diet

ওয়েবডেস্ক: খাওয়া-দাওয়া যত দূর সম্ভব বর্জন করলে যে ওজন কমে যায়, এটা আসলে একটা কিংবদন্তি। না খেয়ে আদতে শরীরকে ঠেলে দেওয়া হয় হরেক অসুখের দিকে। তাই খাবারের ব্যাপারটা ঠিক রেখেই ওজন কমানোর দিকে মন দেওয়া উচিত।

তা ছাড়া এমন অনেক খাবার আছে, যা ওজন কমিয়ে দেয় আপসেই। সে রকমই ১২টি হাই প্রোটিনযুক্ত খাবারের দিকে নজর দেওয়া যাক এক এক করে।

পালং শাক:

spinach

পালং শাকে যেমন প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন আছে, তেমনই আছে ভিটামিন এ আর সি। সঙ্গে আছে অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট উপাদান। সব কটাই কিন্তু চটপট ওজন কমাতে সাহায্য করে।

ব্রকোলি:

ব্রকোলিতে আছে প্রোটিন, ভিটামিন বি৫, ম্যাগনেসিয়াম আর ওমেগা ৩ ফ্যাটি অ্যাসিড যা দ্রুত মেদ ঝরাতে সাহায্য করে।

ছোলা:

কাঁচা ছোলায় প্রোটিনের পাশাপাশি আছে হাই ফাইবারও। খেয়াল করে দেখুন, শরীরে মেদ না জমাতে সকালে কাঁচা ছোলা খাওয়ার নিদান কিন্তু পুরনো প্রথা!

ডিম:

ভিটামিন বি২, বি১২ আর অবশ্যই প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন! এই সব কিছুর সঙ্গতে ডিমের পুষ্টিগুণ কিন্তু শরীরে মেদ জমতে দেয় না!

পনির:

পনির বা কটেজ চিজ যেমন সুস্বাদু, তেমনই প্রোটিনের খনি! পাশাপাশি তা শরীরকেও রাখে মেদহীন!

ডাল:

প্রোটিন, ম্যাগনেসিয়াম আর আয়রন- এই তিনের সমন্বয় পাওয়া যায় ডালে, যা রোজ খেলে শরীরে মেদ জমার প্রশ্নটাই উঠবে না!

মটরশুটি:

মটরশুটিও প্রোটিনের পাশাপাশি অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের আকর যা শরীরকে মেদহীন করে তোলে।

চিকেন:

যেমন সুস্বাদু, তেমনই প্রোটিনের জোগান ঠিক রেখে শরীরকে মেদহীন রাখে। তবে হ্যাঁ, ভাজাভুজি হিসাবে নয়, হালকা ঝোল বা রোস্ট করে খেলে তবেই!

দানাশস্য:

চানা, রাজমা, দালিয়ার মতো দানাশস্যও শরীরে প্রচুর পরিমাণে প্রোটিনের জোগান দিয়ে তাকে মেদহীন রাখে।

দই:

সাদা দই অবশ্যই, ঘরে পাতা! রোজ খেতে পারলে মেদ শরীরে জমার সাহসই পাবে না!

চিয়া:

বিশেষ ধরনের এই বীজের মধ্যেও রয়েছে প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন। পাশাপাশি, এটি শরীরে যাওয়ার পর অতিরিক্ত মেদ গলিয়ে দেয়।

আমন্ড:

অন্য বাদাম নয়, একমাত্র আমন্ডেরই রয়েছে শরীরকে মেদহীন রাখার ক্ষমতা! নিয়ম করে মাসখানেক খেয়েই দেখুন না!

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here