দিল্লিতে বিদেশমন্ত্রকের আয়োজিত অনুষ্ঠান থেকে সরে দাঁড়াল বাংলাদেশ

0
প্রতীকী ছবি

ওয়েবডেস্ক: বাংলাদেশের বিদেশমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন বৃহস্পতিবারের ভারত সফর বাতিল করলেন। রাজধানী দিল্লিতে ভারতের বিদেশমন্ত্রক আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়ার কথা ছিল মোমেনের। কিন্তু নাগরিকত্ব (সংশোধনী) বিল নিয়ে পর্যায়ক্রমিক ঘটনার দিকে নজর রেখেই ওই সফর বাতিল করা হল বলে কূটনৈতিক মহলের অভিমত।

বাংলাদেশ-সহ তিনটি মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশে ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের উপর নির্যাতন চালানো হচ্ছে বলে তাদের নাগরিকত্ব দেওয়ার আইন সংস্কার করেছে কেন্দ্র। লোকসভার পর গত বুধবার রাজ্যসভাতেও পাশ হয়েছে নাগরিকত্ব (সংশোধনী) বিল ২০১৯। ঠিক একদিন পর বিদেশমন্ত্রকের ওই অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার কথা ছিল মোমেনের। বিষয়টির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট আধিকারিকরা জানিয়েছেন, “বাংলাদেশের বিদেশমন্ত্রী এই সফরটি আপাতত বন্ধ করা হয়েছে … সফরের জন্য নতুন কোনো তারিখ ঘোষণা করা হয়নি”।

Loading videos...

তবে আচমকা বাংলাদশের বিদেশমন্ত্রীর পরিকল্পনার পরিবর্তনের কারণগুলি নিয়ে কোনো সরকারি ব্যাখ্যা মেলেনি। কিন্তু পাকিস্তান, বাংলাদেশ ও আফগানিস্তান থেকে ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের নাগরিকত্ব দেওয়ার আইন প্রণয়নে সরকারের দৃষ্টিভঙ্গি এবং ব্যাখ্যা নিয়ে গত কয়েকদিন ধরেই বাংলাদেশেও অস্বস্তি তৈরি হওয়ার ইঙ্গিত রয়েছে।

মঙ্গলবার মোমেন ঢাকা ট্রিবিউনকে বলেন, “হিন্দুদের উপর নির্যাতনের বিষয়ে তারা (ভারত) যা বলছে, তা অনাস্থাহীন এবং অসত্যও”।

[ আরও পড়ুন: নাগরিকত্ব (সংশোধনী) বিল প্রসঙ্গে ভারতকে অস্বস্তিতে ফেলল বাংলাদেশ ]

তিনি বলেন, “বিশ্বের খুব কম দেশই আছে, যেখানে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বাংলাদেশের মত এতটা ভালো। আমাদের দেশে কোনো সংখ্যালঘু নেই। আমরা সবাই সমান. তিনি (অমিত শাহ) কয়েকমাস বাংলাদেশে এসে থাকলে, তিনি আমাদের দেশের অনুকরণীয় সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি দেখতে পাবেন”।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.