Hero and Honda Motorcycle

ওয়েবডেস্ক: জোটবন্ধন ভেঙে যাওয়ার ছ’বছরে এই প্রথম। ভারতের ১৫টি অঙ্গরাজ্য ও দু’টি কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলে বাইক ও স্কুটার বিক্রিতে হিরো গ্রুপকে অনেকটাই পিছনে ফেলে দিল জাপানের হোন্ডা মোটর সাইকেল অ্যান্ড স্কুটার ইন্ডিয়া। এই বিস্তৃত অঞ্চলের মোট বাজারের প্রায় ৫২ শতাংশ দখল করে নিয়েছে হোন্ডা।

ছ’বছর আগে এই দুই সংস্থা পৃথক হয়ে যায়। এ দেশে হোন্ডা মার্কেটিংয়ের ব্যাপারে হিরোর উপর নির্ভরশীল থাকায় তাদের আবার নতুন করে শুরু করতে হয়। তাছাড়া হিরোর সঙ্গে জড়িয়ে থাকা আপামর ভারতবাসীর আবেগে সে ভাবে ভাগ বসাতে পারেনি হোন্ডা। তবে চলতি ২০১৭-‘১৮ আর্থিক বছরের এপ্রিল-সেপ্টেম্বর মাসে গাড়ি বিক্রির রিপোর্ট সামনে রেখে হোন্ডা দাবি করেছে, মহারাষ্ট্র, অন্ধ্রপ্রদেশ, কর্নাটক ও তামিলনাড়ু মিলিয়ে ১৫ টি রাজ্য এবং দু’টি কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলে তারা নজির গড়েছে। আবার উত্তরপ্রদেশ, রাজস্থান এবং মধ্যপ্রদেশের ক্ষেত্রে তাদের ব্যবসা যে গত ছ’বছরের তুলনায় দ্বিগুণ আকার ধারণ করেছে, সে কথা উল্লেখ করা হয়েছে।

হোন্ডা মোটর সাইকেল অ্যান্ড স্কুটার ইন্ডিয়ার প্রেসিডেন্ট অ্যান্ড সিইও মিনোরো কাটো বলেছেন, “আমরা গত ছ’বছরে দ্রুত গতিতে টু-হুইলারে বিনিয়োগ করেছি। যার ফলে দেশের চারটি প্লান্ট থেকে চাহিদা মতো বাইক ও স্কুটার প্রস্তুতিতে সক্ষম হয়েছি।”

২০১১-তে হোন্ডা তাদের বাজার হিসাবে বেছে নিয়েছিল অরুণাচলপ্রদেশ ও গোয়াকে। প্ৰথমে এই দু’টি অঞ্চলে পসার জমানোর পর দেশের অন্যান্য রাজ্যগুলির দিকে তারা নজর ঘোরায়। সেখানে বড়োসড়ো প্রতিদ্বন্দ্বিতার সম্মুখীন হতে হয় তাদের। সেই প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নিজের অস্তিত্বকে টিকিয়ে রাখতে তারা বাজারে নিয়ে আসতে শুরু করে একের পর এক নতুন মডেল। এর জন্য তারা নিজেদের প্রযুক্তি এবং ভারতীয় ক্রেতার পছন্দ এবং সুবিধার দিকটিকে প্রাধান্য দিয়ে এসেছে। যার ফলে মাত্র এই ক’বছরের মধ্যেই দেশের এই বিস্তৃত এলাকায় নিজেদের ব্যবসাকে ছড়িয়ে দিতে সক্ষম হয়েছে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here