নিউইয়র্ক : আরও এক ভারতীয়কে গুলি করে হত্যা করা হল। কানসাসে শ্রীনিবাস কুচিভোতলার মৃত্যুর একদিন পরেই ৪৩ বছরের ব্যবসায়ী হরনিশ প্যাটেলকে হত্যা করা হয়। বৃহস্পতিবার ঘটনাটি ঘটে সাউথ ক্যারোলিনার ল্যাঞ্চেস্টার অঞ্চলে। হরনিশের দেহ উদ্ধার হয় তাঁর বাড়ির সামনে থেকে।

পুলিশ সূত্রের খবর, হরনিশ একটি দোকানের মালিক। সে দিন দোকান বন্ধ করে তাঁর মিনিভ্যানে করে বাড়ি ফিরছিলেন তিনি। দোকান থেকে তাঁর বাড়ির দূরত্ব ছ’ কিলোমিটার। পথেই তিনি হত্যাকারীর মুখোমুখি হন বলে মনে করছে পুলিশ। মৃত্যুর ১০ মিনিট আগে তিনি একটি দোকানে আটকে পড়েন। রাত ১২টার কয়েক মিনিট আগে তাঁকে মৃত অবস্থায় দেখতে পাওয়া যায়। ল্যাঞ্চেস্টার পুলিশের কাছে এই হত্যার ঘটনা নিয়ে ফোন আসতে শুরু করে রাত ১১ টা ৩৩ মিনিট থেকে।

জাতিগত বিদ্বেষের জন্যই হরনিশকে হত্যা করা হয়েছে, এ কথা মানতে রাজি নয় হরনিশের পরিচিত স্যারিফ বেরি। তবে হরনিশের পরিচিতদের দাবি, হরনিশ খুবই ভালো মানুষ ছিলেন। তিনি বহু মানুষকে সাহায্য করতেন।

৫১ বছরের অ্যাডাম পিউরিনটনের গুলিতে নিহত হন ভারতীয় বংশোদ্ভুত ইঞ্জিনিয়ার শ্রীনিবাস কুচিভোতলা। তাঁর মৃত্যুর ঠিক এক দিন পরেই হরনিশ প্যাটেলের হত্যা ভয় বাড়িয়েছে ভারতীয়-মার্কিনিদের মনে। স্বাভাবিক ভাবেই আমেরিকায় ভারতীয় বংশোদ্ভুতদের নিরাপত্তা নিয়ে চিন্তিত অনেকেই। 

 

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন