Connect with us

জলপাইগুড়ি

জোরকদমে এগিয়ে চলছে চিলাহাটি-হলদিবাড়ি রেলপথ নির্মাণের কাজ

মাত্র ৭ কিলোমিটার রেলপথ বসানো হলেই দু’ দেশের মধ্যে ট্রেন চলাচল শুরু হবে।

Published

on

ঋদি হক: ঢাকা

ইতিহাসটা অনেক পুরোনো হলেও তাতে ধুলোময়লা জমতে দেওয়া হয়নি। স্মৃতির পথ বেয়ে ফেলে আসা দিনগুলো এখনও স্মরণ করে নষ্টালজিয়ায় ভোগেন সীমান্তবর্তী প্রৌঢ় বাসিন্দারা।

বাংলাদেশের (Bangladesh) নীলফামারী জেলার ডোমার উপজেলার সীমান্তঘেঁষা জায়গাটির নাম চিলাহাটি (Chilahati)। মাত্র ৭ কিলোমিটার রেলপথ বসানো হলেই দু’ দেশের মধ্যে ট্রেন চলাচল শুরু হবে। এটি হবে বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে পঞ্চম রেলপথ সংযোগ। রেলপথটি চালু হলে বাংলাদেশের সঙ্গে ভারত, নেপাল ও ভুটানের রেল যোগাযোগ স্থাপিত হবে। বাংলাদেশের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ও লাভজনক রেলপথ হবে এটি। পালটে যাবে মানুষের জীবনমান। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে রেলপথটির উদ্বোধন করবেন।

আরও পড়ুন: চুক্তির প্রায় দু’ বছর পর চট্টগ্রাম বন্দর দিয়ে পণ্য গেল ভারতের এক প্রান্ত থেকে আরেক প্রান্তে

অবশ্য গত বছরের ২১ সেপ্টেম্বর পশ্চিমবঙ্গের হলদিবাড়ি (Haldibari) পর্যন্ত ব্রডগেজ রেলপথ নির্মাণকাজের শিলান্যাস করে বাংলাদেশের রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন জানিয়েছিলেন, প্রায় ৫৪ বছরের বেশি সময় ধরে বন্ধ থাকা রেলপথটি ২০২০ সালে জুন মাসেই চালু হবে। কিন্তু নানা প্রতিকূলতায় তা হয়ে ওঠেনি। পৌনে ৭ কিলোমিটার ব্রডগেজ রেলপথ নির্মাণে বাংলাদেশ সরকারের ব্যয় হচ্ছে ৮০ কোটি ১৬ লাখ ৯৪ হাজার টাকা।

এরই মধ্যে চিলাহাটি রেলপথের ২.৮৫০ কিলোমিটার রেললাইন পাতার কাজ শেষ হয়েছে। পাশাপাশি দু’টি লেভেল ক্রসিং গেট, স্টেশন সংলগ্ন তিনটি নতুন লুপলাইন স্থাপন, অত্যাধুনিক প্লাটফর্ম, অ্যাপ্রোচ রোড, দোতলা রেস্টহাউস, কাস্টমস, চেকপোস্ট-সহ আন্তর্জাতিক মানের স্টেশনের নির্মাণকাজ জোরকদমে চলছে। চিলাহাটি-হলদিবাড়ি ইন্টারচেঞ্জ লিঙ্ক চালু হলেই সৌহার্দ্যের দুয়ার খুলে যাবে। 

ভারতীয় অংশে কাজ অনেকটাই শেষ হয়ে গিয়েছে।

হলদিবাড়ির সঙ্গে তদানীন্তন পাকিস্তানের ইন্টারচেঞ্জ লিঙ্ক চালু ছিল ১৯৬৫ সাল পর্যন্ত। সে বছর সেপ্টেম্বর মাসে ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধের পর বন্ধ হয়ে যায় রেলসংযোগ। হলদিবাড়ি ও চিলাহাটি রেলস্টেশন দু’টি নিজ নিজ দেশে চালু রয়েছে। চিলাহাটি থেকে ঢাকা, খুলনা, রাজশাহী ও অপর দিকে হলদিবাড়ী থেকে ভারতের (India) বিভিন্ন রুটে নিয়মিত ট্রেন চলাচল করছে। শুধুমাত্র সীমান্ত এলাকা বাংলদেশের চিলাহাটি ও ভারতের হলদিবাড়ির মধ্যে ট্রেন চলাচল থমকে আছে ৫৪ বছর।

উল্লেখ্য, ২০১১ সালে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফরের সময় রেলপথের বিষয়ে দু’ দেশের চুক্তি হয়। সেই অনুযায়ী ভারতীয় অংশে কাজ শুরু হয়। বাংলাদেশ অংশ কাজ শুরু হতে দেরি হয়। গত বছর ২১ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ প্রান্তে রেলপথ নির্মাণকাজের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে হাজির থেকে ঢাকায় ভারতীয় হাইকমিশনার রীভা গাঙ্গুলি দাস বলেছিলেন, এক সময় শিয়ালদহ থেকে ছেড়ে আসা দার্জিলিং মেল রানাঘাট দিয়ে বাংলাদেশের ভেড়ামারা, হার্ডিঞ্জ ব্রিজ, সান্তাহার, হিলি, পার্বতীপুর, নীলফামারী, চিলাহাটি হয়ে ভারতের হলদিবাড়ি, জলপাইগুড়ি ও শিলিগুড়িতে চলাচল করত। সেই আদলেই এই পথে ফের দুই দেশের রেল যোগাযোগ চালু হবে। এতে ভারতের রেলে যাত্রাপথ অনেকটাই কমবে। বর্তমানে শিয়ালদহ থেকে শিলিগুড়ির দূরত্ব ৫৩৭ কিলোমিটার। চিলাহাটি থেকে সীমান্ত পর্যন্ত রেলপথ তৈরি হলেই ভারত ও বাংলাদেশের মূল রেলপথের সঙ্গে সংযোগ তৈরি হবে।

জলপাইগুড়ি

স্মার্টফোনের অভাবে অনলাইনে ক্লাস করতে না পারায় অবসাদ, আত্মঘাতী জলপাইগুড়ির কলেজ ছাত্রী

স্মার্টফোনের অভাবে অনলাইন ক্লাসে অংশ নিতে পারছিলেন না ওই ছাত্রী।

Published

on

মানসিক অবসাদে আত্মহত্যা। প্রতীকী ছবি

খবর অনলাইন ডেস্ক: স্মার্টফোন কেনার সামর্থ্য নেই দিনমজুর বাবার! মানসিক অবসাদে জলপাইগুড়ির বছর কুড়ির এক কলেজ ছাত্রী আত্মহত্যা করেছেন বলে সংবাদ সংস্থা সূত্রের খবর।

সংবাদ সংস্থা পিটিআইয়ের একটি টুইটে পুলিশের বক্তব্য উদ্ধৃত করে বলা হয়েছে, স্মার্টফোনের অভাবে অনলাইন ক্লাসে অংশ নিতে পারছিলেন না ওই ছাত্রী।

ইয়াহু নিউজের একটি প্রতিবেদন অনুযায়ী, জয়ন্তী বাউলী নামে ওই ছাত্রী বিএ প্রথম বর্ষের ছাত্রী। গত সোমবার রাতে সারিপুকুরি এলাকার ডাবরিপাড়া গ্রামে নিজের বাড়িতে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন ওই ছাত্রী।

বুধবার মৃত ছাত্রীর বাবা অভিরাম বাউলী পুলিশের কাছে জানান, তিনি একজন দিনমজুর। কোনো রকমে তাঁর সংসার চলে। এরই মধ্যে অনেক কষ্টে মেয়ের পড়াশোনার খরচ চালিয়ে আসছিলেন।

কান্নায় ভেঙে পড়ে তিনি বলেন, “কয়েক দিন ধরেই অনলাইন ক্লাসের জন্য মেয়ে একটা স্মার্টফোন চাইছিল। কিন্তু আমার সামর্থ্য নেই। কিন্তু সে যে এত বড়ো কাণ্ড ঘটিয়ে ফেলবে, তা জানলে আমি যেখান থেকে হোক ধার করে একটা মোবাইল কিনে দিতাম”।

বিস্তারিত আসছে…

Continue Reading

জলপাইগুড়ি

গাছের ঝরা পাতা, ছোলায় বাজিমাত জলপাইগুড়ির শুভ্রা মণ্ডলের

ইতিমধ্যে ছোলার ওপর ভারতের মানচিত্র, পৃথিবীর মানচিত্র, চার্লি চ্যাপলিন থেকে শুরু করে জগন্নাথ-সুভদ্রা-বলরাম পর্যন্ত এঁকেছেন শুভ্রা।

Published

on

অর্ণব দত্ত

বাংলার এই প্রান্তে প্রকৃতি অপূর্ব হলেও মানুষজন এখানে আজও বেশ কষ্ট করেই বাঁচে। সবুজ বন, দিগন্তে হারিয়ে যাওয়া মেঠো পথ, তাজা বাতাস দারিদ্র্য মোচন করে না। কিন্তু চোখের ওপর স্বপ্ন মেলে ধরে। সেই স্বপ্নের ডানায় ভর করে শৈশব থেকেই ছবি আঁকেন জলপাইগুড়ির (Jalpaiguri) ঘুঘুডাঙার মেয়ে শুভ্রা মণ্ডল (Shuvra Mondal)।

ন্যাশনাল বুক অব রেকর্ডস (National Book of Records) এবং ইন্টারন্যাশনাল বুক অব রেকর্ডস (International Book of Records) নামে দু’টি সংস্থা কলেজছাত্রী শুভ্রার প্রতিভাকে স্বীকৃতি দিয়েছে। ছোলার ডালের ওপর এক মিনিটে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের প্রতিকৃতি এঁকে রেকর্ড করেছেন শুভ্রা।

গাছের পাতায় বিদ্যাসাগর।

জলপাইগুড়ির প্রসন্নদেব মহিলা মহাবিদ্যালয়ে তৃতীয় বর্ষে ইংরেজি নিয়ে পড়ছেন শুভ্রা। বাড়ি থেকে দেড় ঘণ্টার পথ পেরিয়ে কলেজে যেতে হয়। 

শুভ্রা জানালেন, ক্লাস ফাইভ থেকে এইট পর্যন্ত ছবি আঁকা শিখেছেন। এর পর পড়াশোনার চাপে ছবি আঁকা শেখা ছেড়ে দেন। ছবি আঁকা না শিখতে পারার আরও এক অন্যতম কারণ ছিল অর্থাভাব। 

গ্রামেই বাবার একটি স্টেশনারি দোকান রয়েছে। শুভ্রার মা শিখাদেবী বললেন, “ওর বাবার দোকানটা তখন খুবই ছোট। টাকাপয়সার টানাটানি চলছিল। তাই ছবি আঁকাটা শেখাতে পারিনি।”

ছোলায় চার্লি চ্যাপলিন।

শুভ্রাও এক কথায় ছবি আঁকা ছেড়ে দিয়েছিলেন। লেখাপড়া নিয়েই দিন কাটছিল। বাবার দোকান এখন আগের তুলনায় চলনসই। বোন পায়েল আগামী বছর উচ্চ মাধ্যমিক দেবে। বাবার আয়ের ওপরই গোটা সংসারটা নির্ভর করছে।

অর্থাভাবে ছবি আঁকা ছেড়ে দিলেও তাই অভিমান হয়নি শুভ্রার। লকডাউন শুভ্রাকে ফের নতুন করে পুরোনো ভালোবাসা প্রসঙ্গে ভাবিয়েছে।

