30 C
Kolkata
Friday, June 18, 2021

Chinese Vaccine In Bangladesh: বাংলাদেশে চিনা টিকা তৈরি হলে উভয় দেশই লাভবান হবে, বললেন ড. মোমেন

আরও পড়ুন

ঋদি হক: ঢাকা

চিনের উদ্ভাবিত সিনোফার্মের (Sinopharm) টিকা যৌথ ভাবে বাংলাদেশে উৎপাদন হলে দু’ দেশই লাভবান হবে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO) সিনোফার্মের টিকা জরুরি ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছে। বাংলাদেশও এখন টিকা আনতে চায়। চিন বাংলাদেশকে ৫ লাখ ডোজ টিকা উপহার দিয়েছে। এই টিকা আনতে বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর একটি বিশেষ মঙ্গলবার বেজিং যায়। টিকার চালান নিয়ে বিশেষ বিমানটি বুধবার ভোরে ঢাকায় পৌঁছোয়।

Loading videos...
- Advertisement -

এ দিন ঢাকায় রাষ্ট্রীয় অতিথিভবন ‘পদ্মা’য় টিকা হস্তান্তর করেন চিনের রাষ্ট্রদূত (Chinese ambassador) লি জিমিং (Li Jiming)। বাংলাদেশের স্বাস্থ্যমন্ত্রী (Bangladesh health minister) জাহিদ মালেক (Jahid Malek) ও বিদেশমন্ত্রী (Bangladesh foreign minister) ড. এ কে আব্দুল মোমেন (Dr. A K Abdul Momen) এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

টিকা দেওয়ায় চিনকে ধন্যবাদ জানিয়ে বিদেশমন্ত্রী বলেন, “সিনোফার্মের টিকা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা অনুমোদন না দেওয়ায় প্রথম দিকে আমরাও আনতে খুব বেশি আগ্রহী ছিলাম না। আমাদের বিশেষজ্ঞরাও এমন নির্দেশনা দিয়েছিলেন। তবে এখন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা সিনোফার্মের টিকা জরুরি ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছে। আমরাও এখন টিকা আনতে চাই।”

ড. মোমেন বলেন, চিনের উদ্ভাবিত সিনোফার্মের (Sinopharm) টিকা যদি যৌথ ভাবে বাংলাদেশে উৎপাদন করা যায় তা হলে দু’ দেশই লাভবান হবে।

টিকা হস্তান্তর করে লি জিমিং বলেন, তাঁর দেশে টিকার প্রচণ্ড অভ্যন্তরীণ চাহিদা থাকা সত্ত্বেও বাংলাদেশকে চিন টিকা দিয়েছে বন্ধুত্বপূর্ণ ও অংশীদারিত্বের সম্পর্কের কারণে। চিনা রাষ্ট্রদূত বলেন, “আমাদের ওখানে যখন করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ছিল, তখন বাংলাদেশ আমাদের পাশে দাঁড়িয়েছিল। আমরা সেটা ভুলিনি। আমরা এই টিকা উপহার হিসেবে দিয়েছি। সামনের দিনগুলোতে আশা করি, আরও টিকা দিতে পারব।”

অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, চিনের কাছ থেকে আরও বেশি টিকা কেনা নিয়ে আলোচনা চলছে। আশা করি, আগামী জুন-জুলাইয়ের মধ্যে প্রতি মাসে কিছু কিছু করে টিকা পাওয়া যাবে।

এর আগে ভোর সাড়ে পাঁচটায় বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর সি১৩০জে পরিবহণ বিমানটি চিন থেকে টিকা নিয়ে কুর্মিটোলায় বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর ঘাঁটি বঙ্গবন্ধুতে অবতরণ করে। বিমানবাহিনীর প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল মাসিহুজ্জামান সেরনিয়াবত চিনা ভ্যাকসিনগুলো গ্রহণ করেন। এ সময় চিনের একটি প্রতিনিধিদলও সেখানে উপস্থিত ছিলেন। বিমান বাহিনীর তরফে বলা হয়েছে, ভ্যাকসিনগুলো যথাযথ তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে দেশে আনা হয়েছে।

আরও পড়ুন: Eid in Bangladesh: ঈদযাত্রায় পদদলিত হয়ে ৬ জনের মৃত্যু

- Advertisement -

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

- Advertisement -

আপডেট

পড়তে পারেন