skin
মেকআপ ছাড়াও নিজেকে সুন্দর করে তুলুন এই ভাবে

ওয়েবডেস্ক: প্রতিদিন সকালে বাড়ির কাজ সামলে অফিস বেরোনোর আগে মেকআপ করা আর হয় না। অত সময় কই? তা ছাড়া অফিসে যাওয়ার আগে একটু না সেজে বেরোলেও হয় না।

কিন্তু মেকআপ না করেও যদি আপনাকে দেখতে ভালো লাগে সে কথাটা কি একবারও ভেবে দেখেছেন? কী ভাবে মেকআপ না করেও সুন্দর দেখাতে পারে আসুন জেনে নেওয়া যাক।

১। মুখ পরিষ্কার

মেকআপ ছাড়া সুন্দর থাকার জন্য নিজের ত্বকের প্রতি যত্নবান হতে হবে। এর জন্য প্রথমেই দরকার মুখ পরিষ্কার রাখা। তবে খুব বেশি ফেসওয়াশ দিয়ে মুখ ধোয়া ভালো নয়। এতে ত্বকে খুব তাড়াতাড়ি শুষ্ক ভাব চলে আসে। তাই মাঝে মাঝে জল দিয়েই মুখ ধোবেন। যেমন সকালে জল দিয়ে মুখ ধুয়ে, রাতে বাড়ি ফিরে ফেস ওয়াশ দিয়ে মুখ ধুলেন। দিনে ১ বারের বেশি ফেস ওয়াশ ব্যবহার না করাই ভালো।

২। টোনিং এবং ময়েশ্চারাইজিং

মুখ পরিষ্কার করার পর টোনার লাগাবেন। এবং তার কিছুক্ষণ পর মুখ ধুয়ে ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করবেন। শীত হোক বা গ্রীষ্ম, ত্বককে কিন্তু সবসময় ময়েশ্চারাইজড রাখা দরকার। ত্বকের ময়েশ্চার হারিয়ে গেলে কিন্তু ত্বক শুকিয়ে যাবে আর কালো লাগবে। এটা রোজ রাতে বাড়ি ফিরে রুটিন করে নেবেন।

৩। এক্সফোলিয়েশন

সপ্তাহে এক বা দু’দিন স্কিনকে এক্সফোলিয়েট করা খুব দরকার। যদি বাজার চলতি স্ক্রাবার ব্যবহার করেন, তা হলে খুব বেশি মুখে ঘষবেন না। ২ মিনিট একদম হালকা হাতে ঘষে ধুয়ে নেবেন। আর স্ক্রাব না থাকলে, গরম জলে একটা সুতির কাপড় ভিজিয়ে, সেটা দিয়ে মুখ ঘষুন সার্কুলার মোশনে। ৫ মিনিট ঘষে ধুয়ে ফেলুন। এ ছাড়াও চিনি, মধু ও লেবু মিশিয়ে এক্সফোলিয়েট করতে পারেন। মাঝে মাঝে কিছু ঘরোয়া প্যাকও লাগাতে পারেন।

৪। সানস্ক্রিন 

রোজ বাইরে বেরোবার মিনিট ১৫ আগে সানস্ক্রিন মেখে নিন। অন্তত এসপিএফ (সান প্রোটেকশন ফ্যাক্টর) যেন ৩০ হয়। আর সারাদিন যদি রোদেই কাজ থাকে, তা হলে সানস্ক্রিন তিন ঘণ্টা অন্তর লাগান। মনে রাখবেন, সূর্যরশ্মি কিন্তু শুধু ট্যান নয়, খুব তাড়াতাড়ি ত্বকে এজিং নিয়ে আসে।

৫। হাইলাইট করুন

মেকআপ না করলেও একদম হালকা, ব্লাশ অন চলতেই পারে মুখকে হাইলাইট করার জন্য। তবে গালে যদি ব্রণ থাকে সেটা না কমিয়ে মুখে মেকআপ না করাই ভালো।

৬। আই ব্রো

মুখে মেকআপ না থাকলেও, আই ব্রোকে হাইলাইট করুন। এতে ঘন কালো ভুরুতেই মুখের সৌন্দর্য ফুটে উঠবে।

৭। ঠোঁটের যত্ন

যারা ন্যাচারাল লুকে থাকে তাঁদের ঠোঁটও কিন্তু সুন্দর হয়। ঠোঁটকে মাঝে মাঝে এক্সফোলিয়েট করুন। নরম দাঁতের ব্রাশ নিয়ে, একদম হালকা ভাবে ভিজে ঠোঁটে ঘষুন। এতে ঠোঁটের ওপরের ফাটা চামড়া উঠে যাবে। সাথে ঠোঁটকেও ময়েশ্চারাইজড রাখাও দরকার। তাই বারো মাসই ব্যবহার করুন এসপিএফ. যুক্ত লিপবাম।

আরও পড়ুন: অফিস থেকে ফিরে ত্বকের যত্ন নিন এই ৩টি পদ্ধতিতে

৮। জল

হেলদি স্কিন পেতে ত্বককে হাইড্রেট রাখাও খুব জরুরি। রোজ ২-৩ লিটার জল খেতেই হবে। যদি মেকআপ ছাড়া ন্যাচারাল গ্লো পেতে চান। তবে শুধু জল নয়, সঙ্গে খেতে হবে বেশি করে শাক-সবজি ও ফল। ভাজাভুজি যতটা কম খেলেই ভালো।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here