Connect with us

ঘরদোর

ডিমের খোসা কি ফেলে দেন? রূপচর্চা ও ঘরকন্নায় এর ১০টি ব্যবহার তুলনাহীন

Published

on

egg

ওয়েবডেস্ক: প্রায় প্রত্যেকেই ডিমের খোসা ফেলে দেন। কিন্তু অনেকেই জানেন না ডিমের খোলার বহুমুখী ব্যবহার সম্বন্ধে। এতে যেমন ত্বক ঝকেঝকে হয়ে ওঠে তেমনই বাড়ির গাছে ফুলফলও ভরে ওঠে। তবে তার জন্য জানতে হবে তার ব্যবহার বিধি। আজ রইল তেমনই কয়েকটি টিপস।

১) টয়লেটের জন্য –

Loading videos...

ঘরের মেঝেতে হওয়া নতুন পুরানো যে কোনো দাগ বা টয়লেট প্যান, বেসিনের নোংরা দাগ তুলতে ডিমের খোসার কোনো তুলনা হয় না। তাই ডিমের খোসা এখন থেকে আর ফেলবেন না। জমিয়ে রাখুন। বেশ খানিকটা জমে গেলে তা গুঁড়ো করে নিন ও প্রয়োজন মতো ব্যবহার করুন।

২) মাটির সার –

আজকাল প্রায় অনেক বাড়িতেই কমবেশি গাছপালা থাকে। সেই গাছপালার পুষ্টির জন্যও ডিমের খোলা ভালো। ডিমের খোলা গুঁড়ো গাছের নীচের মাটিতে ছড়িয়ে দিলে তাতে মাটি যেমন উর্বর হবে, তেমনই গাছের পুষ্টিও বৃদ্ধি করবে। ফলে ফুলে-ফলে গাছ ভরে যাবে।

৩) কীটনাশক –

গাছের গোড়ায় ডিমের খোসা গুঁড়ো দিলে তা কীটনাশক হিসাবে কাজ করে। এতে গাছের ডালে বা পাতায় পোকার উপদ্রব বন্ধ হবে।   

৪) আটকে যাওয়া নর্দমা –

রান্না ঘরের বেসিনের পাইপ প্রায়ই জমে যায়। জল নামতে চায় না। এমন পরিস্থিতিতে কিছুটা ডিমের খোলার মিহি গুঁড়ো নলের মুখে দিয়ে দিতে হবে। এর পর বেশি করে জল ঢেলে দিলেই দেখবেন চটপট ময়লা কেটে জল বেরিয়ে যাচ্ছে। পাইপ পরিষ্কার হয়ে গিয়েছে।

৫) বাসন মাজাতে –

হাঁড়ি-কড়ার নীচে প্রায়ই কালো পোড়া দাগ ধরে নেয়। সেই দাগ তুলতে খুবই কসরত করতে হয়। কিন্তু এই কঠিন দাগই সহজে দূর হয়ে যেতে পারে ডিমের গুঁড়োর সাহায্যে। বাসন মাজার সাবানের সঙ্গে কিছুটা ডিমের খোলা গুঁড়ো মিশিয়ে নিয়ে মাজলে কম পরিশ্রমে বাসন ঝকঝকে হয়ে যাবে।

আরও পড়ুন – বয়স ধরে রাখতে জাপানিদের ভাতের প্যাক

৬) জামাকাপড় কাচতে –

ডিমের খোলা ডিটার্জেন্ট সাবানের সঙ্গে ব্যবহার করা যায়। এতে সাদা জামাকাপড়ের হারিয়ে যাওয়া ধবধবে ভাব আবার ফিরে আসবে।

৭) কফিতে –

অনেকে কফি খেতে ভালোবাসেন না তেঁতো স্বাদের জন্য। কিন্তু জানেন কি কফির মধ্যে সামান্য পরিমাণ ডিমের খোসার মিহি চূর্ণ দিলে তেতো ভাব কেটে যায়। খেতেও সমস্যা হয় না।    

৮) ক্যালসিয়াম হিসাবে –

ডিমের খোসায় আছে প্রচুর পরিমাণ ক্যালসিয়াম। তা ছাড়াও রয়েছে আয়রন, কপার, ম্যাঙ্গানিজ, জিঙ্ক, ফ্লোরিন, ক্রোমিয়াম ও মলিবডেনাম। তাই একে ফেলে ফেলে দেওয়া মোটেই বুদ্ধিমানের কাজ নয়। একে উনানে ভালোভাবে সেদ্ধ করে নিয়ে অথবা খুব ভালো করে গরম করে নিয়ে গুঁড়ো করে নিতে হবে। এই গুঁড়ো লেবুর রস বা ভিনিগারের সঙ্গে মিশিয়ে রান্নার কাজে ও স্যালাডে ব্যবহার করা যেতে পারে।

৯) বাতের ব্যথায় –

অনেক দিন ধরে বাতের ব্যথায় ভুগছেন? কোনো কিছুতেই কোনো কাজ হচ্ছে না? এক বার ডিমের খোসা ব্যবহার করে দেখুন। এতে রয়েছে ব্যথা নাশক কোলাজেন ও গ্লুকোসামিন। ব্যথা কমবে। তার জন্য একটি পাত্রে অ্যাপল সাইডার ভিনিগার নিতে হবে। তার মধ্যে একটি গোটা ডিমের খোসা গুঁড়ো মিশিয়ে নিতে হবে। এটি ভিনিগারের মধ্যে এক দম গুলে যাবে। তার জন্য অবশ্য কয়েক দিন সময় লাগবে। সেই মিশে যাওয়ার পর তা ব্যথার জায়গায় ভালো করে লাগিয়ে নিন।  

১০) ত্বকের যত্নে –

রূপচর্চাতেও ডিমের খোসার তুলনা নেই। ত্বকের জন্য প্যাক তৈরি করতে লাগবে একটি গোটা ডিমের পুরো সাদা অংশটি, সঙ্গে দুইটি ডিমের খোসা গুঁড়ো। এ বার দুইটি উপকরণকে ভালো করে মিশিয়ে নিয়ে মুখে গলায় লাগিয়ে রাখতে হবে। প্যাকটি শুকিয়ে এলে সামান্য গরম জল দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে। এই ভাবে কয়েক বার ব্যবহারেই ফল হাতে হাতে পাওয়া যাবে। ত্বক কোমল, মসৃণ উজ্জ্বল হয়ে উঠবে। কালো দাগ দূর হবে।

ঘরদোর

বাড়িতে ধনেপাতার চাষ করতে চান? দেখে নিন পদ্ধতি পদ্ধতি

Published

on

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ধনেপাতার অনেক গুণ। খেতেও ভালো। তাই এর অনুরাগীর সংখ্যা অসংখ্য। কাঁচা, রান্না করা, বাটা – সব রকমেরই তুলনা নেই। কিন্তু মরশুম চলে গেলে দাম অনেকটাই বেড়ে যায়। তখন এটি খাওয়া ও ব্যবহার কমাতে বাধ্য হতে হয়। তাই যদি নিজের ছাদ বা বারান্দার বাগানে এটি সারা বছর চাষ করা যায় সুবিধে অনেক হয়।  

উপযুক্ত মরশুম – সেপ্টেম্বর থেকে ডিসেম্বর। তবে সারা বছরই টবে চাষ করতে পারেন।

Loading videos...

