ঢাকা : প্রায় অর্ধশতাধিক সংগঠনের যৌথ উদ্যোগে গঠিত হল বাংলাদেশ জনতা পার্টি। বুধবার ঢাকায় একটি সাংবাদিক সম্মেলনে এই রাজনৈতিক দলটির আনুষ্ঠানিক ঘোষণা করা হয়।

হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান আদিবাসী পার্টি ছাড়াও এই দলে আছে মুক্তির আহ্বান, বাংলাদেশ সচেতন সংঘ, জাগো হিন্দু পরিষদ, আনন্দ আশ্রম, হিন্দু লীগ, সনাতন আর্য সংঘ, বাংলাদেশ বুদ্ধিস্ট ফেডারেশন, বাংলাদেশ ঋষি সম্প্রদায়, বাংলাদেশ মাইনরিটি ফ্রন্ট, হিউম্যান রাইটস, হিন্দু ঐক্য জোট-সহ বিভিন্ন সংগঠন। দলের লোগোটিও অনেকটা ভারতীয় জনতা পার্টির লোগোর আদলে।

দলটি বাংলাদেশের আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ৩০০ আসনে প্রার্থী দেবে বলে ঘোষণা করেছে। নির্বাচনে জিতলে আগামী দিনের একগুচ্ছ কর্মসূচি কথাও ঘোষণা করেছে বিজেপি। এই কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে সম্পত্তি প্রত্যর্পণ আইনের জটিলতা নিরসন, সংখ্যালঘুদের জন্য পৃথক মন্ত্রণালয়, প্রতিটি স্কুল কলেজে সংখ্যালঘুদের জন্য পৃথক ধর্মের উপাসনালয় এবং দুর্গাপূজোয় তিন দিনের ছুটি।

এ দিন সদ্যগঠিত দলের কাছে সাংবাদিকরা জানতে চান, এটি ধর্মীয় জোট কি না? দলের পক্ষ থেকে জানানো হয় ‘‘এটি মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষে একটি দল।’’

সৌজন্যে: প্রথম আলো

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন