ব্রেকআপের পর এই ৫টি কাজ করা বন্ধ করুন

ওয়েবডেস্ক: যতবার প্রেম আসে, ততবার যেন জীবনের মানেটাই একেবারে বদলে যায়। কিন্তু সম্পর্কের মোড় যখন বিচ্ছেদের দিকে এগোয় তা যেন কালবৈশাখীর ঝড়ের দাপটের মতো সব কিছু পাল্টে দেয়।

কিন্তু তার মানে সর্বক্ষণ প্রাক্তন প্রেমিকের ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম ঘেঁটে দেখা ও তাঁর প্রতিটি লাইক, প্রতিটি স্টেটাস, প্রতিটি ছবির চুলচেরা বিশ্লেষণ এইসব করা বন্ধ করুন। সমস্যা হল, তাঁরা বোঝেন না, এই কাজটা করতে গিয়ে নিজেকেই আরও কষ্ট দেওয়া হয়। প্রেমিকের সোশাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টে হুমড়ি খেয়ে পড়ে থেকে যন্ত্রণা হয়তো সাময়িকভাবে ভুলে থাকা যায়, কিন্তু একইসঙ্গে কিছুতেই ব্যাপারটা থেকে বেরোনো সম্ভব হয় না।

তাই ব্রেকআপের পরে পুরোনো স্মৃতি না ঘেঁটে, যত তাড়াতাড়ি সম্ভব স্বাভাবিক জীবনে ফেরা দরকার এবং তার মধ্যে সোশাল মিডিয়াও পড়ে৷ সবচেয়ে বড়ো কথা, নিজে মানসিকভাবে সুস্থ থাকার জন্যও প্রাক্তন প্রেমিকের থেকে সবরকমভাবে দূরত্ব বজায় রাখা দরকার৷

ব্রেকআপের পরে সোশাল মিডিয়ায় কেমন হওয়া উচিত আপনার আচরণ?

১। সারাক্ষণ স্ন্যাপচ্যাট আপডেট নয়

প্রেম ভাঙার পর অনেক মেয়েই দেখাতে চান তাঁরা আসলে কতটা ভালো আছেন৷ এর পিছনে তাঁদের একটাই মানসিকতা কাজ করে, প্রাক্তন প্রেমিকের ঈর্ষা জাগিয়ে তোলা৷ তাই ঘণ্টায় ঘণ্টায় বন্ধুদের সঙ্গে পার্টি, সাজগোজ, হুল্লোড়ের ছবি পোস্ট করতে থাকেন তাঁরা৷ বুঝতে হবে, এ সব করে কিন্তু আপনি নিজেকে ছোটো করছেন।

২। সোশাল মিডিয়ায় প্রাক্তনকে ফলো নয়

ফেসবুক বা ইনস্টাগ্রামে আপনার প্রাক্তন কী পোস্ট করলেন, তাতে কে ক’টা লাইক দিল এইসব দেখা এক্ষুনি বন্ধ করুন৷ এটা করে আপনি কোথাও পৌঁছতে তো পারবেনই না, বরং নেতিবাচক অযৌক্তিক চিন্তাভাবনার কানাগলিতে পথ হারানোর আশঙ্কাই বেশি৷

৩। ব্লক করবেন না প্রাক্তনকে

যদি উলটোটা হয়, অর্থাৎ আপনার প্রাক্তন যদি সারাক্ষণ আপনাকে ফলো করছেন বলে বুঝতে পারেন, তা হলে অবশ্যই ওঁকে ব্লক করুন। কিন্তু তা যদি না হয়, তা হলে আগ বাড়িয়ে ওঁকে ব্লক করতে যাবেন না। ভবিষ্যতে হয়তো কোনও যোগাযোগই না থাকার জন্য আপনার আফশোস হবে!

৪। নিজেকে আনট্যাগ করবেন না

একসময় আপনারা অনেকগুলো সুন্দর মুহূর্ত একসঙ্গে কাটিয়েছেন। আজ প্রেম ভেঙে গেছে বলেই সে মুহূর্তগুলো মিথ্যে হয়ে যায় না। তাই যত কষ্টই হোক, ছবি থেকে নিজেকে আনট্যাগ করে নেওয়া বা ছবি ডিলিট করার কোনও দরকার নেই। না হলে ভবিষ্যতে হয়তো পুরোনো প্রেমের কোনও স্মৃতি থাকল না ভেবেও খারাপ লাগবে।

৫। এক্ষুনি নতুন কোনও সম্পর্ক নয়

এটা সরাসরি সোশাল মিডিয়ার অংশ না হলেও জেনে রাখা দরকার। ব্রেকআপের পর কষ্ট ভুলতে বহু মেয়ে ক্যাজুয়াল সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন। সোশাল মিডিয়াতেও সে সম্পর্ক ডানা মেলতে পারে। কিন্তু তাতে লাভের চেয়ে ক্ষতিই বেশি। বরং আপনার নিজের আত্মবিশ্বাসেরই বারোটা বাজবে। তাই ইগোকে বেশি মাথায় চড়তে দেবেন না।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here