Connect with us

সম্পর্ক

৯টি সময়ে সেক্স করা ঠিক নয়, জেনে নিন কারণ

ওয়েবডেস্ক: শুধু মাত্র সাময়িক সুখের জন্য নয়, সহবাস বা সোজা কথায় সেক্স যে সুস্থ শরীর ও স্বাভাবিক জীবনধারণের জন্যও প্রয়োজন, তা বলে থাকেন চিকিৎসকরা। তবে সেই সহবাসের ক্ষেত্রেও মেনে চলা উচিত বেশকিছু নিয়ম-কানুন। ঠিক কোন পরিস্থিতিকে সহবাসের জন্য বেছে নেওয়া হচ্ছে, সেটার উপরও নির্ভর করা সুস্থ থাকার কারণ। সেগুলির মধ্যে থেকেই নজর বুলিয়ে নেওয়া যাক […]

Published

on

Sex

ওয়েবডেস্ক: শুধু মাত্র সাময়িক সুখের জন্য নয়, সহবাস বা সোজা কথায় সেক্স যে সুস্থ শরীর ও স্বাভাবিক জীবনধারণের জন্যও প্রয়োজন, তা বলে থাকেন চিকিৎসকরা। তবে সেই সহবাসের ক্ষেত্রেও মেনে চলা উচিত বেশকিছু নিয়ম-কানুন। ঠিক কোন পরিস্থিতিকে সহবাসের জন্য বেছে নেওয়া হচ্ছে, সেটার উপরও নির্ভর করা সুস্থ থাকার কারণ। সেগুলির মধ্যে থেকেই নজর বুলিয়ে নেওয়া যাক ৯টি পরিস্থিতির উপর।

১. ইউটিআই রোগে

Loading videos...

ইউটিআই বা উইরিনারি ট্র্যাক্ট ইনফেকশনে সঙ্গীর যে কোনো এক জন আক্রান্ত হলেও সহবাস এড়িয়ে চলাই ভালো। কারণ, এতে যেমন রোগাক্রান্তের রোগের পরিধি বিস্তারের সম্ভাবনা প্রকট, তেমনই সঙ্গীর শরীরেও সেই রোগ ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা থেকেই যায়।

২. গর্ভাবস্থায় নিরাপদ, কিন্তু…

গর্ভাবস্থায় সহবাস যে নিরাপদ তা ভুক্তভোগী মাত্রই জানা। কিন্তু এই সময় ঝিল্লির ছিঁড়ে যাওয়া, অমরার অস্বাভাবিক অবস্থান-সহ একাধিক সমস্যার জন্য চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া প্রয়োজন।

৩. মানসিক দ্বন্দ্ব

সহবাসের প্রথম ও শেষ কথা মানসিক তৃপ্তি। কিন্তু মনের মধ্যে যদি কোনো দ্বন্দ্ব কাজ করে তা অবশ্যও ওই পরিস্থিতি এড়িয়ে চলা ভালো। সেটা হতে পারে সঙ্গীর সঙ্গে সঙ্গিনীর বা যে কোনো এক জনের মনের অস্বাভাবিক অবস্থা।

৪. সন্তান প্রসবের পর

চিকিৎসা শাস্ত্রে কোনো বাধ্যবাধকতা নেই। সন্তান প্রসবের পর সহবাসে সচরাচর কোনো নির্দিষ্ট সীমারেখা টানেন না চিকিৎসকরা। কিন্তু, প্রকৃতিগত কারণে অর্থাৎ, প্রসবের পর শরীরকে নিজের অবস্থানে ফিরে আসার সময় দেওয়ার জন্য অনেকেই ৬ সপ্তাহ অপেক্ষা করার কথা বলেন।

৫. যৌনাঙ্গের জ্বালা-যন্ত্রণায়

বিভিন্ন কারণে জননাঙ্গে জ্বালা-যন্ত্রণার সৃষ্টি হতে পারে। এর মধ্যে সব থেকে বড়ো কারণ কোনো ছত্রাক ঘটিত রোগ। এ সব ক্ষেত্রে সহবাস পুরোপুরি এড়িয়ে চলা ভালো। নইলে রোগ বেড়ে যাবে নিশ্চিত ভাবেই।

৬. ওষুধ এবং মাদক

কোনো কড়া ওষুধ অথবা অ্যান্টিবায়োটিক নিতে থাকলে সহবাসে নিষেধ করেন চিকিৎসকরা। তবে সেটা ওষুধের চরিত্রের উপর নির্ভর করে। অন্য দিকে উত্তেজনা বাড়াতে সহবাসকালে মাদকের ব্যবহার ভবিষ্যতে বিপদ ডেকে নিয়ে আসতে পারে।

৭. পেপ টেস্টের আগে

পেপ টেস্টের মাধ্যমে জরায়ু মুখের কোষ নিয়ে পরীক্ষা করা হয়।এই পরীক্ষাটি জরায়ু ক্যান্সারের পূর্বাবস্থা নির্ণয় করতে সক্ষম। এমন কোনো পরীক্ষার আগে কোনো মতেই সহবাস করতে হলে চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া উচিত।

৮. যখন নিরাপদ নয়

অবাধ যৌন মিলনের ফলে হতে পারে সন্তানধারণ। গর্ভনিরোধক ব্যবস্থা পর্যাপ্ত ভাবে না থাকলে সহবাস এড়িয়ে চলতে হবে। এটা অবশ্য ব্যক্তিবিশেষের নির্দিষ্ট ব্যাপার। কিন্তু আর যাইহোক, গর্ভনিরোধক ব্যবস্থা মজুত রাখাই শ্রেয়।

৯. জোর নয়

জোর করে সহবাসের কোনো মানেই হয় না। দু’জনের দিক থেকেই সম্মতি না মিললে এক জনের ইচ্ছেয় যৌনক্রিয়া আর যাই হোক, মোটেই সহবাস নয়।

জীবন যেমন

সম্পর্ক কতটা ঘনিষ্ঠ হলে পাসওয়ার্ড শেয়ার করবেন?

Published

on

খবরঅনলাইন ডেস্ক: স্বামী-স্ত্রী বা প্রেমিক-প্রেমিকার মধ্যে পাসওয়ার্ড শেয়ার করাটাই কি পারস্পরিক বিশ্বাসের পরাকাষ্ঠা, আস্থার প্রতীক নাকি আসলে এটা পরস্পরের প্রতি দখলদারিরই একটা রূপ? এই প্রশ্নের উত্তর এক কথায় দেওয়া কঠিন।

তবে ব্যক্তিগত স্পেসে কিছুটা গোপনীয়তা রাখলে আসলে সম্পর্কটাকেই সম্মান জানানো হয় বলে অনেকেই মনে করেন। আবার উলটো মতবাদের লোকও আছেন। 

Loading videos...

কিন্তু দিন বদলেছে আমূল, ফোনের পাসকোড দেওয়ার আগে তাই কয়েকশো বার ভাবতে হবে। কারণ কোনো কালেই সম্পর্কে স্বচ্ছতা রাতারাতি আসেনি, এখনও আসে না। তা ছাড়া বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই বিশ্বাস গড়ে উঠতে সময়ও লাগে বহু বছর। সেই সময়টা দিতে তো হবেই, তার পরেও অবশ্যই সচেতন থাকা দরকার।

প্রথমত,

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, নতুন সম্পর্কে পাসওয়ার্ড শেয়ার না করাই ভালো। সদ্য প্রেমে পড়ে আবেগে ভেসে নিজের যাবতীয় গোপন তথ্য ফাঁস করবেন না। কারণ সম্পর্কটির স্থায়িত্ব বিষয়ে কোনো গ্যারেন্টি নেই। সম্পর্ক ভেঙে গেলে পাসওয়ার্ডগুলো বেহাত হয়ে যাবে।

দ্বিতীয়ত,

পার্টনারের সঙ্গে সম্পর্ক ঘনিষ্ঠতা গাঢ় হলেও কোনো পাসওয়ার্ডই জানিয়ে দেওয়া ঠিক নয়। এর মানে আইডেন্টিটি চুরির সুযোগ করে দেওয়া। আপনার অ্যাকাউন্ট থেকে এমন কিছু পোস্ট শেয়ার হতে পারে যা হয়ত আপনার মতবিরোধী। বা ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের পিন ব্যবহার করে টাকা ফাঁকা হবে না, সে ব্যাপারেও কোনো নিশ্চয়তা নেই।

তৃতীয়ত,

শুধু তা-ই নয়, দীর্ঘদিনের সম্পর্কেও পাসওয়ার্ড শেয়ার করা যায় কিনা, তা নির্ভর করে পারস্পরিক রসায়নের ওপর। দশ বছর এক সঙ্গে থাকলেও সেই সমঝোতা নাও থাকতে পারে। তেমন হলে পাসওয়ার্ড শেয়ারের প্রশ্নই নেই।

চতুর্থত,

অনলাইন অ্যাকাউন্টের প্রাইভেসির ক্ষেত্রে সকলের মত আলাদা হতেই পারে। এক জন পাসওয়ার্ড দিতে রাজি থাকলেও অন্য জন দিতে নাও চাইতে পারেন। এটা খুব স্বাভাবিক। তাই এই সব নিয়ে কোনো রকম ঝগড়াঝাঁটি বা দোষারোপ না করাই শ্রেয়। এতে খুব বড়ো সমস্যা তৈরি হয়। পাসওয়ার্ডের চেয়ে সম্পর্কে সুস্থতা অনেক বেশি কাম্য। তাই পাসওয়ার্ডে বাড়তি মাথা না ঘামিয়ে সম্পর্কের বন্ধন দৃঢ় করাই ভালো।

পড়ুন – সম্পর্কের মধ্যে দৃঢ়তা বাড়াতে চান? মেনে চলুন এই পদ্ধতি

আরও – সন্তানের সঙ্গে এই ৫টি ভুল কখনওই করবেন না

Continue Reading

জীবন যেমন

সন্তানের সঙ্গে এই ৫টি ভুল কখনওই করবেন না

Published

on

খবরঅনলাইন ডেস্ক : প্রত্যেকেই একদিন ছোটো থাকে। তার পর বড়ো হয়ে অভিভাবক হন। সুতরাং যে পথ নিজেরা পেরিয়ে আসেন সেই পথেই ছোটোদের এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার গুরুদায়িত্ব এসে যায়। সে ক্ষেত্রে নিজেদের অভিজ্ঞতা খারাপ লাগা ভালো লাগা ইত্যাদি মনে রেখে যদি ছোটোদের শাসন ও পালন করা যায় অনেকটাই ভালো ফল পাওয়া যায়। অবশ্যই তার মানে এই নয়, প্রতিশোধপরায়ণ হয়ে উঠতে হবে, বা আমার সঙ্গে কোনো ভুল হয়েছিল যখন আমি তা শোধরাব না। বা আমি যা পাইনি তা কেন করতে দেব? বা আমার ইচ্ছে পূরণের দায়িত্ব নতুন প্রজন্ম গ্রহণ করবে…।

এমন ভেবে যদি পালন ও শাসনের দায়িত্ব নেওয়া হয় তা হলে পুরো ব্যাপারটাই কিন্তু ‘ঘেঁটে ঘ’ হয়ে যাবে। তাই কিছু বিষয়ে অভিভাবকদের অবশ্যই সচেতন ও যত্নশীল হতে হবে।

Loading videos...

১) মাতৃভাষা না শেখানো

আজকাল ট্রেন্ড হয়েছে ইংরাজি মাধ্যমের স্কুলে পড়ানো, ফলে যেটা হচ্ছে মাতৃভাষা সম্পর্কে ধারণাই হচ্ছে না ছোটোদের। মাতৃভাষা না জানাকে স্মার্টনেসের বৈশিষ্ট্য মনে করছে তারা। বাবা-মায়েরাও গর্বিত হন বহু ক্ষেত্রে। এটি সম্পূর্ণ ভুল একটি পদক্ষেপ। তাই মাতৃভাষা সব থেকে আগে আত্মস্থ করে তার পর অন্যান্য ভাষার প্রতি মনোযোগ দিতে হবে।

২) ভালো ও খারাপ স্পর্শ না বোঝানো

বেশির ভাগ বাবা-মাই ছোটোদের ভালো স্পর্শ বা খারাপ স্পর্শের ব্যাপারে কোনো কথাই শেখান না। হয় বিষয়টি আড়াল করেন অথবা গুরুত্ব দেন না। কিন্তু এটিই হল শিশুদের যৌন হেনস্থা হওয়ার, চরম দুঃখজনক পরিণতি পাওয়ার অন্যতম ও বড়ো কারণ। ছেলে হোক বা মেয়ে উভয়েই যৌন নির্যাতনের শিকার হয়। তাই কথা বুঝতে পারার বয়সে পৌঁছোনোর পর থেকেই তাদের গুড টাচ বা ব্যাড টাচ নিয়ে সচেতন করতে হবে। শুধু এক বার নয়, বারংবার তাদের বিষয়গুলি মনে করিয়ে দিতে হবে। পাশাপাশি যে কোনো ঘটনাই যেন লুকিয়ে না রেখে, বাবা-মায়ের দায়িত্ব হল সব কিছু খুলে বলে সেই বিষয়েও বার বার শেখাতে হবে।

৩) আত্মরক্ষার প্রশিক্ষণ না দেওয়া

ছোটোদের পড়াশোনার পাশাপাশি অভিভাবকরা অনেক কিছুই শেখান। কিন্তু বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই শেখানো হয় না আত্মরক্ষার উপায়। বর্তমান পরিস্থিতি ও আত্মরক্ষার কারণে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হল ক্যারাটের মতো কোনো মার্শাল আর্ট শেখা। অভিভাবকরা সঙ্গে না থাকলে নিজেদের বাঁচানোর জন্য এইগুলি সব থেকে বেশি কাজে দেবে।

৪) অন্ধ ভালোবাসা

অনেক অভিভাবককেই দেখা যায় নিজের সন্তানকে অন্ধের মতো সমর্থন করে যান। অন্যায় করলেও শুধরে দেন না, শাসন করেন না। এতে ছোটোরা ভুল পথে চালিত হয়। বাবা-মায়ের এই অন্ধ ভালোবাসা তাদের ভবিষ্যৎকে অন্ধকারে ঠেলে দেয়। তাই শিশুরা ভুল করলে তাদের শাসন করুন। তারা যা ভুল করেছে সেটা বুঝিয়ে বলুন।

৫) গম্ভীর সম্পর্কের বর্ম

অনেক পরিবারের অভিভাবকরা এক গম্ভীর সম্পর্কের বর্ম পরে থাকেন। সেখানে শিশুরা মন খুলে নিঃশ্বাস নিতে পারে না। সব সময় ভয়ে কাঁটা হয়ে থাকে। কোনো সমস্যায় পড়লেও তা মন খুলে অভিভাবকদের জানায় না। এই বিষয়টা এক দম ঠিক নয়। তাদের সঙ্গে যেমন শাসনের সম্পর্ক রাখতে হবে তেমনই বন্ধুত্বের সম্পর্কও রাখতে হবে। তা না হলে কোনো ভুল করলে যেমন শোধরানো যাবে না। বাবামায়ের সঙ্গে দূরত্বের কারণে তেমনই তারা নিজেরা কোনো বিপদে পড়লে তা থেকে মুক্তও করা যাবে না।

পড়ুন – বাবা হিসাবে আপনিও এই কাজগুলি করছেন তো?

আরও পড়ুন – শিশুসন্তানের সঙ্গে বাবা-মায়েরা কী রকম আচরণ করবেন

Continue Reading

জীবন যেমন

সম্পর্কের মধ্যে দৃঢ়তা বাড়াতে চান? মেনে চলুন এই পদ্ধতি

Published

on

খবর অনলাইন ডেস্ক: আজকাল সাধারণ ভাবে সকলেই খুব ব্যস্ত। সঙ্গের মানুষটির সঙ্গেই কথা বলার সময় দিনের মধ্যে হাতে বাঁধা কয়েক মিনিট। তাই অনেক সম্পর্কই কেমন  যেন ফ্যাকাসে হয়ে যাচ্ছে। তাই সম্পর্কের মধ্যে নতুন করে স্পার্ক আনতে ও দৃঢ়তা বাড়াতে এই কয়েকটি টিপ সুযোগ পেলে মেনে চলতে পারেন।

১। সঙ্গীর প্রতি আগ্রহ প্রকাশ

জীবন এখন খুব আত্মকেন্দ্রিক। এক সঙ্গে থাকলেও নিজেদের কাজের, পেশার চিন্তা করতে করতে করতে সময় কেটে যায়। তাই পাশের মানুষটির দিকে তাকানোর বা তার জীবন সম্পর্কে আগ্রহ প্রকাশ করার বা সময় অসময়ে পাশে থাকা হয়ে ওঠে না। তাই তাকে বুঝে ওঠাও হয়ে ওঠে না। সমস্যা বাড়তে থাকে। দিনের মধ্যে কিছুটা সময় নিয়ম করে তাকে দিন, কথা বলুন, তার প্রতি আগ্রহ প্রকাশ করুন।

Loading videos...

২। আমি, তুমি ও স্মার্ট ফোন

আজকাল গেম খেলার আকর্ষণ বা সোশ্যাল মিডিয়া চ্যাট বা নিজের কাজের কারণ যে কোনো কারণেই স্মার্টফোন আমাদের জীবনের বহু মূল্যবান সময় কেড়ে নিয়েছে। ফাঁকা সময়ও আমরা স্মার্টফনে মুখ গুঁজে কাটিয়ে দিই। এটিও সম্পর্ক খারাপ হওয়ার একটি অন্যতম কারণ। তাই স্মার্টফোনকে যথাসম্ভব মাঝে ঢুকতে দেবেন না। তা বন্ধ রাখুন। না হলে দূরে রাখুন। এই কাজটা খুব গুরুত্বপূর্ণ।

৩। কমন ফ্যাক্টর খুঁজে বের করুন  

সকলের সখ আলাদা হয়, স্বভাবও। এক জন চুপচাপ হলে অন্য জন বকবক করতে ভালোবাসেন। কিন্তু তা সত্বেও চেষ্টা করুন কোনো কোনো বিষয়ে দুই জনের মিল খুঁজে বার করতে। তা না হলেও একে অপরকে নিজেদের সখ পূরণে সঙ্গে রাখুন। এতে দাম্পত্যের বন্ধন অটুট হয়। এটা আপনাদের ঘনিষ্ঠতা বাড়াবে। 

৪। সাধারণ কাজগুলি এক সঙ্গে করুন

কাজের জন্য সারা দিন সময় কাটান আলাদা। আলাদা থাকতে বাধ্য হন। তাই বাকি সময়টা এক সঙ্গে থাকার চেষ্টা করুন। সে ক্ষেত্রে এক সঙ্গে খেতে বসতে পারেন। এক সঙ্গে ঘুমোতে যাওয়ার নিয়মটিও বেশ কাজের। এমনটি করতে পারলে ভালো সময় কাটানোর জন্য আলাদা করে সময় বের করতে হয় না। এই বিষয়টি নিজেই সম্পর্ক ভালো করতে সাহায্য করে।

৫। রোমান্সকে তুচ্ছ মনে করবেন না

হতেই পারে দু’ জনেই খুবই বাস্তববাদী। তবুও প্রেম, ভালোবাসার ওপর থেকে ভরসা হারাবেন না। জীবনে এর প্রয়োজনও কম নয়। তাই কারণে অকারণে সঙ্গীকে ‘ভালোবাসি’ বলুন। তাকে চমকে দেওয়ার, আনন্দ দেওয়ার জন্য নিত্য নতুন উপায় বের করুন। নিজেকে রোমান্টিক করে তুলুন। রাতে বেড়াতে যাওয়ার পরিকল্পনা করুন, বাড়িতেই আমেজ করে দু’ জনের খাওয়াদাওয়ার আয়োজন করুন। মাঝে মধ্যে ছোটোখাটো ঘুরতে যাওয়ার প্ল্যান করুন, এক আধ দিন বাইরে খান। অথবা রাতে শোওয়ার সময়টাকে আনন্দময় করে তুলুন। দেখবেন পাশের মানুষটিও বাস্তবতার আবরণ ছেড়ে আপনার সঙ্গে তালে তাল মিলিয়ে আনন্দ করছে। এতে সম্পর্ক দৃঢ় হয়।

পড়ুন – বদরাগী মানুষের সঙ্গে সম্পর্ক সামলাবেন কী করে ? রইল টিপস

আরও – শিশুসন্তানের সঙ্গে বাবা-মা এই ভুল আচরণ প্রায়ই করে থাকেন

Continue Reading
Advertisement
Advertisement
বাংলাদেশ1 hour ago

Bengali new year: সবার আগে মানুষের জীবন, পয়লা বৈশাখের আনন্দ ঘরে বসে উপভোগ করুন: শেখ হাসিনা

রাজ্য5 hours ago

West Bengal Corona Update: ভোটের আবহে ভয়াবহ আকার নিচ্ছে কোভিড পরিস্থিতি, নতুন সংক্রমণ ৫ হাজারের দিকে

রাজ্য5 hours ago

নির্বাচনে জেতার জন্য তৃণমূল, বামফ্রন্ট বহিরাগতদের উপর নির্ভরশীল: অমিত শাহ

রাজ্য6 hours ago

Bengal Polls 2021: এ বার অনুব্রত মণ্ডলকে শোকজ নোটিশ নির্বাচন কমিশনের

দেশ6 hours ago

অভিবাসী শিশুদের অবস্থা জানাতে রাজ্যগুলিকে নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের

রাজ্য7 hours ago

Bengal Polls 2021: শুভেন্দু অধিকারীকে সতর্ক করল নির্বাচন কমিশন

রাজ্য8 hours ago

নজরে বিধানসভা/বরানগর: দেখে নিন ইতিহাস এবং সাম্প্রতিক তথ্য

দার্জিলিং9 hours ago

Bengal Polls 2021: এনআরসি নিয়ে বড়ো ঘোষণা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের

ধর্মকর্ম2 days ago

অন্নপূর্ণাপুজো: উত্তর কলকাতার পালবাড়ি ও বালিগঞ্জের ঘোষবাড়িতে চলছে জোর প্রস্তুতি

ভিডিও2 days ago

Bengal Polls 2021: বিধাননগরে মুখোমুখি টক্কর সুজিত বসু-সব্যসাচী দত্তর, ময়দানে জোট প্রার্থী অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়

ক্রিকেট1 day ago

IPL 2021: কাজে এল না সঞ্জু স্যামসনের মহাকাব্যিক শতরান, পঞ্জাবের কাছে হারল রাজস্থান

প্রবন্ধ1 day ago

First Man In Space: ইউরি গাগারিনের মহাকাশ বিজয়ের ৬০ বছর আজ, জেনে নিন কিছু আকর্ষণীয় তথ্য

দেশ2 days ago

Kumbh Mela 2021: করোনাবিধিকে শিকেয় তুলে এক লক্ষ মানুষের সমাগম, আজ কুম্ভের প্রথম শাহি স্নান হরিদ্বারে

Rahul Gandhi at Maldah rally
রাজ্য2 days ago

Bengal Polls 2021: পঞ্চম দফার ভোটের আগে রাজ্যে আসছেন রাহুল গান্ধী

বিনোদন2 days ago

ভার্চুয়ালি সাধ খেলেন ‘মম টু বি’ শ্রেয়া ঘোষাল, দেখুন মিষ্টি কিছু মুহূর্ত

রাজ্য2 days ago

Bengal Corona Update: নমুনা পরীক্ষার সঙ্গেই তাল মিলিয়ে বাড়ল বাংলার দৈনিক করোনা সংক্রমণ

ভোটকাহন

কেনাকাটা

কেনাকাটা3 weeks ago

বাজেট কম? তা হলে ৮ হাজার টাকার নীচে এই ৫টি স্মার্টফোন দেখতে পারেন

আট হাজার টাকার মধ্যেই দেখে নিতে পারেন দুর্দান্ত কিছু ফিচারের স্মার্টফোনগুলি।

কেনাকাটা2 months ago

সরস্বতী পুজোর পোশাক, ছোটোদের জন্য কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সরস্বতী পুজোয় প্রায় সব ছোটো ছেলেমেয়েই হলুদ লাল ও অন্যান্য রঙের শাড়ি, পাঞ্জাবিতে সেজে ওঠে। তাই ছোটোদের জন্য...

কেনাকাটা2 months ago

সরস্বতী পুজো স্পেশাল হলুদ শাড়ির নতুন কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সামনেই সরস্বতী পুজো। এই দিন বয়স নির্বিশেষে সবাই হলুদ রঙের পোশাকের প্রতি বেশি আকর্ষিত হয়। তাই হলুদ রঙের...

কেনাকাটা3 months ago

বাসন্তী রঙের পোশাক খুঁজছেন?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সামনেই আসছে সরস্বতী পুজো। সেই দিন হলুদ বা বাসন্তী রঙের পোশাক পরার একটা চল রয়েছে অনেকের মধ্যেই। ওই...

কেনাকাটা3 months ago

ঘরদোরের মেকওভার করতে চান? এগুলি খুবই উপযুক্ত

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ঘরদোর সব একঘেয়ে লাগছে? মেকওভার করুন সাধ্যের মধ্যে। নাগালের মধ্যে থাকা কয়েকটি আইটেম রইল অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন লেখার...

কেনাকাটা3 months ago

সিলিকন প্রোডাক্ট রোজের ব্যবহারের জন্য খুবই সুবিধেজনক

খবরঅনলাইন ডেস্ক: নিত্যপ্রয়োজনীয় বিভিন্ন সামগ্রী এখন সিলিকনের। এগুলির ব্যবহার যেমন সুবিধের তেমনই পরিষ্কার করাও সহজ। তেমনই কয়েকটি কাজের সামগ্রীর খোঁজ...

কেনাকাটা3 months ago

আরও কয়েকটি ব্র্যান্ডেড মেকআপ সামগ্রী ৯৯ টাকার মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আজ রইল আরও কয়েকটি ব্র্যান্ডেড মেকআপ সামগ্রী ৯৯ টাকার মধ্যে অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন লেখার সময় যে দাম ছিল...

কেনাকাটা3 months ago

রান্নাঘরের এই সামগ্রীগুলি কি আপনার সংগ্রহে আছে?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রান্নাঘরে বাসনপত্রের এমন অনেক সুবিধেজনক কালেকশন আছে যেগুলি থাকলে কাজ অনেক সহজ হয়ে যেতে পারে। এমনকি দেখতেও সুন্দর।...

কেনাকাটা3 months ago

৫০% পর্যন্ত ছাড় রয়েছে এই প্যান্ট্রি আইটেমগুলিতে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: দৈনন্দিন জীবনের নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসগুলির মধ্যে বেশ কিছু এখন পাওয়া যাচ্ছে প্রায় ৫০% বা তার বেশি ছাড়ে। তার মধ্যে...

কেনাকাটা3 months ago

ঘরের জন্য কয়েকটি খুবই প্রয়োজনীয় সামগ্রী

খবরঅনলাইন ডেস্ক: নিত্যদিনের প্রয়োজনীয় ও সুবিধাজনক বেশ কয়েকটি সামগ্রীর খোঁজ রইল অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদনটি লেখার সময় যে দাম ছিল তা-ই...

নজরে