কলকাতা : এ বার ছিটমহলের বাসিন্দাদেরও দু’ টাকা কেজি দরে চাল ও গম দেবে রাজ্য খাদ্য দফতর। খাদ্য দপ্তর সূত্রে এই খবর জানা গিয়েছে। ইতিমধ্যেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই প্রকল্পের ফাইলে চূড়ান্ত ছাড়পত্র দিয়েছেন। অর্থ দফতরও এর অনুমোদন দিয়েছে। এই প্রকল্প খুব শীঘ্রই শুরু হবে বলে খাদ্য দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে। 

ছিটমহল হস্তান্তরের পর সেখানকার বাসিন্দাদের পরিকাঠামো নিয়ে হাজারো অভিযোগ রয়েছে। এই বিষয়ে খাদ্য দফতরের পক্ষ থেকে একটি সমীক্ষা চালানো হয়। সেই সমীক্ষায় ছিটমহলের গরিব বাসিন্দাদের করুণ অবস্থা ফুটে উঠেছে। সেই রিপোর্ট পাঠানো হয় মুখ্যমন্ত্রীর দফতরে। এর পরেই এই বিষয়ে খাদ্য দফতরকে চুড়ান্ত সিদ্ধান্তের জন্য নির্দেশ পাঠানো হয়।

খাদ্য দফতরের সিদ্ধান্ত অনুযাহী,  ২৮৬৭ পরিবারকে ২ টাকা কেজি দরে চাল ও গম দেওয়া হবে। প্রতি মাসে প্রত্যেক পরিবারকে ৩৫ কেজি চাল ও ১৫ কেজি গম দেওয়ার পরিকল্পনা করেছে রাজ্য সরকার। ৫ লিটার করে কেরোসিন দেওয়ার কথা ঘোষণাও করেছেন খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক। ৫ জনের বেশি সদস্যের পরিবারে অতিরিক্ত ১ কেজি চাল ও হাফ লিটার কেরোসিন দেওয়া হবে। এর জন্য হলদিবাড়ি, দিনহাটা ও মেখলিগঞ্জে ৩টি শিবির খোলা হয়েছে। নতুন ৬টি রেশন দোকানও খোলা হয়েছে।

খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক বলেন, “ছিটমহলের বাসিন্দারা এ দেশে আসার পরই নানা সমস্যায়  পড়ছিলেন। তাদের বেশির ভাগেরই ভোটার কার্ড নেই। তাই তারা খাদ্য দফতরের থেকে চাল ও গম পাচ্ছিলেন না। তার পরই দফতরের পক্ষ থেকে উদ্যোগ নেওয়া হয়। সমস্ত বাসিন্দাকেই রেশন কার্ড দেওয়া হয়। এ বার তাঁদের চাল-গম দেওয়ার প্যাকেজ পুরোপুরি ঠিক হয়ে গিয়েছে। খুব শীঘ্রই এই প্রকল্প শুরু হবে।”

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here