Connect with us

বাংলাদেশ

নতুন আইনে ধর্ষণকাণ্ডে প্রথম মৃত্যুদণ্ড, ৫ জনের ফাঁসির আদেশ বাংলাদেশে

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে ওই ৫ জনকে দোষী সাব্যস্ত করেন টাঙ্গাইল জজকোর্টের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক খালেদা ইয়াসমিন।

Published

on

ঋদি হক: ঢাকা

‘ধর্ষণের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড’ – নতুন অধ্যাদেশে সম্মতি জানিয়ে স্বাক্ষর করেন বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি (Bangladesh President) আবদুল হামিদ (Abdul Hamid)। রাষ্ট্রপতি সম্মতি জানানোর ঠিক দু’দিনের মাথায় এক ধর্ষণ মামলায় (rape case) ৫ জনকে মৃত্যুদণ্ডাদেশ (death sentence) দেওয়া হল।

টাঙ্গাইলের (Tangail) ভূঞাপুরে এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে ওই ৫ জনকে দোষী সাব্যস্ত করেন টাঙ্গাইল জজকোর্টের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক খালেদা ইয়াসমিন। শাস্তি হিসাবে তাদের মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়। কিন্তু বৃহস্পতিবার জনাকীর্ণ আদালতে বিচারকের রায় ঘোষণার সময় দুই অপরাধী উপস্থিত থাকলেও অপর ৩ জন জামিন নিয়ে পলাতক। নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন সংশোধনের পর ধর্ষণ মামলায় এটিই প্রথম রায়।  

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি ধর্ষণকাণ্ড নিয়ে একাধিক স্থানে প্রতিবাদে ফুঁসে ওঠে বাংলাদেশের সাধারণ ছাত্র-জনতা। এই প্রতিবাদের মুখে ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ডের বিধান রেখে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ সংশোধন করে এক অধ্যাদেশ তৈরি করা হয়। সোমবার সেই অধ্যাদেশের খসড়ায় চূড়ান্ত অনুমোদন দেয় মন্ত্রিসভা। ১৩ অক্টোবর সেই খসড়ায় সম্মতি জানিয়ে স্বাক্ষর করেন রাষ্ট্রপতি। জারি হয় অধ্যাদেশ। সংসদের অধিবেশন না থাকায় দ্রুততার সঙ্গে আইন কার্যকর করতে সাধারণত অধ্যাদেশ জারি করা হয়।

টাঙ্গাইলের ধর্ষণ মামলায় যাদের মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হল, তারা হল জেলার মধুপুর উপজেলার চারালজানী গ্রামের বদন চন্দ্র মণি ঋষির ছেলে সঞ্জিত (২৮), গোলাবাড়ি গ্রামের দিগেন চন্দ্র শীলের ছেলে গোপী চন্দ্র শীল (৩০), সুনীল চন্দ্র শীলের ছেলে সাগর চন্দ্র শীল (৩৩), সুনীল মণি ঋষির ছেলে সুজন মণি ঋষি (২৮) ও মণীন্দ্র চন্দ্রের ছেলে রাজন চন্দ্র (২৬)। এদের মধ্যে সাগর, সুজন ও মণি জামিন নিয়ে পলাতক।

টাঙ্গাইলের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিশেষ পাবলিক প্রসিকিউটর নাছিমুল আকতার জানান, সাগর চন্দ্র শীলের সঙ্গে ২০১২ সালে মোবাইল ফোনে পরিচয় হয় ভূঞাপুরের ছাব্বিশা গ্রামের মাদরাসা ছাত্রীর। সেই সুবাদে ওই বছরের ১৫ জানুয়ারি ছাত্রীটি মাদরাসায় যাওয়ার পথে সাগর কৌশলে তাকে একটি অটোরিকশায় তুলে এলেঙ্গা নামক স্থানে নিয়ে যায়। পরে মধুপুর উপজেলার চারালজানী গ্রামে তার বন্ধু রাজনের বাড়িতে ওঠে। সেখানে তার চার বন্ধু সাগরকে বিয়ে করার জন্য ওই ছাত্রীকে চাপ দেয়। কিন্তু বিয়ের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে ছাত্রী। এ কারণে ওই ছাত্রীকে রাজনের বাড়িতে আটক রেখে সাগর রাতে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। পরে ১৭ জানুয়ারি রাতে মধুপুরের বংশাই নদীর তীরে তাকে নিয়ে যায়। সেখানে তাকে পাঁচ জনে মিলে ফের পালাক্রমে ধর্ষণ করে পালিয়ে যায়। পরদিন ভোরবেলা স্থানীয়দের সহায়তায় মেয়েটিকে তার স্বজনরা এসে উদ্ধার করে।

ছাত্রী ভূঞাপুর থানায় মামলা দায়ের করে। পুলিশ সুজন মণি ঋষিকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠায়। সুজন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে সাগর, রাজন, সঞ্জিত ও গোপীচন্দ্র জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে। মামলার রায়ে পাঁচজনের মৃত্যুদণ্ড দিল আদালত।

খবরঅনলাইনে আরও পড়ুন

মুক্তিযুদ্ধে মিত্রবাহিনীর প্রয়াত সদস্যদের স্মরণে স্মৃতিস্তম্ভ নির্মাণ করছে বাংলাদেশ

দুর্গা পার্বণ

দুর্গোৎসব বাংলাদেশে: রাজধানীর সব চেয়ে বড়ো দুর্গাপূজার আয়োজন রমনা কালীমন্দিরে

এই মন্দির-চত্বরে বাবা লোকনাথের মন্দির, হরিচাঁদ এবং রাধাকৃষ্ণ মন্দির রয়েছে। এখানকার সব মন্দিরকে যেন একই বন্ধনে বেঁধে রেখেছেন আনন্দময়ী মা।

Published

on

রমনা কালীমন্দিরে ভিড়।

ঋদি হক: ঢাকা

ঐতিহাসিক রমনা কালীমন্দির ও মা আনন্দময়ী আশ্রমের মূল ফটকে পৌঁছে থমকে দাঁড়াতে হল। ডান পাশে শানবাঁধানো ঘাটে ভক্তদের ভিড়। কারণ আর কিছুই নয়। পুকুরে স্থাপন করা ৪০ ফুট উচ্চ নারায়ণের মূর্তিকে কেউ প্রণাম করতে ব্যস্ত, কেউ বা সেলফি তুলছেন সপরিবার। মূল ফটক পেরিয়ে সামনে এগিয়েই দাঁড়াতে হল সারিবদ্ধ লাইনে। হাতে স্যানিটাইজার নেওয়ার পর মন্দির-চত্বরে প্রবেশ। 

সেখানেও কম করে হলেও হাজার ছাড়িয়ে যাওয়া ভক্ত। মন্দিরের প্রচার সম্পাদক অপূর্ব সাহা জানালেন, মন্দির-চত্বরে এক সঙ্গে যাতে হাজার দুয়েক ভক্ত বসতে পারেন, সে ব্যবস্থা তাঁরা করেছেন। কিন্তু মাকে দর্শনের জন্য এত ভক্ত আসবেন সেই ধারণা ছিল না। অনেক ভক্তকেই দাঁড়িয়ে থাকতে হয়েছে। 

হাত স্যানিটাইজ করে ঢোকা।

রমনা কালীমন্দিরে দিনভর ভক্তের ভিড় লেগে থাকার আরও একটি কারণ হচ্ছে,  পাশেই ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যান। সেখানে সাংস্কৃতিক বলয় গড়ে তুলছে হাসিনা সরকার। মাকে দর্শনের পর অনেকেই সেখানে ঘুরতে যান। বিকেলে ফের চলে আসেন মন্দিরে। এখানে বিকেলের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপভোগ করে বাড়ি ফিরবেন ভক্তেরা।

উল্লেখ্য, ’৭১ সালে বর্বর পাকবাহিনী হাজার বছরের ঐতিহাসিক স্থাপনাটি ডিনামাইট ও ট্যাংক দিয়ে উড়িয়ে দিয়েছিল। হত্যা করেছিল পুরোহিত-সহ শতাধিক ভক্তকে। স্বাধীনতা-পরবর্তী সময়ে যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশ গড়ার কাজে যখন মনোনিবেশ করেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, সেই সময় স্বাধীনতার চার বছরের মাথায় তাঁকে সপরিবার হত্যা করা হয়।

দীর্ঘ সময় পর দেশ পরিচালনায় আসেন জাতির জনকের কন্যা শেখ হাসিনা। এ সময় সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের সর্বদক্ষিণে ২.২২ একর জমি বুঝিয়ে দেওয়া হয়। সেখানে গড়ে তোলা হয় মন্দির। এই মন্দির-চত্বরে বাবা লোকনাথের মন্দির,  হরিচাঁদ এবং রাধাকৃষ্ণ মন্দির রয়েছে। এখানকার সব মন্দিরকে যেন একই বন্ধনে বেঁধে রেখেছেন আনন্দময়ী মা।

নারায়ণমূর্তির সামনে ভিড়।

মন্দির কমিটির সভাপতি উৎপল সাহা জানান, ভারত সরকারের সাত কোটি টাকা অর্থ সাহায্যে ঐতিহাসিক রমনা কালীমন্দিরের পুনর্নির্মাণ হচ্ছে। করোনার প্রাদুর্ভাব না হলে এ বারের পুজোর আয়োজন নবনির্মিত মন্দিরেই হত। কিন্তু তা সম্ভব হল না।

আর পূজা আয়োজনের বিষয়ে উৎপলবাবুর সরল উক্তি, সকাল থেকে সন্ধ্যা-রাত অবধি মায়ের দরজা সবার জন্য উন্মুক্ত। হাজারো ভক্ত এসেছেন, মহাপ্রসাদ গ্রহণ করেছেন। সবাই হাসিমুখে মায়ের কৃপা প্রার্থনা করেছেন। এর চেয়ে বেশি আর কীই বা চাওয়ার আছে বলুন। মায়ের আর্শীবাদে আয়োজনের কোনো কমতি নেই ঐতিহাসিক রমনা কালীমন্দির ও মা আনন্দময়ী আশ্রমে।

সন্ধ্যায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপভোগ করেন হাজারো ভক্ত।

খবরঅনলাইনে আরও পড়ুন

দুর্গোৎসব বাংলাদেশে: বরদেশ্বরীতে বস্ত্র বিতরণে অভিনেত্রী শাহনূর, ঢাকেশ্বরীতে মাস্ক বিতরণ সমাজসেবী রাহা কাজীর

Continue Reading

দুর্গা পার্বণ

মহাসপ্তমীর দিনে ভাসল ঢাকা, মহাষ্টমীতেও বৃষ্টিপাতের বার্তা

শনিবারও সারা দেশে বৃষ্টি অব্যাহত থাকতে পারে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা।

Published

on

মহাসপ্তমীতে বৃষ্টি ঢাকায়।

ঋদি হক: ঢাকা

করোনাকালীন সর্বজনীন উৎসব মলিনতার চাদরে ঢেকে গিয়েছিলে আগেই।  বাকিটুকু কেড়ে নিল বৃষ্টি। ফলে করোনা আর বৃষ্টিতে এ বারের পুজোর আনন্দ ভেসে গেল। ভক্তদের হৃদয়ে রক্তক্ষরণ।

সপ্তমীতে আকাশের মুখ গোমড়া ছিল সকাল থেকেই। বেলা গড়াতেই ভারী বর্ষণ।  যা চলে দিনভর, রাতেও। এর আগে ষষ্ঠির দিন বিকালেই ঝুম বৃষ্টিতে জল জমে যায় ঢাকার কোনো কোনো এলাকায়। তবে সেই বৃষ্টি অনেকটাই আশীর্বাদ হয়ে আসে নগরবাসীর কাছে। কারণ প্রচণ্ড গরমে যে অস্থির অবস্থার সৃষ্টি হয়েছিল,  অন্তত তা থেকে মুক্তি মিলেছিল।

শুক্রবার আবহওয়া অফিস জানায়, দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট নিম্নচাপের ফলে বৃষ্টিপাত হচ্ছে। বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট গভীর নিম্নচাপের কারণে রাজধানী ঢাকা-সহ দেশের বিভিন্ন স্থানে সপ্তমীর সকাল থেকেই বৃষ্টি হচ্ছে। শুক্রবার সকাল ৬টা থেকে দুপুর পর্যন্ত ঢাকায় ২৮ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করেছে আবহাওয়া দফতর।

তবে অনেক বেশি হয়েছে বরিশালে। একই সময়ে বরিশালে বৃষ্টির পরিমাণ ১১৬ মিলিমিটার। এই বৃষ্টিপাত শনিবার অর্থাৎ মহাষ্টমীর দিনও চলবে।

বরিশালে বৃষ্টি।

আবহাওয়া অধিদফতরের তথ্য অনুযায়ী, উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থানরত নিম্নচাপটি গভীর নিম্নচাপে পরিণত হয়। যেটি সন্ধ্যা নাগাদ খুলনা ও পশ্চিমবাংলা অতিক্রম করেছে। এ সময় রাজধানী ঢাকা-সহ রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টিপাত হয়। নিম্নচাপের জেরে দেশের উপকূল অঞ্চলে স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে ৩/৪ ফুট বেশি উচ্চতার জোয়ার সৃষ্টি হওয়ার পূর্বাভাস দেয় আবহাওয়া দপ্তর। 