ধনেপাতা সব মাটিতেই হয়। তবে এঁটেল ও দো-আঁশ মাটি বেশি ভালো। মাটিতে গোবর সার, পাতা পচা সার, বা রান্নাঘরের ফেলে দেওয়া সবজির খোসাও সার হিসেবে দিতে পারেন।

দোকান বা কোনো নার্সারি থেকে ধনের বীজ কিনে রাত্রিবেলা জলে ভিজিয়ে রাখুন। পরের দিন বীজ মাটিতে ফেলুন। বলে রাখা ভালো, ট্রের মতো বা থালার মতো ছড়ানো টব হলে ভালো হয়।

বীজগুলি ছড়িয়ে হালকা মাটি চাপা দিয়ে দিন। জল ছিটিয়ে মাটি ভালো করে ভিজিয়ে দিন। খেয়াল রাখবেন যেন মাটিতে পিঁপড়ে না হয়। তার জন্য টবের চারপাশে পিঁপড়ের ওষুধ ছড়িয়ে দিন।

অল্প সময়ের মধ্যেই চারা জন্মাবে। একটি টবে অনেক গাছ হলে তা তুলে অন্য একটি টবে লাগান।

গাছের গোড়ায় আগাছা হলে পরিষ্কার করুন। বৃষ্টির দিনে বেশি জল না দেওয়াই ভালো। সব সময় খেয়াল রাখুন গোড়ায় যেন জল না দাঁড়ায়।  

আরও – ঘরের বায়ুদূষণ আটকাতে লাগান এই গাছগুলি

Continue Reading

ঘরদোর

এই ৭টি মিথ্যে বাঁচিয়ে দিতে পারে আপনার সম্পর্কটি

Published

on

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আমাদের চার পাশের প্রত্যেক মানুষই কোনো না কোনো সম্পর্কের ভিত্তিতেই আমাদের সঙ্গে জড়িয়ে আছে। এই সম্পর্ক টিকিয়ে রাখাটাই বড়ো কথা। তা যদি হয় স্বামী-স্ত্রী বা প্রেমিকপ্রেমিকার সম্পর্ক তা হলে তো আরও জটিল, আবার ভঙ্গুরও। তাই ভালোবাসার গভীরতা থাকা সত্ত্বেও সামান্য অভিমানের কারণে সম্পর্ক ভেঙে যায়।

তাই সম্পর্ক মজবুত করতে অনেক কিছুই করতে হয়, তেমনই একটি উপায় হল এক আধটা মিষ্টি মিথ্যে বলা। বিশেষ করে দাম্পত্য বা প্রেমের সম্পর্কে এই মিথ্যে বেশ উপকারী। তবে মনে রাখবেন মিথ্যে বলাটাও কিন্তু একটি আর্ট। মিথ্যে বলুন সত্যির মতো করেই –

Loading videos...

১। প্রশংসা শুনতে সকলেই ভালোবাসে। তাই সঙ্গী বা সঙ্গিনীর চেহারা বা সাজগোজ হাসি ইত্যাদি নিয়ে বেশি বেশি প্রশংসা করুন, দারুণ লাগছে বলুন।

২। রান্না খারাপ হলেও বলুন ভালো হয়েছে। সাধ করে রেঁধে খাওয়াচ্ছে যখন, মুখের ওপর খারাপ নাই বা বললেন। তাই প্রথম কয়েক বার মিথ্যে বলাই ভালো। তবে খারাপ রান্না সহ্যের বাইরে গেলে অন্য ভাবে বুঝিয়ে বলুন।

৩। অনেকেই উপহার দিতে এবং পেতে ভালোবাসেন। তেমন উপহার আপনি পেলে তা পছন্দ না হলেও বলুন সুন্দর হয়েছে, খুব পছন্দ হয়েছে। এতে তার মন খারাপ হবে না। ঝগড়াও এড়ানো যাবে। পারলে আপনিও মাঝে মধ্যে এক আধটা উপহার দিন।

৪। অনেকেই ঠিকমতো হাসাতে পারে না। আপনার সঙ্গের মানুষটি যদি রসিকতা করেন কিন্তু কারোর হাসি না পায় তা হলেও আপনি হাসুন। খুব মজা লেগেছে বলুন। তাতে তিনি খুশি হবেন। তাঁর বুদ্ধিমত্তাকেও আঘাত করা হবে না। তাই মিথ্যে মিথ্যে হলেও হাসুন।

৫। আপনার পছন্দের না হলেও সঙ্গী বা সঙ্গিনী কোনো ছবি এক সঙ্গে দেখার আবদার করলে দেখুন। বারণ করবেন না। বরং আগ্রহ দেখান।

৬। সকলের সব কথা সব সময় সঠিক হয় না। কিন্তু সেটি মুখের ওপর বলা সব সময় ঠিক হবে না। তাই কিছু ক্ষেত্রে বিষয়টি এড়িয়ে যান। কিছু ক্ষেত্রে হালকা ভাবে বুঝিয়ে মত পরিবর্তন করান। অথবা কিছু ক্ষেত্রে মনমতো না হলেও বিষয়ের গুরুত্ব বুঝে হ্যাঁয়ে হ্যাঁ মেলানোই ঠিক হবে।

৭। পরিবারের কাউকে পছন্দ না হলেও তাকে নিয়ে নিন্দে না করাই ভালো।  

আরও – সন্তানের সঙ্গে এই ৫টি ভুল কখনওই করবেন না

Continue Reading

ঘরদোর

ল্যাপটপ ব্যবহার করেন? তা হলে সাবধান হন

ল্যাপটপের পরিচর্যার ১০টি কৌশল, জেনে নিন এখানে…

Published

on

খবর অনলাইন ডেস্ক : কমবেশি অনেক বাড়িতেই ল্যাপটপ, কম্পিউটারের জনপ্রিয় তো ছিলই এখন ‘ওয়ার্ক ফ্রম হোম’ ও অনলাইনে পড়াশোনা শুরু হওয়ার সুবাদে বাড়িতে এই সদস্যের জায়গাটা আরও পাকা হয়ে গিয়েছে। কেউ এগুলি বহুদিন ব্যবহার করতে করতে পক্ত হয়ে গিয়েছেন। কারোর বা হাতেখড়ি হয়েছে।

যাই হোক না কেন এর বাড়তি কিছু যত্নও পাওনা। কারণ কম্পিউটার ল্যাপটপের আয়ু বাড়াতে দরকার সঠিক পরিচর্যা। যা হোক তা হোক করে ব্যবহার করলে এগুলির ক্ষতি হয়।

Loading videos...

ল্যাপটপের পরিচর্যার ১০টি কৌশল

১। প্রথম কথাই হল ল্যাপটপ ব্যবহার করতে হবে খুব সাবধানে ধৈর্য্য ধরে। কারণ জিনিসটি খুবই পলকা ও সূক্ষ্ম যন্ত্রাংশ দিয়ে তৈরি।

২। জল হাতে ল্যাপটপ ব্যবহার করা চলবে না। তাতে ডিভাইসটি নষ্ট হয়ে যাবে।

৩। খেতে খেতে বা নোংরা হাতে ল্যাপটপ ব্যবহার করবেন না। ল্যাপটপের কি-প্যাড ও টাচ প্যাডে সেই নোংরা জমা হবে। তাই হাত পরিষ্কার করে এটি ব্যবহার করুন।

৪। বন্ধ ল্যাপটপের ওপর ভারি বস্তু রাখবেন না। তাতে মনিটরের পর্দার  ওপর কি প্যাডের চাপ পড়ে ক্ষতি হয়। সঙ্গে সিডির জায়গাটাও বেঁকে যেতে পারে।

৫। ল্যাপটপটি বন্ধ করার সময় একবার পরিষ্কার করে নিন। কারণ কোনো ছোটো কণা থেকে গেলেও তা এলসিডি স্ক্রিনের ক্ষতি করবে, দাগ সৃষ্টি করবে।

৬। অনেকেই খেতে খেতে ল্যাপটপ নিয়ে কাজ করেন। এতে অনেক সময়ই কি প্যাডের মধ্যে খাবারের ছোট্টো কণা ঢুকে যায়। তাতে জিনিসটি নোংরা যেমন হয়, নষ্টও হতে পারে।

৬। তরল পদার্থ চা, কফি, সফট ড্রিংস, জল, দুধ ইত্যাদি ল্যাপটপ থেকে দূরে রাখুন। ভুল বশত উলটে গেলে তা ডিভাইসটি নষ্ট করে দিতে পারে।

