রূপকথার গল্পে কী না হয়। তবে এখন আর রূপকথার গল্পে নয়, ইচ্ছা থাকলে বাস্তবেই অনেক কিছু করা যায়। এমনকি যন্ত্রের সাহায্যে মানুষের মনের খোঁজও পাওয়া যায়। কথাটা শুনে অবিশ্বাস্য মনে হলেও, তা এক দম সত্যি। শিল্পী ভেনেসা ক্রোয়ির মস্তিষ্কে এই যন্ত্রটা তৈরি করার পরিকল্পনা আসে। আর তা বানিয়েও ফেলেন তিনি। নিউজিল্যান্ডের ওয়াংগার শহরে এমনই একটা যন্ত্র বসানো হয়েছে। যেটা এটিএম যন্ত্রের মতো দেখতে। তাতে মানুষ নিজের মনের ভাব-ইচ্ছা-অনুভূতি জমা করতে পারবেন। 

নিউজিল্যান্ডের হয়াঙ্গারাইয়ে বসানোর আগে এই মোড্যাঙ্ক আয়োটিয়া যন্ত্রটা ওয়েলিংটন আর অকল্যান্ডের বসানো হয়েছিল। ওয়াংগারের স্থানীয় প্রশাসনেরর উদ্যোগে ও একটি প্রকল্পের অধীনের এই যন্ত্র এই শহরে বসানো হয়। উদ্যোক্তাদের আশা, এর সাহায্যে বাসিন্দাদের মনের ভাব জানা যাবে। বাসিন্দারা কেমন আছেন ? তাঁদের অভাব-অভিযোগ, ইচ্ছা-অভিজ্ঞতা ইত্যাদি সবই জানিয়ে দেবে যন্ত্রটা। তাই এটাকে শহরের বিভিন্ন জায়গায় ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে বসানো হবে। বিভিন্ন এলাকার মানুষের মনোভাব জানার চেষ্টা করা হবে।

শিল্পী ভেনেসা ক্রোয়ি জানান, যন্ত্রটিতে একটি স্ক্রিন আছে যেটিতে মানুষের হাজার খানেক অনুভূতি দেখানো আছে। ইচ্ছেমতো স্ক্রিন ছুঁয়ে শহরের বাসিন্দারা তাঁদের মনের কথা, নানা অনুভূতি ওই যন্ত্রে জমা করতে পারবেন।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here