‘পিস টিভি’ নিষিদ্ধ করার পর ‘পিস’ স্কুল নিয়ে তদন্ত বাংলাদেশে

0

খবর অনলাইন যে সব স্কুলের নামের সঙ্গে ‘পিস’ শব্দটি যুক্ত আছে, সেই সব স্কুল নিয়ে তদন্তে নামল বাংলাদেশ সরকার। সরকারের সন্দেহ, ‘পিস’ নামাঙ্কিত স্কুলগুলির সঙ্গে বিতর্কিত ভারতীয় ইসলামি ধর্মগুরু জাকির নাইকের ‘পিস টিভি’র যোগ থাকতে পারে। বাংলাদেশে ইতিমধ্যেই ‘পিস টিভি’র সম্প্রচার নিষিদ্ধ করে দেওয়া হয়েছে। অভিযোগ, এই ‘পিস টিভি’ সন্ত্রাসবাদীদের উৎসাহ জোগায়।

‘পিস’ নামাঙ্কিত কতগুলি স্কুল বাংলাদেশে চলছে তার সঠিক হিসাব সরকারের কাছে না থাকলেও এক জন সরকারি অফিসার জানান ‘পিস’ নামে ২৮টি স্কুল রয়েছে।

বিডিনিউজ২৪.কম-এর এক রিপোর্টে বলা হয়েছে, রাজধানী ঢাকা এবং দেশের অন্যান্য প্রান্তে ‘পিস’ নামাঙ্কিত স্কুলগুলি ছড়িয়ে রয়েছে। বিতর্কিত ইসলামি ধর্মগুরুর আদর্শের লাইনে এই স্কুলগুলি পরিচালিত হয় বলে অভিযোগ। সরকার ওই ‘পিস’ স্কুলগুলির কার্যকলাপ তদন্ত করে দেখছে বলে ওই রিপোর্টে বলা জানানো হয়েছে।

ইতিমধ্যে ঢাকাতেই ২০টি ‘পিস’ স্কুল চিহ্নিত করা গিয়েছে এবং ওদের কাজকর্ম তদন্ত করে দেখতে গোয়েন্দা সংস্থাগুলিকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ওই অফিসার বলেছেন, “যদি সত্যিই ওই স্কুলগুলি জাকির নাইকের আদর্শ অনুসরণ করে, তা হলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।” যে সব বাংলাদেশি জঙ্গি গুলশনের রেস্তোরাঁয় আক্রমণ চালিয়ে ২২ জনকে মেরে ফেলে, সেই সব জঙ্গিদের অনেকেই ৫০ বছর বয়সি জাকির নায়েকের বক্তৃতায় অনুপ্রাণিত হয়েছে বলে অভিযোগ।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন