ওয়েবডেস্ক : প্রথম শুরু হয়েছিল ২০০০ সালে। নেদারল্যান্ড পথ দেখিয়েছিল। তার পর কেটে গিয়েছে ১৭টি বছর। পথ খুব একটা মসৃণ ছিল না। তবুও বাধা পেরিয়ে এক এক করে ২৬-এ পা। ২০১৭ সালেই এই ক্লাবে ঢূকে পড়েছে তিনটি দেশ। এ পর্যন্ত মোট ২৬টি দেশ সমলিঙ্গ বিবাহকে আইনত স্বীকৃতি দিয়েছে।

এ বছর শেষ যে দেশটা এই তালিকায় ঢুকেছে সেটি হল অস্ট্রেলিয়া। চলতি মাসের সাত তারিখে এ দেশে সমলিঙ্গ বিবাহকে আইনত স্বীকৃতি দেওয়া হল। ১৫০টি আসনের মধ্যে মাত্র চারটি আসন এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করে। জাতীয় স্তরে টানা দু’বছর ধরে সার্ভে করার পর আবশেষে এই সিদ্ধান্ত।

তা ছাড়া চলতি বছরে অস্ট্রেলিয়া ছাড়াও মাল্টা ও জার্মানিতেও এই বিয়েকে আইনত স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছে।

জুনে জার্মানিতে আর জুলাই মাসে মাল্টায় এই বিবাহ স্বীকৃত হয়। মাল্টা হল ইউরোপিয়ান ইউনিয়ানের ১৫তম সদস্য।

পেও রিসার্চ সেন্টারের তথ্য অনুযায়ী সমলিঙ্গ বিবাহ স্বীকৃত হয়েছে বিশ্বের মোট ২৬টি দেশে।

তবে অস্ট্রেলিয়ায় এখনও পর্যন্ত সমলিঙ্গ বিবাহ সম্পন্ন হয়নি। নতুন বছর পড়ার আগে তেমন কোনো সম্ভাবনাও নেই। ঠিক হয়েছে, অস্ট্রেলিয়ায় সমলিঙ্গ বিয়ের অন্তত ২৮ দিন আগে নোটিশ দিতে হবে।

মজার ব্যাপার ২০০১ সালেই আমেরিকায় এই বিবাহের বিরোধিতা করেছিল দেশের ৫৭% মানুষই। সেখানে ২০১৫ সালে সে দেশে আইনত স্বীকৃতি পায় এই বিয়ে। পেও রিসার্চ সেন্টারের তথ্য বলছে, বর্তমানে দেশের ৬২% মানুষ এই বিয়ের পক্ষে। এ ছাড়াও

এখনও পর্যন্ত যে সব দেশে সমলিঙ্গ বিবাহ স্বীকৃত সেগুলি হল,

দেশ সাল
নেদারল্যান্ড ২০০০
বেলজিয়াম ২০০৩
কানাডা ২০০৫
স্পেন ২০০৫
দক্ষিণ আফ্রিকা ২০০৬
নরওয়ে ২০০৮
সুইডেন ২০০৯
আইসল্যান্ড ২০১০
পর্তুগাল ২০১০
আর্জেন্টিনা ২০১০
ডেনমার্ক ২০১২
উরুগুয়ে ২০১৩
নিউজিল্যান্ড ২০১৩
ফ্রান্স ২০১৩
ব্রাজিল ২০১৩
ইংল্যন্ড অ্যন্ড ওয়েলস ২০১৩
স্কটল্যান্ড ২০১৪
লাক্সেমবার্গ ২০১৪
ফিনল্যান্ড ২০১৫
আয়ারল্যান্ড ২০১৫
গ্রিনল্যান্ড ২০১৫
যুক্তরাষ্ট্র ২০১৫
কলোম্বিয়া ২০১৬
জার্মানি ২০১৭
মাল্টা ২০১৭
অস্ট্রেলিয়া ২০১৭

 

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here