একের পর এক ব্লক ব্লাস্টার ছবির পরিচালক তিনি। অরিন্দম শীল। আসতে চলেছে তাঁর শবর ফ্রাঞ্চাইজির তৃতীয় ছবি ‘আসছে আবার শবর’। ব্যস্ততার মাঝেই তাঁর সঙ্গে আড্ডা দিলেন রাকা রায়। অভিনয়, পরিচালনা নিয়ে একরাশ কথা উঠে এল আড্ডায়।

প্রশ্ন: অরিন্দম শীলের ছবি মানেই ব্লক ব্লাস্টার। রহস্যটা কী?

উত্তর: এটা সত্যি আমি ভাগ্যবান। যে কটা ছবি করেছি সবটাই ব্লক ব্লাস্টার। একটা কম চলেছে। আসলে আমি গল্পের উপর বেশি জোর দিই। গল্পটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এরপর প্রোডাকশন ডিজাইনের উপর নজর রাখি। আসলে ছবি তৈরির সময় দর্শকদের কথা মাথায় রাখি। নিজেকে দর্শকদের আসনে বসিয়ে বোঝার চেষ্টা করি, দর্শকদের দৃষ্টিতে কী কী চাইতাম আমি একটা সিনেমায়। তবে সবার উপরে আমার দর্শকই আমার বিচারক। আমার ছবি দর্শকদের ভালোবাসা পাচ্ছে। তার জন্য আমি কৃতজ্ঞ দর্শকদের কাছে। আরও অনেক ভালো কাজ করার ইচ্ছা আছে।  তবে এই ব্লক ব্লাস্টার ছবির পরিচালক হওয়ার ফলে অসুবিধাও থাকে। আগামী ছবি নিয়ে ভয় করে। এই যেমন আমার শবরের ৩ নং সিরিজ আসছে, আর ভয়ও বাড়ছে।

প্রশ্ন: মুম্বই-এর ছবির অনেক কাজ আপনার তত্ত্বাবধানে হয়েছে।

উত্তর: একদমই। মুম্বইয়ের এক্সপোজার আমায় অনেক হেল্প করেছে। শুটিং-এর সময় বাজেট মাথায় রাখি। প্রডিউসার যাতে লাভ করতে পারে সেটা লক্ষ্য রাখতে হয়।

প্রশ্ন: এখন তো অনেক প্রযোজকের সঙ্গে কাজ করছেন। নানা বিষয় নিয়ে কাজ করেছেন, প্রযোজকদের রাজি করান কী করে?

উত্তর: গল্প ভালো হলে অসুবিধা হয় না। তবে অনেক প্রযোজকের সঙ্গে কাজ করছি কই। আমি এসভিএফ-এর সঙ্গেই কাজ করি। হ্যাঁ, আর একটি প্রোডাকশন হাউজের সঙ্গে কাজ করেছি। তবে আমার প্রথম প্রায়োরিটি হল এসভিএফ। সেটা অন্যরা জানে। আসলে শ্রীকান্তরা আমার উপর যে ভরসা করে, সাহস দেয়- এটা খুব দরকার। তাছাড়া শ্রীকান্তের সঙ্গে মনের আদানপ্রদানটা অনেক সহজ। একটা জায়গা তৈরি হয়েছে. যেখানে কাজটা খুবই কমফোর্ট জোনে হয়।

প্রশ্ন: এখন তো ওয়েব থেকে মিউজিক অ্যালবাম করছেন।

উত্তর: হ্যাঁ। রবীন্দ্রসঙ্গীত নিয়ে অ্যালবাম করছি। সম্পুর্ণা রয়েছে। আবির আর সোহিনী কে নিয়ে একটা শর্ট ফিল্ম করছি। আসলে এখন অনেক দিক খুলে গেছে। এই সব জায়গায় অনেক বেশি এক্সপেরিমেন্ট করা যায়। একটা শর্ট ফিল্মে যেটা দেখাতে পারবো, হয়তো ফিচার ফিল্মে সেটা দেখাতে পারবো না।

প্রশ্ন: পরিচালনায় এসে অভিনয় কম হচ্ছে। মিস করেন অভিনেতা অরিন্দম শীলকে?

উত্তর: দেখ, ভালো অভিনয়ের খিদে সবসময়ই থাকে। তাই সুযোগ পেলেই নিজের ও অন্যদের ছবিতে ক্যামিও রোল করি। আসলে আমার ছবিতে যখন অন্যকে অভিনয় করাচ্ছি, সেখানে আসলে তাদের মাধ্যমে আমি অভিনয় করছি। তবে অভিনয় অবশ্যই মিস করি। তবে এখন আমার সব ফোকাস পরিচালনায় চলে গেছে। খুব ইম্পরটেন্ট চরিত্র হলে তবেই অভিনয় করবো।

প্রশ্ন: শবরের এই সিরিজে আপনাকে দেখা যাচ্ছে তো?

উত্তর: একদম দেখা যাবে। একটু প্রমিনেন্ট চরিত্রেই পাবেন দর্শক। বড়োদিনে ‘আসছে আবার শবর’-এর ট্রেলারেই দেখা যাবে(হাসি)।

প্রশ্ন: এই শবরে চমক কী?

উত্তর: এবারের শবর আরও অনেক স্মার্ট ও ভায়োলেন্ট। অনেক বেশি অ্যাকশন ওরিয়েন্টেড। চন্দননগর, লখনউ,কলকাতায় শুট হয়েছে। ছবির কাহিনি মূলত প্যারেন্টিং নিয়ে। বাবা মা সময় পান না।ফলে সন্তানরা বিপথে চলে যায়। সাইবার ক্রাইম উঠে আসবে ছবিতে। ছবিতে সিরিয়াল কিলিং দেখা যাবে। তাই বললাম, ভায়োলেন্স বেশি থাকবে ।

প্রশ্ন: আর কোন জঁর নিয়ে কাজ করতে চান?

উত্তর: অনেক জঁরই বাকি আছে। আমি রমকম করতে চাই। তবে একদম অন্যরকম রকম প্রেজেন্টেশনের মাধ্যমে। মিষ্টি প্রেমের গল্প বলতে চাই। মিউজিকাল ছবি করতে চাই। কথা চলছে খুব শিগগিরই খবর পাবে।

প্রশ্ন: শেষ প্রশ্ন আপনি অনেক অভিনেতাদের স্টার বানিয়েছেন। স্টার মেকার বলাই যায়।

উত্তর: আসলে সবাই বলে বেড়ায়, সোহিনী ভালো অভিনয় করে, অনির্বাণ ভালো অভিনেতা। তবে এদের মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করানোর সাহস কেউ দেখাতে পারে না। আমি এটা করি কারণ আমার নিজের উপরে আস্থা আছে। গল্প বলার উপর আস্থা আছে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here