জেনে নিতে পারেন

ওয়েবডেস্ক: শীতের হাওয়া গায়ে লাগলেই ত্বক হয়ে ওঠে রুক্ষ ও খসখসে। ঠোঁট ফেটে যায়। পায়ের গোড়ালি থেকে চামড়া উঠতে থাকে। চুল ভরে ওঠে খুশকিতে। এই রকম আরও নানা সমস্যা দেখা দেয় শীতে।

ত্বকের যত্ন নিয়মিত নিলেও অনেক সময় হাত-পায়ের দিকে খেয়াল করেন না অনেকেই। ফলে হাত ও পায়ের ত্বক হয়ে ওঠে খসখসে। ত্বকের এমন শুষ্কতা খুব অস্বস্তিদায়ক।

যদি ঠিকঠাক মতো নিয়ম মেনে চলা যায় তা হলে শীতে আর সৌন্দর্যহানি হয় না, ত্বকও থাকে মসৃণ ও সুন্দর। শীতে কী ভাবে ত্বকের যত্ন নেবেন আসুন জেনে নেওয়া যাক।

১। খসখসে হাতের যত্নে

শীত এলে অনেকের হাতের ত্বক খুব অমৃসণ ও খসখসে হয়ে যায়। এ সময় ত্বক সুন্দর রাখার উপায় কী বরং জেনে নিন।

(ক) এক চামচ দুধের সর বা মাখনে কয়েক ফোঁটা লেবুর রস ও গ্লিসারিন মিশিয়ে রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে ২ হাতে সেটা ঘষে লাগিয়ে নিন।

(খ) ঘুমোতে যাওয়ার আগে হাত ও আঙুলগুলো বাদাম তেল দিয়ে মালিশ করে নিন।

(গ) হাতের ত্বক খসখসে হয়ে থাকলে এক চামচ চিনি ও লেবুর রস নিন। তার পর ২ হাতের তালুতে নিয়ে ঘষতে থাকুন, যতক্ষণ না চিনি গলে যায়। এর পর ঠান্ডা জল দিয়ে হাত ধুয়ে ফেলুন। চিনির পরিবর্তে মধুও ব্যবহার করতে পারেন।

(ঘ) গ্লিসারিনের সাথে গোলাপ জল মিশিয়ে ২ হাতে ভালো করে লাগান। দেখবেন ত্বক কেমন চমৎকারভাবে পরিষ্কার হয়।

আরও পড়ুনএই ৩টি যোগাসনে ম্যাজিকের মতো ফিরে পাবেন ত্বকের উজ্জ্বলতা

২। শুষ্ক পায়ের যত্ন

শীতকাল মানেই শুধু ত্বক ও হাতের যত্ন নিলে কিন্তু হবে না। মাথায় রাখতে হবে পায়ের যত্নের কথাও।

(ক) সমপরিমাণ চিনি অলিভ অয়েল কিংবা লেবুর রসের সঙ্গে মিশিয়ে স্ক্রাব তৈরি করে নিন। ২-৩ দিন পর পর এই মিশ্রণটি দিয়ে স্ক্রাব‌টি ব্যবহার করুন।

(খ) বাইরে থেকে এসে হালকা উষ্ণ গরম জলে লেবুর রস মিশিয়ে ১০-১৫ মিনিটের জন্য হাত-পা ভিজিয়ে রাখুন। এর পর নরম ব্রাশে শ্যাম্পু লাগিয়ে হালকা করে ঘষে মরা চামড়া তুলে ফেলুন।

(গ) পায়ের গোড়ালি ফাটা রোধ করতে রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে পা ধুয়ে এক চামচ ভ্যাসলিনের সঙ্গে লেবুর রস মিশিয়ে ভালোভাবে গোড়ালি ও ফাটা জায়গায় লাগিয়ে নিন। এর পর মোজা পরে ঘুমিয়ে পড়ুন। সকালে উঠে ধুয়ে ফেলুন।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here