sheikh mujibur rahman
ছবি প্রতীকী। বিডি নিউজ২৪ থেকে

ওয়েবডস্ক: ১৯৪৭ সালের ১৫ আগস্ট। দেশের মহান সন্তানদের আত্মোৎসর্গের বিনিময়ে ভারত পেল স্বাধীনতা। অবিভক্ত ভারত ভেঙে তৈরি হওয়া পূর্ব পাকিস্তানও (বর্তমানে বাংলাদেশ) স্বাধীন হয়েছে আগের দিন। পূর্ব পাকিস্তান আবার স্বাধীন বাংলাদেশ হিসাবে আত্মপ্রকাশ করে আরও ২৪ বছর বাদে। কিন্তু বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার প্রায় বছর চারেক বাদেই সেই স্বাধীনতা আনয়নের মূল কান্ডারি শেখ মুজিবর রহমান নিহত হন ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট। সেই নির্মম ঘটনার প্রতিবাদেই এই দিনটি বাংলাদেশে জাতীয় শোক দিবস হিসাবে পালিত হয়। কী ঘটেছিল সে দিন?

ভারতীয় উপমহাদেশের অন্যতম প্রভাবশালী রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বের মধ্যে এক জন শেখ মুজিবর রহমান। অবিভক্ত ভারতের স্বাধীনতা আন্দোলন থেকে পাকিস্তানের হাত থেকে স্বাধীন বাংলাদেশ- এক লম্বা অধ্যায়ে জুড়ে রয়েছে তাঁর নাম। বাংলাদেশের ইতিহাসে তাঁর অবদানকে স্মরণীয় করে রাখতেই তাঁকে বাংলাদেশের জাতির জনক বা জাতির পিতা বলা হয়। তিনিই বাংলাদেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি। এই অসামান্য রাজনৈতিক বিচক্ষণ ব্যক্তিত্বকে তাঁর নিজের বাসভবনেই নিহত হতে হয়। নেপথ্যে ছিল সেনাবাহিনীর বিপথগামী সদস্যরা।

পড়তে পারেন: টানা ১৭ বছর ২৬ জানুয়ারিতে পালিত হয়েছে ভারতের স্বাধীনতা দিবস

শুধু মুজিবর নন, ঘাতকের হাতে সে দিন নিহত হন তাঁর স্ত্রী বেগম ফজিলাতুন্নেসা মুজিব, ছেলে শেখ কামাল, শেখ জামাল, শিশুপুত্র শেখ রাসেল-সহ পরিবারের ২৬ সদস্য ও স্বজন।যে ঘটনা সারা বিশ্বের ইতিহাসে একটি অন্যতম কলঙ্কজনক নজির।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন