নয়াদিল্লি : অযোধ্যায় রাম মন্দির নির্মাণ অত্যন্ত ‘সংবেদনশীল’ ইস্যু, তাই আদালতের বাইরে আলোচনার মাধ্যমে এর সমাধান খোঁজা হোক। মঙ্গলবার এমনটাই বলল শীর্ষ আদালত। বিষয়টি নিয়ে যাতে গ্রহণযোগ্য সমাধানসুত্রে পোঁছনো যেতে পারে তার জন্য সব পক্ষই চেষ্টা করুক। যদি সমাধান সূত্রে পোঁছনো সম্ভব না হয় তবে সেক্ষেত্রে সুপ্রিম কোর্ট মধ্যস্থতা করতে রাজি আছে। প্রধান বিচারপতি জে এস খেহার জানিয়েছেন, প্রয়োজনে তিনি নিজে মধ্যস্থতা করতে রাজি আছেন।

মামলার আবেদনকারী বিজেপি নেতা ও সাংসদ সুব্রহ্মণ্যম স্বামী জরুরি ভিত্তিতে শুনানি চেয়ে আদালতে আবেদন করেন। তিনি বলেন, বির্তকিত জমিতে রাম মন্দির তৈরির অনুমতি দেওয়া হোক। সরযূ নদীর অন্য পাশে মসজিদ তৈরি হোক। তাঁর মতে নামাজ যে কোনো জায়গায় পড়া সম্ভব কিন্তু রাম জন্মভূমি পাল্টানো সম্ভব নয়। ২০১০ সালে এলাহাবাদ হাইকোর্ট ওই বির্তকিত জমিতে রাম মন্দির তৈরির নির্দেশ দেয়। কিন্তু শীর্ষ আদালত সেই রায়ে স্থগিতাদেশ জারি করে। 

প্রধান বিচারপতি সুব্রহ্মণ্যম স্বামীকে নির্দেশ দেন বিষয়টি সংশ্লিষ্ট পক্ষের সঙ্গে আলোচনা করার এবং কী সিদ্ধান্ত নেওয়া হল তা আগামী ৩১ মার্চ আদালতকে জানানোর।  

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন