Connect with us

পরিবেশ

পরিবেশ আদালতকে বুড়ো আঙুল, মকর সংক্রান্তিতে বর্ধমান জুড়ে বিকোচ্ছে নাইলনের ঘুড়ির সুতো

নাইলন এবং সিনথেটিক মাঞ্জা বিক্রি নিষিদ্ধ করে জাতীয় পরিবেশ আদালত তথা ন্যাশনাল গ্রিন ট্রাইব্যুনাল (এনজিটি)।  প্রতিটি রাজ্য সরকারকে সিনথেটিক মাঞ্জা বিক্রি, কেনা অথবা সঞ্চয় নিষিদ্ধ করার নির্দেশ দেয় ট্রাইব্যুনাল। প্রাণী অধিকার নিয়ে কাজ করা সংস্থা ‘পেটা’র (পিপল ফর এথিকাল ট্রিটমেন্ট অব অ্যানিম্যাল) আবেদনের ভিত্তিতে এই নির্দেশ জারি করে এনজিটি। তার পরেই দিল্লিসহ বিভিন্ন বড় শহর গুলিতে বন্ধ হয় এই নাইলন তথা চানয়া  সিনথেটিক মাঞ্জা । গত বিশ্বকর্মা পুজো থেকেই কলকাতাতে খানিকটা হলেও এর ব্যবহার বন্ধ হয় । তবে ছোট মাঝারি শহরগুলো এখনও আনন্দে মেতে আছে এই দুর্ঘটনাপ্রবণ সুতো নিয়ে। কলকাতায় বিশ্বকর্মা পুজোতে ঘুড়ির মেলা পালন হলেও মকর সংক্রান্তিতে সারা রাজ্য জুড়ে পালিত হয় ঘুড়ির মেলা । তবে গত কয়েক বছর ধরে ঘুড়ির জগতে নতুন সংযোজন হয়েছে নাইলনের সুতো। চলন্ত রাস্তা হোক বা গাছের ডাল, মানুষ থেকে পশুপাখি সকলের কাছেই ক্ষতিকর হয়ে ওঠে এই সুতো। যার থেকে রেহাই পেতেই গ্রিন ট্রাইব্যুনাল এই সিন্ধান্ত নিয়েছে। তবে  বর্ধমানের বাজারে রমরমা বিক্রি এই নাইলনের। বর্ধমানের বড়োবাজার, কালনাগেট বাজার , নীলপুড়, রথতলা একাধিক জায়গায় ঘুড়ি সুতো ব্যবসায়ীরা জমিয়ে ব্যবসা করছেন। যার জন্য দোকানে ভিড় পুরোনা থেকে নতুন সকলেরই । বড়োবাজারের ব্যবসায়ী বিট্টু ঘোষ জানান, “সকল খদ্দের এসে শুধু এই চায়না নাইলনের সুতোই চাইছে , না পেলে অন্য দোকানে চলে যাচ্ছে তাই রাখতে হচ্ছে । আমরাও চাই এই সুতো পুরোপুরি বন্ধ হোক। পশুপাখি ও মানুষ সকলের কাছেই এটা মারাত্মক হতে পারে।’’ বেশ কয়েকটি দোকানে খোঁজ করে জানাগেল দামে অন্য দেশীয় সুতির সুতোর থেকে ওনেক সস্তা চায়নার সুতো। তাই এর চাহিদা তুঙ্গে। এক পাইকারি ব্যবসায়ীর কথায়,” আমরা এই সুতো কোলকাতা থেকে আনি।  নিষিদ্ধ হওয়ার পরে একটু কড়াকড়ি হয়েছে। তাই চোরা পথে আনতে হয়।” ঐ দোকানেই এক ক্রেতা শ্যামল দাস-এর কথায় তিনি ২৫ বছর ধরে ঘুড়ি ওড়াচ্ছেন।  এখন ছেলেকে নিয়ে এসেছেন।  তিনিও বেছে নিয়েছেন এই নাইলন-সিনথেটিক।  নেবেন নাই বা কেন, যেখানে নাইলন( ১০০০ মিটার)  ৪০ টাকা থেকে শুরু সেখানে অন্য সুতো ১২০ থেকে ২০০-২৫০টাকা। সুতোর নামগুলিও তার ছেলের পছন্দ।  রয়েছে ব্লু হোয়েল, ডলফিন,  টারমিনেটর,  ব্লাক প্যান্থার। তবে ব্যবসায়ীরা ব্যবসা দেখলেও পশুপ্রেমীরা খুবই ক্ষুদ্ধ।  বর্ধমান  শহরের টিকরহাটের বাসিন্দা তৃপ্তি চক্রবর্তী দীর্ঘদিন ধরে প্রাণী কল্যান সমিতি চালান। তৃপ্তিদেবী বলেন,  এই সুতো পাখিদের পা, ডানা,পালকে আকটে তাদের মৃত্যুর কারণ হচ্ছে।  কুকুর বিড়াল,  গরুদেরও পা কেটে যাচ্ছে। বিক্রেতা, ক্রেতা ও অভিভাবকদের সচেতন হতে হবে।  মানুষেরও কী বিপদ হতে পারে আমাদের সকলেরই ধারনা আছে।” বর্ধমান  আদালতের আইনজীবী সঞ্জয় ঘোষ বলেন, ” এগুলো বিক্রি করা আইন বিরুদ্ধ।  যার জন্য শাস্তি হতে পারে।  প্রশাসনকেই এদিকটা দেখতে হবে।”]]>

দেশ

দেশকে আবর্জনামুক্ত করতে সপ্তাহব্যাপী প্রচার শুরু করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

পরিচ্ছন্নতার লক্ষ্যে এই উদ্যোগ নতুন শক্তি সঞ্চারিত করবে।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

নয়াদিল্লি: দেশকে আবর্জনামুক্ত করতে শনিবার থেকে সপ্তাহব্যাপী একটি প্রচার শুরু করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi)। এ দিন রাষ্ট্রীয় স্বচ্ছতা কেন্দ্রের (Rashtriya Swachhata Kendra) উদ্বোধন করেন তিনি।

রাষ্ট্রীয় স্বচ্ছতা কেন্দ্র আদতে ‘স্বচ্ছ ভারত অভিযান’ (Swachh Bharat Abhiyan)-এর একটি ইন্টারঅ্যাক্টিভ অভিজ্ঞতা কেন্দ্র। উদ্বোধনী ভাষণে মোদী বলেন, “করোনাভাইরাস (Coronavirus) সংক্রমণের বিরুদ্ধে দেশবাসীর লড়াইয়ে প্রত্যেককে শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে এবং মাস্ক পরতে হবে”। এই অনুষ্ঠানে পড়ুয়াদের সঙ্গে কথাও বলেন তিনি।

পরিচ্ছন্নতা নিয়ে বিশদ ভাবে আলোচনার সময় তিনি বলেন, করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে স্বচ্ছ ভারত অভিযান একটি বড়োসড়ো সহায়ক মাধ্যম। একই সঙ্গে তিনি বলেন, “উত্তর-পূর্ব ভারতের থেকে পরিচ্ছন্নতা নিয়ে আমাদের অনেক কিছুই শেখার আছে”।

মোদী বলেন, “এই রাষ্ট্রীয় স্বচ্ছতা কেন্দ্রটি মহাত্মা গান্ধীর প্রতি শ্রদ্ধার্ঘ। পরিচ্ছন্নতার লক্ষ্যে এই উদ্যোগ নতুন শক্তি সঞ্চারিত করবে”।

প্রসঙ্গত, ২০১৪ সালের ১৫ আগস্ট ভারতের স্বাধীনতা দিবসে স্বচ্ছ ভারত অভিযানের ঘোষণা করা হয়। এর পর ওই বছরেরই ২ অক্টোবর জাতিরজনক মহাত্মা গান্ধীর জন্মদিনে নয়াদিল্লির রাজঘাটে এই অভিযানের সূচনা করেন প্রধানমন্ত্রী। ‘নির্মল ভারত অভিযান’ নামে পুরনো একটি কেন্দ্রীয় সরকারি প্রকল্পের পরিকাঠামো পরিবর্তন করে এই নতুন প্রকল্প চালু হয় তখনই।

আরও পড়তে পারেন: স্বচ্ছ ভারত নিয়ে হইচইয়ের মাঝেই চাঞ্চল্যকর রিপোর্ট সরকারি সংস্থার

স্বচ্ছ ভারত অভিযানের অন্যতম অঙ্গ হিসেবে একক ব্যবহারযোগ্য প্লাস্টিক নিয়েও গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নিয়েছে কেন্দ্র। ঘোষণা করা হয়েছে, ২০২২ সালের মধ্যে ভারতকে সিঙ্গল ইউজ প্লাস্টিক থেকে মুক্ত করা হবে।

Continue Reading

দঃ ২৪ পরগনা

রাখি, মাস্ক পরিয়ে ‘ম্যানগ্রোভ বন্ধন’ পালন সুন্দরবনে

রাখিবন্ধন উৎসবকে সামনে রেখে ‘ম্যানগ্রোভ বন্ধন’ পালন করলেন সুন্দরবনের মানুষ।

স্থানীয় মহিলারা গাছে রাখি পরাচ্ছেন। নিজস্ব চিত্র

উজ্জ্বল বন্দ্যোপাধ্যায়, ক্যানিং: ঘূর্ণিঝড় উম্পুনে (Cyclone Amphan) ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে সুন্দরবনের ম্যানগ্রোভ। সেই ক্ষতি পূরণ করতে নেওয়া হয়েছে একাধিক পদক্ষেপ। একই সঙ্গে সোমবার রাখিবন্ধন উৎসবকে সামনে রেখে ‘ম্যানগ্রোভ বন্ধন’ পালন করলেন সুন্দরবনের মানুষ।

ক্যানিং মহকুমা বিভিন্ন অঞ্চল এবং ক্যানিং-১ ব্লকের নিকাড়ীঘাটা গ্রাম পঞ্চায়েতের উদ্যোগে সুন্দরবনের ম্যানগ্রোভ বন্ধন উৎসব পালন করা হয়। স্থানীয় মহিলা ও স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীরা গাছে রাখি পরিয়ে এবং ম্যানগ্রোভে মাস্ক পরিয়ে সাধারণ মানুষকে সচেতন করার কাজ অংশ নেন।

উদ্যোক্তারা জানান, এক দিকে করোনাভাইরাস (Coronavirus) সংক্রমণ, অন্য দিকে ‘একটি গাছ, একটি গাছ’ স্লোগানকে সামনে রেখে সাধারণ মানুষকে সচেতন করার লক্ষ্য নিয়েই এই কর্মসূচি পালিত হয়। ক্যানিং-১ ব্লকের নিকাড়ীঘাটা গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান তাপসী সাঁফুইয়ের উদ্দ্যোগে পালিত হয় ‘ম্যানগ্রোভ বন্ধন উৎসব’।

অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারীরা করোনা সংক্রমণ ঠেকানোর জন্য করণীয় বিষয়গুলি তুলে ধরেন। কোভিড-১৯ মহামারির (Covid-19 pandemic) আবহে কী ভাবে স্বাস্থ্যসুরক্ষা বিধি মেনে চলা উচিত, সে সব বিষয়গুলিও সাধারণ মানুষের কাছে তুলে ধরেন।

গত ২০ মে উম্পুনের তাণ্ডবে ক্ষতিগ্রস্ত হয় সুন্দরবনের (Sundarban) ম্যানগ্রোভ। ঝড়ের দাপটে ভেঙে অথবা উপড়ে গিয়ে নষ্ট হয় অসংখ্য ম্যানগ্রোভ। এর পর পুনর্নির্মাণ প্রকল্পে সরকারি এবং বেসরকারি উদ্যোগে ম্যানগ্রোভ চারা বসানোর কাজ চলছে সমান ভাবে।

রাখিবন্ধনকে (Rakhibandhan) সামনে রেখে অভিনব এই উদ্য়োগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন পরিবেশপ্রেমীরা।

আরও পড়তে পারেন: উম্পুন কবলিত সুন্দরবনে ম্যানগ্রোভ বসাতে এগিয়ে এল বেসরকারি সংস্থা

Continue Reading

দেশ

লকডাউনের সময় দেশের পাঁচটি শহরে বিষাক্ত বায়ু কমেছে ৫৪ শতাংশ পর্যন্ত

সাধারণ মানুষের জীবন-জীবিকার উপর ধ্বংসাত্মক প্রভাব ফেলেছে লকডাউন। কিন্তু বায়ু দূষণের মাত্রাকে হ্রাস করেছে।

নয়াদিল্লি: কোভিড-১৯ লকডাউনের (Covid-19 lockdown) কারণে দেশের পাঁচটি শহরে বিপজ্জনক বায়ু দূষণের মাত্রা অনেকটাই হ্রাস পেয়েছে।

গত ২৪ মার্চ করোনাভাইরাস (Coronavirus) সংক্রমণ প্রতিরোধে গোটা দেশে লকডাউন জারি করে কেন্দ্রীয় সরকার। কলকারখানা-অফিস থেকে শুরু করে সাধারণ যানবাহনও বন্ধ হয়ে যায়। বায়ুদূষণ কমার অন্যতম কারণ হিসাবে এই বিষয়গুলিকেই গুরুত্ব দিচ্ছেন পরিবেশবিদরা।

জরুরি কাজে বাইরে বেরোনো ছাড়া ১৩০ কোটি জনসংখ্যার দেশে লকডাউনের কড়াকড়ি কার্যকর হওয়ার পর থেকেই ধীরে ধীরে বায়ু দূষণকারী (air pollutants) উপাদানগুলির পরিমাণ কমতে শুরু করে।

কোন কোন শহরে?

দেশের পাঁচটি শহরের মধ্যে রয়েছে চেন্নাই, দিল্লি, হায়দরাবাদ, মুম্বই এবং কলকাতা।

ব্রিটেনের এক দল বিজ্ঞানীর পেশ করা এই সমীক্ষায় বলা হয়েছে, এর ফলে ৬৩০ জনের অকাল মৃত্যু (premature deaths) রোধ হয়েছে।

ব্রিটেনের সারে বিশ্ববিদ্যালয়ের (University Of Surrey) অধ্যাপক-গবেষক প্রশান্ত কুমার জানিয়েছেন, “কোভিড-১৯ মহামারি (Covid-19 pandemic) সারা বিশ্ব জুড়ে সাধারণ মানুষের জীবন-জীবিকার উপর ধ্বংসাত্মক প্রভাব ফেলেছে। কিন্তু উল্টো দিকে বায়ুদূষণের মাত্রাকে হ্রাস করেছে”।

লকডাউনে গবেষণা

গবেষণাটি প্রকাশিত হয়েছে সাসটেনবল সিটিজ অ্যান্ড সিটিজ (Sustainable Cities and Society) নামে একটি জার্নালে।

গবেষকরা যানবাহন বা যানবাহন ব্যতিরেকে অন্যান্য উৎস থেকে উৎপন্ন ক্ষতিকারক সূক্ষ্ম কণা বিষয় বা পিএম২.৫ (PM2.5)-এর ভিত্তিতে গবেষণাটি চালিয়েছেন। গত ১১ মে থেকে এই সমীক্ষাটি শুরু হয়।

গবেষক দলটি পিএম২.৫ বিতরণ বিশ্লেষণ করেছে এবং সারা বিশ্বের অন্য শহরগুলির সঙ্গে সেগুলির তুলনামূলক প্রাসঙ্গিক তথ্যের ফারাক বিশ্লেষণ করেছে।

লকডাউনের সময়কালে বায়ু দূষণের মাত্রার সঙ্গে একই মেয়াদে শেষ পাঁচ বছরের বায়ু দূষণের মাত্রার তুল্যমূল্য বিশ্লেষণ করেছেন সমীক্ষকরা। দেখা গিয়েছে, লকডাউনের সময় দিল্লিতে বাতাসে দূষণকারী কমাগুলির মাত্রা কমেছে ৫৪ শতাংশ, অন্য দিকে মুম্বইয়ে কমেছে ১০ শতাংশ।

তবে উল্লেখযোগ্য ভাবে ভিয়েনায় এই মাত্রা কমেছে ৬০ শতাংশ এবং সাংহাইয়ে কমেছে ৪২ শতাংশ।

প্রতীকী ছবি: ইন্ডিয়া টুডে থেকে

Continue Reading
Advertisement

বিশেষ প্রতিবেদন

Advertisement
Suresh raina and dhoni
ক্রিকেট59 mins ago

ধোনির ঘোষণার এক ঘণ্টার মধ্যেই অবসর ঘোষণা করলেন সুরেশ রায়না

রাজ্য2 hours ago

রাজ্যে দৈনিক সংক্রমণ হার নামল ৯ শতাংশের নীচে, সুস্থতার হারে বৃদ্ধি

বিজ্ঞান2 hours ago

বিতর্কের মধ্যেই করোনা ভ্যাকসিনের প্রথম ব্যাচের উৎপাদন রাশিয়ায়

MS Dhoni
ক্রিকেট2 hours ago

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নিলেন মহেন্দ্র সিংহ ধোনি

সোনু সুদ
বিনোদন3 hours ago

চিকিৎসার জন্য ৩৯ শিশুকে ফিলিপিন্স থেকে দিল্লি উড়িয়ে আনছেন সোনু সুদ

প্রযুক্তি3 hours ago

আয়কর রিটার্নের ভুল সংশোধনের জন্য ৯টি সহজ পদক্ষেপ

বিনোদন4 hours ago

রিয়া চক্রবর্তী কি সুশান্তের অ্যাকাউন্ট থেকে ১৫ কোটি টাকা সরিয়েছিলেন? তদন্ত শুরু করল সিবিআই

রাজ্য4 hours ago

বেসরকারিকরণ: বিকল্প পন্থায় পোস্টকার্ডে প্রতিবাদ শ্রমিক সংগঠন টিইউসিসির

দেশ12 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ৬৫০০২, সুস্থ ৫৭৩৮১

দেশ12 hours ago

ভারতকে চ্যালেঞ্জ করলে কড়া জবাব, লালকেল্লায় হুংকার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর

বিজ্ঞান1 day ago

কোভিডের সম্ভাব্য উপসর্গের ক্রমগুলি খুঁজে পাওয়া গিয়েছে, দাবি এক দল বিজ্ঞানীর

ফুটবল2 days ago

এ বার কি মেসির সঙ্গে জুটি বাঁধবেন রোনাল্ডো? সিআর৭-এর বার্সেলোনা যাত্রার জল্পনা তুঙ্গে

ক্রিকেট2 days ago

কোহলি-স্মিথ-উইলিয়ামসনরা অভিষেক করার আগে শেষ টেস্ট খেলেছিলেন তিনি, ফের সুযোগ পেলেন বৃহস্পতিবার

দেশ1 day ago

রাজস্থানে আস্থাভোটে জয়ী অশোক গহলৌত সরকার

দেশ2 days ago

প্রায় সাড়ে আট লক্ষ টেস্টে আক্রান্ত ৬৫ হাজারের কম, আরও পড়ল সংক্রমণের হার

বিদেশ1 day ago

৪০ বছর ধরে মিলেছে অক্ষরে অক্ষরে, ২০২০-তে ডোনাল্ড ট্রাম্পের ভবিষ্যৎ বলে দিলেন সেই অধ্যাপক!

কেনাকাটা

care care
কেনাকাটা2 days ago

চুল ও ত্বকের বিশেষ যত্নের জন্য ১০০০ টাকার মধ্যে এই জিনিসগুলি ঘরে রাখা খুবই ভালো

খবরঅনলাইন ডেস্ক : পার্লার গিয়ে ত্বকের যত্ন নেওয়ার সময় অনেকেরই নেই। সেই ক্ষেত্রে বাড়িতে ঘরোয়া পদ্ধতি অনেকেই অবলম্বন করেন। বাড়িতে...

কেনাকাটা1 week ago

ঘর ও রান্নাঘরের সরঞ্জাম কিনতে চান? অ্যামাজন প্রাইম ডিলে রয়েছে ৫০% পর্যন্ত ছাড়

খবরঅনলাইন ডেস্ক : অ্যামাজন প্রাইম ডিলে রয়েছে ঘর আর রান্না ঘরের একাধিক সামগ্রিতে প্রচুর ছাড়। এই সেলে পাওয়া যাচ্ছে ওয়াটার...

কেনাকাটা1 week ago

এই ১০টির মধ্যে আপনার প্রয়োজনীয় প্রোডাক্টটি প্রাইম ডে সেলে কিনতে পারেন

খবরঅনলাইন ডেস্ক : চলছে অ্যামাজনের প্রাইমডে সেল। প্রচুর সামগ্রীর ওপর রয়েছে অনেক ছাড়। ৬ ও ৭  তারিখ চলবে এই সেল।...

কেনাকাটা1 week ago

শুরু হল অ্যামাজন প্রাইম ডে সেল, জেনে নিন কোন জিনিসে কত ছাড়

খবরঅনলাইন ডেস্: শুরু হল অ্যামাজন প্রাইম ডে সেল। চলবে ২ দিন। চলতি মাসের ৬ ও ৭ তারিখ থাকছে এই অফার।...

things things
কেনাকাটা2 weeks ago

করোনা আতঙ্ক? ঘরে বাইরে এই ১০টি জিনিস আপনাকে সুবিধে দেবেই দেবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : করোনা পরিস্থিতিতে ঘরে এবং বাইরে নানাবিধ সাবধানতা অবলম্বন করতেই হচ্ছে। আগামী বেশ কয়েক মাস এই নিয়মই অব্যাহত...

কেনাকাটা3 weeks ago

মশার জ্বালায় জেরবার? এই ১৪টি যন্ত্র রুখে দিতে পারে মশাকে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: একে করোনা তায় আবার ডেঙ্গুর প্রকোপ শুরু হয়েছে। এই সময় প্রতি বারই মশার উৎপাত খুবই বাড়ে। এই বারেও...

rakhi rakhi
কেনাকাটা3 weeks ago

লকডাউন! রাখির দারুণ এই উপহারগুলি কিন্তু বাড়ি বসেই কিনতে পারেন

সামনেই রাখি। কিন্তু লকডাউনের মধ্যে মনের মতো উপহার কেনা একটা বড়ো ঝক্কি। কিন্তু সেই সমস্যা সমাধান করতে পারে অ্যামাজন। অ্যামাজনের...

কেনাকাটা4 weeks ago

অনলাইনে পড়াশুনা চলছে? ল্যাপটপ কিনবেন? দেখে নিন ৪০ হাজার টাকার নীচে ৬টি ল্যাপটপ

ইনটেল প্রসেসর সহ কোন ল্যাপটপ আপনার অনলাইন পড়াশুনার কাজে লাগবে জেনে নিন।

কেনাকাটা4 weeks ago

করোনা-কালে ঘরে রাখতে পারেন ডিজিটাল অক্সিমিটার, এই ১০টির মধ্যে থেকে একটি বেছে নিতে পারেন

শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা বুঝতে সাহায্য করে এই অক্সিমিটার।

কেনাকাটা4 weeks ago

লকডাউনে সামনেই রাখি, কোথা থেকে কিনবেন? অ্যামাজন দিচ্ছে দারুণ গিফট কম্বো অফার

খবরঅনলাইন ডেস্ক : সামনেই রাখি। কিন্তু লকডাউনের মধ্যে দোকানে গিয়ে রাখি, উপহার কেনা খুবই সমস্যার কথা। কিন্তু তা হলে উপায়...

নজরে

Click To Expand