নিম্নচাপের প্রভাবে শুক্রবার সারা দিনই ঢাকা-সহ সারা দেশেই বৃষ্টি হয়েছে।  শনিবারও সারা দেশে বৃষ্টি অব্যাহত থাকতে পারে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা।

তাঁরা আরও জানিয়েছেন, দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমী বায়ু (বর্ষা) বাংলাদেশের পশ্চিমাংশ থেকে বিদায় নিয়েছে। দেশের অবশিষ্টাংশ থেকেও শিগগিরই বিদায় নেবে।

আবহাওয়ার বুলেটিনে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় ঢাকায় ৪৪ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। একই সময়ে সব চেয়ে বেশি বৃষ্টিপাত হয়েছে নোয়াখালির হাতিয়া উপজেলায়, ১৮৯ মিলিমিটার। এ ছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় কক্সবাজারে ১১৯, চট্টগ্রামে ১৪২, কুতুবদিয়ায় ১৬৬, সন্দীপে ১১০, সীতাকুণ্ডে ১১৭ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় সব চেয়ে কম বৃষ্টিপাত হয়েছে সিলেট বিভাগে, মাত্র ১১ মিলিমিটার।

খবরঅনলাইনে আরও পড়ুন

মমতা বন্দোপাধ্যায়কে পুজোর শুভেচ্ছা-উপহার পাঠালেন শেখ হাসিনা

Continue Reading

বাংলাদেশ

করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হলেই রোহিঙ্গাদের মায়ানমারে ফেরাতে উদ্যোগী হওয়ার ইঙ্গিত চিনের

অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে বাংলাদেশ যে কোভিড টিকা পাবে, তা-ও নিশ্চিত করেছেন চিনের বিদেশমন্ত্রী।

Published

on

দু' দেশের বিদেশমন্ত্রী। ফাইল চিত্র।

ঋদি হক: ঢাকা

করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হলেই রোহিঙ্গাদের (Rohingyas) যাতে ফেরানো যায়, তার জন্য উদ্যোগী হবে চিন (China)। এমন ইঙ্গিত এল চিনের তরফে। সেই লক্ষ্যেই তারা কাজ করে যাচ্ছে।

রোহিঙ্গাদের ফেরানোর বিষয়ে মায়ানমারের (Myanmar) সঙ্গে বিভিন্ন পর্যায়ে প্রতিনিয়ত যোগাযোগ রক্ষা করে চলেছে চিন। বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে রাজি থাকার কথাও ফের চিনকে জানিয়েছে মায়ানমার।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় চিনের বিদেশমন্ত্রী (Chinese Foreign Minister) ও স্টেট কাউন্সিলর ওয়াং ই (Wang Yi) বাংলাদেশের বিদেশমন্ত্রী (Bangladesh Foreign Minister) ড. এ. কে. আব্দুল মোমেনকে (Dr. A. K. Abdul Momen) ফোনালাপে এ কথা জানিয়েছেন। রোহিঙ্গাদের ফেরাতে বাংলাদেশের (Bangladesh) সঙ্গে দ্রুত আলোচনা শুরু করতে মায়ানমারকে বলেছে চিন।

বাংলাদেশের বিদেশমন্ত্রীকে বিষয়টি অবহিত করে চিনের বিদেশমন্ত্রী বলেছেন, মায়ানমারের নির্বাচনের পর প্রথমে রাষ্ট্রদূত পর্যায়ে এবং পরবর্তীতে বাংলাদেশ, চিন ও মায়ানমারের মধ্যে মন্ত্রী পর্যায়ের ত্রিপক্ষীয় বৈঠকের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের বিষয়ে ঢাকায় সিনিয়র কর্মকর্তা পর্যায়ের ত্রিপক্ষীয় বৈঠক দ্রুত শুরুর বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে দেখছে চিন সরকার।

দুই বিদেশমন্ত্রীর ফোনালাপে কোভিড ১৯ টিকার (Covid 19 vaccine) প্রসঙ্গটিও ওঠে আসে। অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে বাংলাদেশ যে কোভিড টিকা পাবে, তা-ও নিশ্চিত করেছেন চিনের বিদেশমন্ত্রী। করোনা-পরবর্তী কালে অর্থনৈতিক অবস্থার পুনরুদ্ধারে দুই দেশের একযোগে কাজ করার ব্যাপারে আগ্রহ প্রকাশ করেন ওয়াং ই।

করোনা মহামারি মোকাবিলায় বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বের ভূয়সী প্রশংসা করে চিনের বিদেশমন্ত্রী বলেছেন, বাংলাদেশের প্রতি চিনের সাহায্য অব্যাহত থাকবে। করোনা্র কারণে বাংলাদেশে চিনের যে সব প্রকল্প স্থগিত হয়ে রয়েছে বা ধীর গতিতে চলছে, সেগুলো করোনা কাটলেই দ্রুত শেষ করবে চিন।

বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চলের পিরোজপুরে ছিনতাইয়ের কবলে পড়ে চিনের এক নাগরিক প্রাণ হারাণ। দুই বিদেশমন্ত্রীর ফোনালাপে এই প্রসঙ্গটিও ওঠে। এই ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে প্রধান আসামি-সহ দু’ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। চিনের বিদেশমন্ত্রী বলেন, এই হত্যার দ্রুত বিচার এবং চিনের নাগরিকদের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করার বিষয়ে বাংলাদেশ সরকারের পদক্ষেপে চিন সরকার যথেষ্ট আস্থা রাখেন। ফোনালাপে ড. মোমেন জানিয়ে দেন, এ ঘটনায় দু’ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং দ্রুত বিচার নিশ্চিত করা হবে।

করোনা মহামারির কারণে চিনে আটকে পড়া বাংলাদেশের ছাত্রছাত্রী ও গবেষকদের ভিসা নবায়নের বিষয়েও দুই বিদেশমন্ত্রীর আলোচনা হয়েছে। বিদেশি ছাত্রছাত্রীদের চিনে প্রবেশের বিষয়ে তাঁর সরকার এখনও সিদ্ধান্ত নেয়নি জানিয়ে ওয়াং ই বলেন, এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত হলে বাংলাদেশিদের অগ্রাধিকারের তালিকায় রাখা হবে। সে ক্ষেত্রে ভিসা ও অন্যান্য বিষয়ের দ্রুত সমাধান হবে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

বাংলাদেশের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের লেখা ‘আমার দেখা নয়া চিন’ বইটি চিনা ভাষায় অনুবাদের উদ্যোগ নেওয়ায় সে দেশের সরকারকে ধন্যবাদ জানান বাংলাদেশের বিদেশমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন।

খবরঅনলাইনে আরও পড়ুন

বাংলাদেশের সুবর্ণজয়ন্তীতে চালু হয়ে যাচ্ছে চিলাহাটি-হলদিবাড়ি রেলপথ

Continue Reading

Amazon

Advertisement
দেশ8 mins ago

দৈনিক মৃতের সংখ্যা ফের ছ’শোর নীচে, সুস্থতার হার বেড়ে প্রায় ৯০ শতাংশ

দেশ42 mins ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ৫০১২৯, সুস্থ ৬২০৭৭

currency notes
শিল্প-বাণিজ্য57 mins ago

মোরাটোরিয়াম: কয়েক দিনের মধ্যেই অ্যাকাউন্টে বাড়তি সুদের টাকা ফেরত পাবেন গ্রাহক

দেশ2 hours ago

কোভ্যাকসিনের ট্রায়াল শেষ হতে পারে এপ্রিলের পর, তবে জরুরি ব্যবহারের সম্ভাবনা তার আগেই!

বিদেশ2 hours ago

কোভিড আক্রান্ত হওয়ার পর ক্ষমা চেয়ে নিলেন পোল্যান্ডের প্রেসিডেন্ট

ক্রিকেট11 hours ago

নাটকীয় প্রত্যাবর্তন! হারের দরজা থেকে জয় ছিনিয়ে নিল পঞ্জাব

খাওয়াদাওয়া12 hours ago

মহানবমীতে পেঁয়াজ রসুন ছাড়া নিরামিষ পাঁঠার মাংস

শরীরস্বাস্থ্য12 hours ago

শ্বাসকষ্ট কেন হয়? জেনে নিন ৯টি কারণ

দেশ42 mins ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ৫০১২৯, সুস্থ ৬২০৭৭

রাজ্য3 days ago

সপ্তমীর দুপুরে সুন্দরবনে আঘাত হানবে অতি গভীর নিম্নচাপ, ভারী বর্ষণে ভাসতে পারে কলকাতা ও পার্শ্ববর্তী জেলা

কলকাতা2 days ago

কাশীবোস লেনে ‘দেবীঘট’, হাতিবাগানে ‘অসমাপ্ত’, নলীন সরকারে ‘পুজো এবার কাঠামোতে’, নর্থ ত্রিধারার ‘শ্রদ্ধার্ঘ্য’, সিকদারবাগানে ‘উৎসব’

ক্রিকেট2 days ago

হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভরতি কপিল দেব

covaxin
দেশ2 days ago

ভারত বায়োটেকের ‘কোভ্যাকসিন’কে তৃতীয় দফার পরীক্ষার জন্য ছাড়পত্র

কলকাতা1 day ago

মহাসপ্তমীতে কলকাতা মহানগরীর অচেনা ছবি

ক্রিকেট2 days ago

মনীশ, বিজয়ের রেকর্ড জুটিতে রাজস্থানকে হারিয়ে দিল হায়দরাবাদ

ক্রিকেট2 days ago

ব্যাটে-বলে দাপট মুম্বইয়ের, ছিন্নভিন্ন চেন্নাই

কেনাকাটা

কেনাকাটা2 weeks ago

মেয়েদের কুর্তার নতুন কালেকশন, দাম ২৯৯ থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক: পুজো উপলক্ষ্যে নতুন নতুন কুর্তির কালেকশন রয়েছে অ্যামাজনে। দাম মোটামুটি নাগালের মধ্যে। তেমনই কয়েকটি রইল এখানে। প্রতিবেদন...

কেনাকাটা3 weeks ago

‘এরশা’-র আরও ১০টি শাড়ি, পুজো কালেকশন

খবর অনলাইন ডেস্ক : সামনেই পুজো আর পুজোর জন্য নতুন নতুন শাড়ির সম্ভার নিয়ে হাজর রয়েছে এরশা। এরসার শাড়ি পাওয়া...

কেনাকাটা3 weeks ago

‘এরশা’-র পুজো কালেকশনের ১০টি সেরা শাড়ি

খবর অনলাইন ডেস্ক : পুজো কালেকশনে হ্যান্ডলুম শাড়ির সম্ভার রয়েছে ‘এরশা’-র। রইল তাদের বেশ কয়েকটি শাড়ির কালেকশন অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন...

কেনাকাটা4 weeks ago

পুজো কালেকশনের ৮টি ব্যাগ, দাম ২১৯ টাকা থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক : এই বছরের পুজো মানে শুধুই পুজো নয়। এ হল নিউ নর্মাল পুজো। অর্থাৎ খালি আনন্দ করলে...

কেনাকাটা4 weeks ago

পছন্দসই নতুন ধরনের গয়নার কালেকশন, দাম ১৪৯ টাকা থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক : পুজোর সময় পোশাকের সঙ্গে মানানসই গয়না পরতে কার না মন চায়। তার জন্য নতুন গয়না কেনার...

কেনাকাটা4 weeks ago

নতুন কালেকশনের ১০টি জুতো, ১৯৯ টাকা থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক : পুজো এসে গিয়েছে। কেনাকাটি করে ফেলার এটিই সঠিক সময়। সে জামা হোক বা জুতো। তাই দেরি...

কেনাকাটা1 month ago

পুজো কালেকশনে ৬০০ থেকে ১০০০ টাকার মধ্যে চোখ ধাঁধানো ১০টি শাড়ি

খবর অনলাইন ডেস্ক: পুজোর কালেকশনের নতুন ধরনের কিছু শাড়ি যদি নাগালের মধ্যে পাওয়া যায় তা হলে মন্দ হয় না। তাও...

কেনাকাটা1 month ago

মহিলাদের পোশাকের পুজোর ১০টি কালেকশন, দাম ৮০০ টাকার মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : পুজো তো এসে গেল। অন্যান্য বছরের মতো না হলেও পুজো তো পুজোই। তাই কিছু হলেও তো নতুন...

কেনাকাটা1 month ago

সংসারের খুঁটিনাটি সমস্যা থেকে মুক্তি দিতে এই জিনিসগুলির তুলনা নেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিজের ও ঘরের প্রয়োজনে এমন অনেক কিছুই থাকে যেগুলি না থাকলে প্রতি দিনের জীবনে বেশ কিছু সমস্যার...

কেনাকাটা1 month ago

ঘরের জায়গা বাঁচাতে চান? এই জিনিসগুলি খুবই কাজে লাগবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : ঘরের মধ্যে অল্প জায়গায় সব জিনিস অগোছালো হয়ে থাকে। এই নিয়ে বারে বারেই নিজেদের মধ্যে ঝগড়া লেগে...

নজরে