ওয়েবডেস্ক: সবে ১৯ পেরিয়ে ২০ হয়েছেন, কিন্তু এখনই তাঁর দুঃসাহসিক দক্ষতায় মুগ্ধ হয়ে গিয়েছে গোটা বিশ্ব। সর্বকালের অন্যতম সেরা এক কিংবদন্তির সঙ্গে তাঁর তুলনাও শুরু হয়ে গিয়েছে।

তিনি ফ্রান্সের কিলিয়ান এমবাপ্পে। বিশ্বকাপের সব ক’টা ম্যাচেই তিনি প্রভাব বিস্তার করেছেন। বিশেষ করে আর্জেন্তিনার বিরুদ্ধে শেষ ষোলোর ম্যাচে। সেই ম্যাচে দু’টো গোল করা ছাড়াও, একটি গোল কার্যত তিনিই করিয়েছেন। তাঁর গতির কাছে পরাস্ত হতে হয়েছে তাবড় তাবড় ফুটবলারদের। তাঁর দক্ষতা দেখে ইতিমধ্যে আর্সেন ওয়েঙ্গার ভবিষ্যতের পেলে হওয়ারও সম্ভাবনা দেখতে পাচ্ছেন তাঁর মধ্যে।

সেমিফাইনালে বেলজিয়ামের বিরুদ্ধেও একই রকম দক্ষতা দেখিয়ে গিয়েছেন এমবাপ্পে। গোটা ম্যাচে অন্তত ছ’টা গোলের সুযোগ তৈরি করেছিলেন তিনি। এমবাপ্পেতে মুগ্ধ ইংল্যান্ডের প্রাক্তন তারকা গ্যারি লিনেকার। টুইটে তাঁর মুগ্ধতা প্রকাশ করেছেন তিনি।

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের প্রাক্তন তারকা তথা বর্তমান ধারাভাষ্যকার মাইকেল ব্রিজেস বলেছেন, “এই বয়সে এত দক্ষতা! ভাবা যায় না।”

এই মুহূর্তে প্যারিস সাঁ জায় খেলেন এমবাপ্পে। কিন্তু জল্পনা চলছে রোনাল্ডোকে ছেড়ে দেওয়ার পরে এ বার এমবাপ্পেকে নেওয়ার জন্য ঝাঁপাতে পারে রেয়াল মাদ্রিদ।

শুধু প্রাক্তন তারকারাই নন, বর্তমান খেলোয়াড়রাও এমবাপ্পেতে মুগ্ধ। তেমনই একজন বেলজিয়ামের ইডেন হ্যাজার্ড। মঙ্গলবার রাতে ম্যাচ শুরুর আগে তিনি বলেন, “ও যখন ছোটো ছিল, তখন আমার খেলার ফুটেজ দেখত। এখন আমি ওর খেলার ফুটেজ দেখি। ও এই বয়সে যা করছে তার জন্য আমি ওকে পাগলের মতো শ্রদ্ধা করি। আধুনিক ফুটবলে এটা ভাবা যায় না।”

এমবাপ্পেকে নিয়ে কী ধরনের টুইট হচ্ছে সেগুলিতে একবার চোখ বুলিয়ে নেওয়া যাক।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন