ঋদি হক: ঢাকা

বাংলাদেশের প্রশংসা করে মার্কিন কূটনীতিক বললেন, বাংলাদেশ (Bangladesh) হল ‘গ্রেটেস্ট হেলপিং হ্যান্ড’। রোহিঙ্গাদের (Rohingyas) আশ্রয় দেওয়ার মধ্য দিয়ে বিশ্বের মধ্যে এক উজ্জ্বল মানবিক দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে।

রোহিঙ্গাদের মানবিক আশ্রয় দেওয়ায় বাংলাদেশের জনগণ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেছেন ঢাকা সফরে আসা সাবেক মার্কিন বিদেশমন্ত্রী এবং প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের জলবায়ুবিষয়ক দূত (US climate envoy) জন কেরি (John Kerry)।   

তিনি বলেন, রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীকে আশ্রয় দিয়ে বাংলাদেশে উদারতা দেখিয়েছে। কিন্তু এই দায় কেবল বাংলাদেশের একার নয়। বরং রাষ্ট্রপুঞ্জ-সহ সকল দেশকে এই দায় নিতে হবে।

মি. কেরি বলেন, রোহিঙ্গা সংকট ও বর্তমানে মায়ানমারে যা চলছে সেটি মোকাবিলা করা এখন নৈতিক চ্যালেঞ্জ হিসেবে দাঁড়িয়েছে। এ সংকটের কী ভাবে সমাধান করা যায় তা নিয়ে বাইডেন প্রশাসন সর্বোচ্চ চেষ্টা করছে।

বাংলাদেশের বিদেশমন্ত্রী (Bangladesh Foreign Minister) ড. এ কে আব্দুল মোমেনের (Dr. A K Abdul Momen) সঙ্গে বৈঠকের পর এক সাংবাদিক বৈঠকে এ সব কথা তুলে ধরেন জন কেরি।

জলবায়ু সংকট বিষয়ে দু’দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক সম্মেলন (Climate Leaders Summit) অনুষ্ঠিত হবে ২২ ও ২৩ এপ্রিল। ইতিমধ্যে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা-সহ বিশ্বের ৪০ দেশের সরকার ও রাষ্ট্রপ্রধানকে এই সম্মেলনে যোগদানের জন্য আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।

বিমানবন্দরে মার্কিন দূতকে স্বাগত জানান বাংলাদেশের বিদেশমন্ত্রী ও তাঁর স্ত্রী।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট (US President) জো বাইডেনের (Joe Biden) আমন্ত্রণ নিয়ে শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টা নাগাদ  নয়াদিল্লি থেকে যুক্তরাষ্ট্রের বিমানবাহিনীর একটি বিশেষ বিমানে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছোন জন কেরি। বাংলাদেশের বিদেশমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বিমানবন্দরে তাঁকে স্বাগত জানান। সে সময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার এবং বাংলাদেশের বিদেশমন্ত্রীর স্ত্রী সেলিনা মোমেন।  

যুক্তরাষ্ট্র আয়োজিত ভার্চুয়াল ক্লাইমেট সামিটে যোগদানের জন্য মার্কিন প্রেসিডেন্টের আমন্ত্রণপত্র প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে আনুষ্ঠানিক ভাবে হস্তান্তর করতেই জন কেরির এই সফর।

আরও পড়ুন: Bangladesh lockdown: ১৪ এপ্রিল থেকে কঠোর লকডাউনে যাচ্ছে বাংলাদেশ, জরুরি সেবা ছাড়া সব বন্ধ

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন