কলকাতা: এ বার থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার কোনো কোনো বিষয়ে ১০ নম্বর থাকবে স্কুলের হাতে। স্কুলের মূল্যায়নের ওপর নির্ভর করবে ওই ১০ নম্বরের মধ্যে পরীক্ষার্থী কত পাবে।  নম্বর বিভাজনের এই নতুন প্রস্তাব শিক্ষা দফতরের কাছে পাঠাল উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ। শিক্ষা দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, চলতি শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণি থেকে এই বিভাজন চালু হতে পারে।

কিছু দিন আগেই উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের সভাপতি জানিয়েছিলেন, উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় নতুন ভাবে নম্বর ভাগ করার ব্যাপারটি নিয়ে তাঁরা চিন্তাভাবনা করছেন। এ ব্যাপারে তাঁরা শীঘ্রই সরকারের কাছে রিপোর্ট পাঠাবেন। সেই রিপোর্ট পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।

জানা গিয়েছে, যে সব বিষয়ে প্রোজেক্ট বা প্র্যাকটিক্যাল আছে সেই সব বিষয়ে ১০ নম্বর থাকবে স্কুলের মূল্যায়নের ওপর। সাধারণত, কলা ও বাণিজ্য বিভাগের ক্ষেত্রে ১০০ নম্বরের পেপারে প্রোজেক্টর জন্য থাকে ২০ নম্বর। বিজ্ঞান বিভাগের ক্ষেত্রে ১০০ নম্বরের পেপারে ৩০ নম্বর প্র্যাকটিক্যালের জন্য। এই ২০ বা ৩০ নম্বরের মধ্য থেকে ১০ নম্বর যাবে স্কুলের হাতে। অর্থাৎ স্কুলে ছাত্রছাত্রীদের পারফরম্যান্সের জন্য ১০ নম্বর নির্ধারিত থাকবে। এই পারফরম্যান্স বলতে বোঝাবে একাদশ শ্রেণির বার্ষিক পরীক্ষার ফল, ক্লাসে উপস্থিতির হার, সংশ্লিষ্ট ছাত্র বা ছাত্রী কতটা শৃঙ্খলা মেনে চলে ইত্যাদি। স্কুলের শিক্ষকদের সঙ্গে আলোচনা করে প্রধান শিক্ষক নম্বর পাঠাবেন শিক্ষা সংসদের কাছে এবং সেই নম্বর যোগ হবে উচ্চ মাধ্যমিকের নম্বরে।

ভূগোল প্রশ্নের জন্য ৩ নম্বর  

ইতিমধ্যে এ বারের উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের জন্য একটা সুখবর রয়েছে। ভূগোলের প্রশ্নপত্রে প্রশ্ন ১(সি) ভুল ছিল। এই প্রশ্নের জন্য ৩ নম্বর ছিল। ওই প্রশ্নটি যারা উত্তর করেছে, তাদের প্রত্যেককে ৩ নম্বর করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে শিক্ষা সংসদ।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here