সৌন্দর্যের চিরাচরিত মাপকাঠিটাই পালটে দেওয়ার স্বপ্ন দেখে বিরল চর্মরোগে আক্রান্ত এই তরুণী

0
4548

ওয়েবডেস্ক: সমাজের চাপিয়ে দেওয়া সৌন্দর্যের সংজ্ঞাটাকে উপেক্ষা করেছে হাতে গোনা যে সব মানুষ, জারা   তাদেরই এক জন। ২৬ বছরের জারা আক্রান্ত এক বিরল চর্মরোগে। এমন এক রোগ, যাতে নাকি শরীরের চামড়া কুঁচকে গিয়ে একেবারে বুড়িয়ে যায়। হ্যাঁ, জারারও তাই-ই হয়েছে। পার্থক্য একটাই, পৃথিবীর থেকে মুখ ফিরিয়ে না নিয়ে সে আলিঙ্গন করেছে তার স্বতন্ত্রতাকে।


১০ বছর বয়সে জারা আক্রান্ত হয় ডার্মাটোস্পারাক্সিস ইডিএস রোগে। সারা শরীরের চামড়া কুঁচকে যেতে থাকে বয়স্ক মানুষের মতো। প্রথম ধাক্কা সামলে উঠতে যে বেশ কিছুটা সময় লেগেছিল, সে কথা নিজেই স্বীকার করেছে জারা। নিরাপত্তাহীনতায় ভুগতে ভুগতে নিজের মধ্যে একটা বদল অনুভব করে জারা। এক সময় মনে হতে শুরু করে, তার শরীরের খুঁত, ত্বকের বৈশিষ্ট্য এ সব তো আর পাঁচ জনের থেকে আলাদা, তার একান্ত আপন। সারা দুনিয়া তাকে অবাক চোখে দেখে যে কারণে, সেই বুড়িয়ে যাওয়া চামড়ার পেছনে একটা মেয়ের গোটা জীবনটা লুকিয়ে আছে। লুকিয়ে আছে একটা লড়াইয়ের গল্প।


নিজের শরীরের খুঁত নিয়ে দিব্যি আছে জারা। বর্তমানে শৈশবের শহর মিনেসোটা ছেড়ে স্বপ্নের জন্য পাড়ি দিয়েছে লস এঞ্জেলস। স্বপ্নের নাম ‘লাভ ইয়োর লাইন্স’। মেয়েদের তথাকথিত সৌন্দর্যের তকমা ছেড়ে বেরিয়ে আসার সাহসটুকু দেখাতে চায় জারা গেউর্টসের মতো আরও কিছু নাম। নিজের শরীরের সব খুঁত, সব অভিনবত্ব নিয়েই মানুষ আসলে সুন্দর, এই বিশ্বাস ছড়িয়ে দিতে সফল হোক জারারা।

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here