৭। নরম কাপড় দিয়ে পরিষ্কার করুন। কি প্যাডের জন্য নরম ব্রাশ ব্যবহার করুন।

৮। বন্ধ করার ও খোলার সময় মাথার মাঝখান ধরে বন্ধ করুন। শুধু দু’ পাশ ধরে বন্ধ করবেন না। বেঁকে যেতে পারে।

৯। আরাম করে  বিছানায় বসে বা শুয়ে ল্যাপটপ ব্যবহার করে থাকেন অনেকে। এই পদ্ধতিটি ঠিক নয়। এতে শরীর ও ল্যাপটপ দু’য়েরই ক্ষতি হয়।

১০। নজর রাখুন চার্জ আছে কি না। উপযুক্ত সময়ে চার্জ দিন না হলে অল্প দিনের মধ্যেই এর ক্ষতি অবশ্যম্ভাবী।

আরও – হেয়ার ড্রায়ার কেনার আগে দেখে নিন এই বিষয়গুলি

Continue Reading
Advertisement
Advertisement
বাংলাদেশ4 hours ago

Bengali new year: সবার আগে মানুষের জীবন, পয়লা বৈশাখের আনন্দ ঘরে বসে উপভোগ করুন: শেখ হাসিনা

রাজ্য8 hours ago

West Bengal Corona Update: ভোটের আবহে ভয়াবহ আকার নিচ্ছে কোভিড পরিস্থিতি, নতুন সংক্রমণ ৫ হাজারের দিকে

রাজ্য8 hours ago

নির্বাচনে জেতার জন্য তৃণমূল, বামফ্রন্ট বহিরাগতদের উপর নির্ভরশীল: অমিত শাহ

রাজ্য9 hours ago

Bengal Polls 2021: এ বার অনুব্রত মণ্ডলকে শোকজ নোটিশ নির্বাচন কমিশনের

দেশ9 hours ago

অভিবাসী শিশুদের অবস্থা জানাতে রাজ্যগুলিকে নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের

রাজ্য10 hours ago

Bengal Polls 2021: শুভেন্দু অধিকারীকে সতর্ক করল নির্বাচন কমিশন

রাজ্য11 hours ago

নজরে বিধানসভা/বরানগর: দেখে নিন ইতিহাস এবং সাম্প্রতিক তথ্য

দার্জিলিং11 hours ago

Bengal Polls 2021: এনআরসি নিয়ে বড়ো ঘোষণা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের

ধর্মকর্ম2 days ago

অন্নপূর্ণাপুজো: উত্তর কলকাতার পালবাড়ি ও বালিগঞ্জের ঘোষবাড়িতে চলছে জোর প্রস্তুতি

ভিডিও2 days ago

Bengal Polls 2021: বিধাননগরে মুখোমুখি টক্কর সুজিত বসু-সব্যসাচী দত্তর, ময়দানে জোট প্রার্থী অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়

ক্রিকেট1 day ago

IPL 2021: কাজে এল না সঞ্জু স্যামসনের মহাকাব্যিক শতরান, পঞ্জাবের কাছে হারল রাজস্থান

প্রবন্ধ2 days ago

First Man In Space: ইউরি গাগারিনের মহাকাশ বিজয়ের ৬০ বছর আজ, জেনে নিন কিছু আকর্ষণীয় তথ্য

দেশ2 days ago

Kumbh Mela 2021: করোনাবিধিকে শিকেয় তুলে এক লক্ষ মানুষের সমাগম, আজ কুম্ভের প্রথম শাহি স্নান হরিদ্বারে

Rahul Gandhi at Maldah rally
রাজ্য2 days ago

Bengal Polls 2021: পঞ্চম দফার ভোটের আগে রাজ্যে আসছেন রাহুল গান্ধী

বিনোদন2 days ago

ভার্চুয়ালি সাধ খেলেন ‘মম টু বি’ শ্রেয়া ঘোষাল, দেখুন মিষ্টি কিছু মুহূর্ত

রাজ্য2 days ago

Bengal Corona Update: নমুনা পরীক্ষার সঙ্গেই তাল মিলিয়ে বাড়ল বাংলার দৈনিক করোনা সংক্রমণ

ভোটকাহন

কেনাকাটা

কেনাকাটা3 weeks ago

বাজেট কম? তা হলে ৮ হাজার টাকার নীচে এই ৫টি স্মার্টফোন দেখতে পারেন

আট হাজার টাকার মধ্যেই দেখে নিতে পারেন দুর্দান্ত কিছু ফিচারের স্মার্টফোনগুলি।

কেনাকাটা2 months ago

সরস্বতী পুজোর পোশাক, ছোটোদের জন্য কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সরস্বতী পুজোয় প্রায় সব ছোটো ছেলেমেয়েই হলুদ লাল ও অন্যান্য রঙের শাড়ি, পাঞ্জাবিতে সেজে ওঠে। তাই ছোটোদের জন্য...

কেনাকাটা2 months ago

সরস্বতী পুজো স্পেশাল হলুদ শাড়ির নতুন কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সামনেই সরস্বতী পুজো। এই দিন বয়স নির্বিশেষে সবাই হলুদ রঙের পোশাকের প্রতি বেশি আকর্ষিত হয়। তাই হলুদ রঙের...

কেনাকাটা3 months ago

বাসন্তী রঙের পোশাক খুঁজছেন?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সামনেই আসছে সরস্বতী পুজো। সেই দিন হলুদ বা বাসন্তী রঙের পোশাক পরার একটা চল রয়েছে অনেকের মধ্যেই। ওই...

কেনাকাটা3 months ago

ঘরদোরের মেকওভার করতে চান? এগুলি খুবই উপযুক্ত

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ঘরদোর সব একঘেয়ে লাগছে? মেকওভার করুন সাধ্যের মধ্যে। নাগালের মধ্যে থাকা কয়েকটি আইটেম রইল অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন লেখার...

কেনাকাটা3 months ago

সিলিকন প্রোডাক্ট রোজের ব্যবহারের জন্য খুবই সুবিধেজনক

খবরঅনলাইন ডেস্ক: নিত্যপ্রয়োজনীয় বিভিন্ন সামগ্রী এখন সিলিকনের। এগুলির ব্যবহার যেমন সুবিধের তেমনই পরিষ্কার করাও সহজ। তেমনই কয়েকটি কাজের সামগ্রীর খোঁজ...

কেনাকাটা3 months ago

আরও কয়েকটি ব্র্যান্ডেড মেকআপ সামগ্রী ৯৯ টাকার মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আজ রইল আরও কয়েকটি ব্র্যান্ডেড মেকআপ সামগ্রী ৯৯ টাকার মধ্যে অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন লেখার সময় যে দাম ছিল...

কেনাকাটা3 months ago

রান্নাঘরের এই সামগ্রীগুলি কি আপনার সংগ্রহে আছে?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রান্নাঘরে বাসনপত্রের এমন অনেক সুবিধেজনক কালেকশন আছে যেগুলি থাকলে কাজ অনেক সহজ হয়ে যেতে পারে। এমনকি দেখতেও সুন্দর।...

কেনাকাটা3 months ago

৫০% পর্যন্ত ছাড় রয়েছে এই প্যান্ট্রি আইটেমগুলিতে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: দৈনন্দিন জীবনের নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসগুলির মধ্যে বেশ কিছু এখন পাওয়া যাচ্ছে প্রায় ৫০% বা তার বেশি ছাড়ে। তার মধ্যে...

কেনাকাটা3 months ago

ঘরের জন্য কয়েকটি খুবই প্রয়োজনীয় সামগ্রী

খবরঅনলাইন ডেস্ক: নিত্যদিনের প্রয়োজনীয় ও সুবিধাজনক বেশ কয়েকটি সামগ্রীর খোঁজ রইল অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদনটি লেখার সময় যে দাম ছিল তা-ই...

নজরে