ওয়েবডেস্ক: পার্টিতে যাবেন? পার্টিতে কী পরে যাবেন নিশ্চই ঠিক হয়ে গেছে? কিন্তু পার্টিতে কী ভাবে সাজবেন সেটা নিয়ে কী ভেবেছেন?

মেক আপ ছাড়া তো পুরো সাজটাই মাটি। মেকআপ হতে হবে এমন যাতে পার্টিতে সবার নজর আপনার দিকেই পড়ে। কিন্তু ভাবছেন সেটা কী করে সম্ভব? সবই সম্ভব!

বাড়িতে বসেই মাত্র ১০ মিনিটের মধ্যে করতেই পারেন পার্টির মেক-আপ। পার্টিতে যাওয়ার আগে কী ভাবে নিজেকে সাজাবেন একবার জেনে নিতে পারেন।

আসুন জেনে নেওয়া যাক পার্টির সাজের খুঁটিনাটি বিষয়ে-

১। মুখ পরিষ্কার 

মুখের মেক-আপ ঠিকঠাক হতে হবে! কিন্তু তার জন্য আগে দরকার মুখ পরিষ্কার রাখা। মুখের মধ্যে ধুলো, ময়লা জমে থাকলে সে আপনি যতই সাজুন মোটেই ভালো লাগবে না। তাই আগে মুখের মধ্যে জমে থাকা ধুলো-ময়লা পরিষ্কার করে নিন

২। ময়েশ্চারাইজার 

মুখ পরিষ্কার করার পর এমনিতেই মুখ একটু শুকনো লাগে। তাই অবশ্যই ময়েশ্চারাইজার লাগানো দরকার। না হলে মেক-আপ করার পর কিন্তু মুখ খুব শুকনো লাগবে এবং কালো লাগবে। মুখে মেক-আপ লাগানোর আগে  ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিন।

৩। কন্সিলার

 

সুন্দর মেকআপের পরও মুখের নানারকম দাগ যদি পার্টিতে চোখে পড়ে, তা হলে কি ভালো লাগবে? তার থেকে মুখে কন্সিলার লাগিয়ে নেওয়া ভালো। এটা মুখের সমস্ত দাগকে সুন্দর ভাবে ঢেকে দেবে। চোখের নীচে লাগান এবং অন্যান্য দাগের অংশে মোটা করে লাগান।

৪। ফাউন্ডেশন

এবার ফাউন্ডেশন লাগাতে হবে। ফাউন্ডেশন সবসময় নিজের স্কিন টোনের সাথে ম্যাচ করে কিনবেন। আর মুখের সমস্ত দিকে ভালো ভাবে লাগানোর জন্য, একটা মেকআপ স্পঞ্জ কিনে নিন। তাতে করেই ফাউন্ডেশন লাগান। দেখবেন, মুখের সমস্ত দিকে কেমন সুন্দর একদম পারফেক্ট ভাবে ব্লেন্ড হয়ে গেছে।

৫। কমপ্যাক্ট

ফাউন্ডেশনের পর মেকআপ পাউডার লাগিয়ে নিন ব্রাশের সাহায্যে। মেকআপ পাউডার লাগানোর পর,আরও হাইলাইট করার জন্য ব্লাশন লাগাতেই পারেন বা লাগাতে পারেন ইলুমিনেশন পাউডার বা ব্রঞ্জ পাউডার। কিন্তু সময় খুব কম থাকলে,ফাউন্ডেশনের পরই ইলুমিনেসন পাউডার লাগিয়ে নিন। আর ব্লাশন লাগালে অবশ্যই নিজের ড্রেসের সাথে ম্যাচ করে কালার লাগাবেন। তবে পার্টিতে একটু হেভি লুকই বেশি ভালো লাগে। তাই ইলুমিনেশন পাউডার লাগালে ভালো লাগবে।

৬। আই প্রাইমার

আই মেকআপ তাড়াতাড়ি উঠে যায়? তা হলে চোখের মেকআপ শুরু করার আগে, আই প্রাইমার লাগিয়ে নিন।এটা আইশ্যাডো বা আই মেকআপকে অনেকক্ষণ ধরে রাখতে সাহায্য করে। আর পার্টিতে অনেকটা সময় ধরেই নাচগান, হইহুল্লোড় হবে। তাই মেকআপকে অনেকক্ষণ পর্যন্ত স্কিনে তো রাখতেই হবে।

আই প্রাইমার চোখের ওপরের পাতায় লাগিয়ে নিন। তারপর কয়েক সেকেণ্ড অপেক্ষা করুন। তারপর লাগান আইশ্যাডো। পার্টিতে চোখকে বেশি হাইলাইট করতে দুরকম রঙ ব্যবহার করতে পারেন। চোখের শেষের কোণে একটু ডার্ক শেড আর সামনের দিকে অন্য শেড দিয়ে হাইলাইট করুন।

৭। আই লাইনার

পার্টিতে লাগান জেল আই লাইনার বা পেনসিল আই লাইনার। পেনসিল দিয়ে কিছুটা উইঞ্জড বা ক্যাট আই স্টাইলে লাইনার লাগিয়ে নিন। ওপরের পাতায় মোটা করে লাইনার লাগিয়ে নিন। ব্যাস নীচের পাতায় লাইনার লাগাবার দরকার নেই। তারপর একটু ঘন করে মাস্কারা লাগিয়ে নিন ওপরের পাতায়।

৮। ঠোঁটের মেক-আপ 

অনেক সময় গরমকালে কিন্তু ঠোঁট শুকনো হয়ে যায়। তাই শুকিয়ে যাওয়া ঠোঁটে লিপস্টিক লাগালে মোটেই তা দেখতে ভালো লাগবে না। তাই লিপস্টিক লাগানোর আগে ঠোঁটে লিপবাম লাগিয়ে নিন। তারপর লিপ লাইনার দিয়ে আগে আউটলাইনটা করে নিন। এরপরে লিপস্টিক লাগান। এতে লিপস্টিক বেশিক্ষণ থাকবে।

কী ভাবছেন! লিপবাম লাগালে তো ঠোঁট চটচট করবে। কিন্তু পার্টিতে পছন্দ ম্যাট লুক। তা হলে টিস্যু পেপার রাখুন হাতের কাছে। লিপস্টিক পরে, টিস্যু পেপার দিয়ে ঠোঁটটা হালকা করে চেপে নিন। ঠোঁটের মধ্যে থাকা বাড়তি তেল শুষে নেবে।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন