স্মিতা দাস

বরানগর : গান ভালোবেসে প্রায় ১৭ বছর আগে একটা প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলেছিলেন রচয়িতা আর শুভাশিস দত্ত। আজ ডালপালা মেলে তা মহীরুহ। নর্থ ক্যালকাটা আর্ট অ্যান্ড মিউজিক সেন্টার। সম্প্রতি তারই দু’ দিনব্যাপী বাৎসরিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিল সংস্থা। অনুষ্ঠানে সম্মানিত করা হয় গানের জগতের বহু জ্ঞানী জনকে। অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় দিনে তাঁরা সম্মানিত করেন স্বনামধন্য পিয়ানো অ্যাকোর্ডিয়ান শিল্পী শ্রী প্রতাপ রায় অর্থাৎ বেবিদাকে। সংবর্ধিত করা হয় শাস্ত্রীয় ও উচ্চাঙ্গ সঙ্গীত শিল্পী নীহার রঞ্জন বন্দ্যোপাধ্যায় মহাশয়কেও।

দু’ দিনের এই অনুষ্ঠানসূচিতে ছিল রবীন্দ্র, নজরুল সঙ্গীত, স্বর্ণযুগের গান থেকে শুরু করে রকমারি গানের সম্ভার। তাঁদের নতুন একটা প্রচেষ্টা ছিল আধুনিক গানের কোয়্যার। দ্বিতীয় দিনের অনুষ্ঠানের এই বিশেষ বিভাগে পিয়ানো অ্যাকোর্ডিয়ান যন্ত্রসঙ্গীতে ছিলেন ৮০ বছরের প্রবীণ শিল্পী প্রতাপ রায় স্বয়ং।

ছাত্রছাত্রীদের সাফল্যে খুশি সংস্থার অন্যতম প্রধান রচয়িতা দত্ত। তিনি জানান, মূলত পুরনো দিনের গানের উপর জোর দেওয়া হয় এখানে। তা ছাড়াও সব ধরনের গানই আছে। ১৭ বছরের সংস্থায় এমন ঘটনাও ঘটে যেমন মা, দিদা আর নাতনি একসঙ্গে গান শিখতে আসেন। আবার একই পরিবারের বাবা-মা, ছেলে-মেয়েও এক সঙ্গে এই স্কুলের গান শিখতে আসেন। এটা খুবই আশার ব্যাপার যে, গানের প্রতি ভালোবাসাটা এখনও সাধারণ মানুষের মধ্যে আছে। আজকালকার ছেলেমেয়েরাও গানটাকে ভালোবাসছে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here