শীতের শুরুতে রুক্ষ চুল! ৮টি ঘরোয়া টোটকা, মসৃণতা ফিরে আসবেই

0

খবর অনলাইন ডেস্ক: এখনও শীত পুরোপুরি আসেনি। কিন্তু শীতের বেশ সুন্দর একটা আমেজ রয়েছে। এই আবহাওয়ায় চুলের যত্ন নেওয়া একটু কঠিন হয়ে যায়। ফলে চুল রুক্ষ হয়ে যায়, খুসকি দেখা যায় বেশি, চুল স্বাভাবিক সৌন্দর্য হারিয়ে ফেলে। প্রচুর চুল পড়ে যেতে থাকে। তাই চুলের মসৃণতা বজায় রাখতে এবং চুল পড়া আটকাতে শীতের শুরু থেকেই বিশেষ যত্ন নিতে হয়

রইল পরামর্শ

১। শীতের শুরুতে সাধারণ সমস্যা চুল রুক্ষ ও শুষ্ক হয়ে যাওয়া। এই সমস্যা আটকাতে ১ চা চামচ অলিভ অয়েল বা নারকেল তেল, ১ চা চামচ মধু এবং আধা কাপ পালং শাক নিয়ে ভালো ভাবে মিশিয়ে নিন। মিশ্রণটি চুলে লাগিয়ে আধ ঘণ্টা রেখে শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে নিন।

২। শীতে চুল পড়া একটা স্বাভাবিক বিষয়। এর জন্য মাথায় মাখার তেল হালকা গরম করে চুলের গোড়ায় গোড়ায় হালকা হাতে মালিশ করে আধ ঘণ্টা রেখে চুল ধুয়ে ফেলুন।

৩। শীতে চুলের ডগা ফাটাও খুব সাধারণ সমস্যা। তাই ডগা ফাটা চুল দেখতে পেলেই দেরি না করে ছেঁটে ফেলতে হবে। নিয়মিত শ্যাম্পু এবং কন্ডিশনার ব্যবহার করুন।

৪। এই সময় চুলের যত্নে দু’টি অ্যালোভেরা পাতার জেলের সঙ্গে অল্প মধু মিশিয়ে পেস্ট বানিয়ে নিন। চুলে লাগিয়ে আধ ঘণ্টা পরে ধুয়ে ফেলুন।

৫। নতুন চুল গজাতে চুলে ক্যাস্টর অয়েল ব্যবহার করতে পারেন।

৬। ১টি ডিমের সঙ্গে ১ চামচ মধু ও কয়েক ফোঁটা অলিভ অয়েল মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণটি চুলে লাগান। মিনিট ২০ রেখে কোনো হালকা ধরনের শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন।

৭। চুলের কোমলতা ধরে রাখতে সাহায্য করে হট টাওয়েল। প্রথমে চুলে ভালো করে তেল লাগান। এর পর গরম জলে তোয়ালে ভিজিয়ে জল নিংড়ে নিন। গরম থাকা অবস্থায় পুরো মাথায় জড়িয়ে ফেলুন তোয়ালে। কিছু সময় পর খুলে ফেলুন। এ ভাবে ৩ থেকে ৪ বার করুন। এর পর চুল শ্যাম্পু করে ধুয়ে ফেলুন।

৮। চুলের জন্য কনডিশনার ভালো। সে ক্ষেত্রে প্রাকৃতিক কনডিশনার হলে কোনো কথাই নেই। চায়ের ঠান্ডা লিকার কন্ডিশনার হিসেবে খুবই ভালো। চুলের আগা ফাটা প্রতিরোধ করতেও চায়ের লিকারের জুড়ি নেই। ১টি পাত্রে চায়ের লিকার নিয়ে চুলের ডগা তাতে ডুবিয়ে রাখুন। ১৫ মিনিট পর চুল ধুয়ে নিন। নিয়মিত চায়ের লিকার ব্যবহার করুন। চুলের ডগা ফাটা প্রতিরোধ হবে।

দেখুন – শীতকালে গ্লিসারিন ব্যবহার করবেন কী ভাবে? ৪টি অতি সহজ পদ্ধতি

আরও দেখুন – দুই দিনে চুলের জেল্লা ফেরাতে হলে অবশ্যই করুন

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন