯০০ টাকা।

৮। থ্রি লেয়ার ফেস প্রোটেকশন মাস্ক। ২০টির প্যাক।

দাম – ১৪৯ টাকা

৯। ফেশন সেফটি আউটডোর মাস্ক। ৩ লেয়ার। ওয়াশেবল। ৪টের প্যাক। (প্রিন্ট ৬)।

দাম – ৩৮% ছাড় দিয়ে ৩৬৯ টাকা

১০। ৬ লেয়ার আউটডোর ফেস মাস্ক। গোলাপি রঙের। একটি। ওয়াশেবল।

দাম – ১৬% ছাড় দিয়ে ১২৫ টাকা

দেখুন – রান্নাঘরের রোজকার ঝামেলা কমাতে ১০টি অত্যাধুনিক সামগ্রী ৫০০ টাকার মধ্যে

Continue Reading
Advertisement
দেশ29 mins ago

সোমবার থেকে স্কুল খোলা বাধ্যতামূলক নয়, দেখে নিন কোন রাজ্য কী সিদ্ধান্ত নিল?

corona
দেশ56 mins ago

৫টি রাজ্যেই মোট সক্রিয় কোভিডরোগীর ৬০ শতাংশ!

রাজ্য2 hours ago

বঙ্গোপসাগরে তৈরি নিম্নচাপের জেরে বৃষ্টি, হলুদ সর্তকতা জারি করল আবহাওয়া দফতর

দেশ3 hours ago

৬ বিধায়ক, ৩ সাংসদ এবং প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি-সহ আর যে সব ‘ভিভিআইপি’ করোনার শিকার

দেশ4 hours ago

রাজ্যসভায় বিক্ষোভ, নাটকীয়তার মধ্যেই পাশ হল দু’টি কৃষি বিল!

দেশ5 hours ago

কৃষি বিল নিয়ে উত্তপ্ত রাজ্যসভা, চরম বিশৃঙ্খলা

mamata banerjee
রাজ্য5 hours ago

সোমবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায়ের উত্তরবঙ্গ সফর স্থগিত

দেশ6 hours ago

‘কৃষকের মৃত্যু পরোয়ানা’য় স্বাক্ষর করব না, রাজ্যসভায় কৃষি বিল নিয়ে বলল কংগ্রেস

দেশ10 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ৯২৬০৫, সুস্থ ৯৪৬১২

শিল্প-বাণিজ্য2 days ago

এসবিআই এটিএমে টাকা তোলার নিয়ম বদলে গেল! দেখে নিন ওটিপি-ভিত্তিক পদ্ধতির খুঁটিনাটি বিষয়

কলকাতা2 days ago

কয়েকটি স্টেশনে ই-পাসের সংখ্যা বাড়াচ্ছে কলকাতা মেট্রো

Shreyas Iyer
ক্রিকেট2 days ago

আইপিএলের অন্যতম সেরা বোলিং লাইনআপ কি দিল্লি ক্যাপিটাল্‌সের?

MS Dhoni
ক্রিকেট2 days ago

চেন্নাই সুপারকিংসের আদর্শ লাইনআপে কত নম্বরে ব্যাট করতে পারেন মহেন্দ্র সিংহ ধোনি?

ishan porel mohammad shami
ক্রিকেট2 days ago

কিংস ইলেভেন পঞ্জাবের হয়ে নতুন বলে বাংলার দুই পেসার?

দেশ3 days ago

কৃষি বিপণন সংক্রান্ত বিলের বিরোধিতায় পদত্যাগ করলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী

কলকাতা2 days ago

ট্যাক্সি চালকের হাতে হেনস্থা মামলায় আলিপুর আদালতে গোপন জবানবন্দি সাংসদ- অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তীর

কেনাকাটা

কেনাকাটা1 day ago

সংসারের খুঁটিনাটি সমস্যা থেকে মুক্তি দিতে এই জিনিসগুলির তুলনা নেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিজের ও ঘরের প্রয়োজনে এমন অনেক কিছুই থাকে যেগুলি না থাকলে প্রতি দিনের জীবনে বেশ কিছু সমস্যার...

কেনাকাটা4 days ago

ঘরের জায়গা বাঁচাতে চান? এই জিনিসগুলি খুবই কাজে লাগবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : ঘরের মধ্যে অল্প জায়গায় সব জিনিস অগোছালো হয়ে থাকে। এই নিয়ে বারে বারেই নিজেদের মধ্যে ঝগড়া লেগে...

কেনাকাটা1 week ago

রান্নাঘরের জনপ্রিয় কয়েকটি জরুরি সামগ্রী, আপনার কাছেও আছে তো?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রান্নাঘরের এমন কিছু সামগ্রী আছে যেগুলি থাকলে কাজ করাও যেমন সহজ হয়ে যায়, তেমন সময়ও অনেক কম খরচ...

কেনাকাটা2 weeks ago

ওজন কমাতে ও রোগ প্রতিরোধশক্তি বাড়াতে গ্রিন টি

খবরঅনলাইন ডেস্ক : ওজন কমাতে, ত্বকের জেল্লা বাড়াতে ও করোনা আবহে যেটি সব থেকে বেশি দরকার সেই রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা...

কেনাকাটা2 weeks ago

ইউটিউব চ্যানেল করবেন? এই ৮টি সামগ্রী খুবই কাজের

বহু মানুষকে স্বাবলম্বী করতে ইউটিউব খুব বড়ো একটি প্ল্যাটফর্ম।

কেনাকাটা3 weeks ago

ঘর সাজানোর ও ব্যবহারের জন্য সেরামিকের ১৯টি দারুণ আইটেম, দাম সাধ্যের মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ঘর সাজাতে কার না ভালো লাগে। কিন্তু তার জন্য বাড়ির বাইরে বেরিয়ে এ দোকান সে দোকান ঘুরে উপযুক্ত...

কেনাকাটা4 weeks ago

শোওয়ার ঘরকে আরও আরামদায়ক করবে এই ৮টি সামগ্রী

খবর অনলাইন ডেস্ক : সারা দিনের কাজের পরে ঘুমের জায়গাটা পরিপাটি হলে সকল ক্লান্তি দূর হয়ে যায়। সুন্দর মনোরম পরিবেশে...

kitchen kitchen
কেনাকাটা1 month ago

রান্নাঘরের এই ৮টি জিনিস কাজ অনেক সহজ করে দেবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আজকাল রান্নাঘরের প্রত্যেকটি কাজ সহজ করার জন্য অনেক উন্নত ব্যবস্থা এসে গিয়েছে। তা হলে ঘণ্টার পর ঘণ্টা কষ্ট...

care care
কেনাকাটা1 month ago

চুল ও ত্বকের বিশেষ যত্নের জন্য ১০০০ টাকার মধ্যে এই জিনিসগুলি ঘরে রাখা খুবই ভালো

খবরঅনলাইন ডেস্ক : পার্লার গিয়ে ত্বকের যত্ন নেওয়ার সময় অনেকেরই নেই। সেই ক্ষেত্রে বাড়িতে ঘরোয়া পদ্ধতি অনেকেই অবলম্বন করেন। বাড়িতে...

কেনাকাটা1 month ago

ঘর ও রান্নাঘরের সরঞ্জাম কিনতে চান? অ্যামাজন প্রাইম ডিলে রয়েছে ৫০% পর্যন্ত ছাড়

খবরঅনলাইন ডেস্ক : অ্যামাজন প্রাইম ডিলে রয়েছে ঘর আর রান্না ঘরের একাধিক সামগ্রিতে প্রচুর ছাড়। এই সেলে পাওয়া যাচ্ছে ওয়াটার...

নজরে