শুভ্রা বললেন, “লকডাউনে টানা কলেজের ছুটি। ভাবলাম ছবি আঁকি। কাগজ আর রং কিনে ছবি আঁকা এখন সম্ভব না। তাতে বাবার ওপর চাপ পড়বে। এ দিকে ইচ্ছাটাও বাড়ছিল। তাই গাছের ঝরে পড়া পাতার ওপর ছবি আঁকতে শুরু করলাম। বট, অশ্বত্থ, কদমপাতার ওপর বল পেন দিয়ে এঁকেছি। এর পর ব্লেড দিয়ে কেটে নিয়েছি। আকাশের আলোর দিকে পাতাটা রাখলে ছবিটা পরিষ্কার দেখতে পাবেন।”

পৃথিবীকে সবুজময় করার আহ্বান।

এ ভাবে কাগজ কেটে শুভ্রা বানিয়েছেন মনীষীদের অবয়বও।

শুভ্রা বললেন, “লকডাউনে একঘেয়েমি কাটাতে ঠিক করি মাইক্রোআর্টের কাজ করব। প্রথমে বাদামের ওপর রবীন্দ্রনাথ আঁকতে চেয়েছিলাম। কিন্তু হচ্ছিল না। বরং বাদামগুলো আমিই খেয়ে নিচ্ছিলাম। তার পর ছোলার ওপর চেষ্টা করে সফল হলাম।”

ন্যাশনাল বুক অব রেকর্ডস এবং ইন্টারন্যাশনাল বুক অব রেকর্ডস শুভ্রার নাম রেকর্ডধারী হিসেবে নথিভুক্ত করে তাঁকে সার্টিফিকেট পাঠিয়েছে চলতি লকডাউন পর্বেই। 

ইতিমধ্যে ছোলার ওপর ভারতের মানচিত্র, পৃথিবীর মানচিত্র, চার্লি চ্যাপলিন থেকে শুরু করে জগন্নাথ-সুভদ্রা-বলরাম পর্যন্ত এঁকেছেন শুভ্রা। শুভ্রা জানালেন, পুরো কাজটাই তিনি খালি চোখে করছেন। মাইক্রোস্কোপের সাহায্য নেননি। আর এঁকেছেন বল পেনে।

ছোলায় বিশ্ব, ভারত ও পশ্চিমবঙ্গ।

মা শিখাদেবী মেয়ের ভূয়সী প্রশংসা করলেন। তিনি বললেন, “শুভ্রা ছোটোবেলা থেকে পড়াশোনাতেও ভালো। মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক দু’টো পরীক্ষাতেই ভালো ফল করেছিল। খরচ জোগাতে পারব না বলে বিজ্ঞান পড়াতে পারিনি।”

এ সব নিয়ে কোনো খেদ নেই শুভ্রার। বরং ছবি আঁকা আর মাইক্রোআর্টের কাজ চালিয়ে যেতে চান। ভবিষ্যতে শিক্ষিকা হওয়ার স্বপ্ন আছে শুভ্রার।

Continue Reading

জলপাইগুড়ি

শিলিগুড়ি-জলপাইগুড়িতে কঠোর লকডাউনের মেয়াদ বাড়ল আরও ৭ দিন

পরিস্থিতি বিবেচনা করে ফের সাত দিনের কঠোর লকডাউন জারি হল শিলিগুড়ি-জলপাইগুড়িতে।

Published

on

ওয়েবডেস্ক: লাফিয়ে বাড়ছে করোনাভাইরাস (Coronavirus) আক্রান্তের সংখ্যা। পরিস্থিতি বিবেচনা করে ফের সাত দিনের কঠোর লকডাউন (Lockdown) জারি হল শিলিগুড়ি-জলপাইগুড়িতে।

গত ৯ জুলাই থেকে করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে ফের কলকাতা-সহ পাঁচটি জেলায় কড়া লকডাউন শুরু হয়। মূলত কনটেনমেন্ট জোনগুলিতেই ফের লকডাউনের কড়াকড়ি শুরু হয়। কলকাতা এবং লাগোয়া জেলার কনটেনমেন্ট জোনগুলি ছাড়াও শিলিগুড়ি, জলপাইগুড়ি, মালদহ, কোচবিহার ও রায়গঞ্জে সার্বিক ভাবে লকডাউন শুরু হয়। এই নিয়ন্ত্রণ বিধি কত দিন চলবে, সে সময় তা বলা হয়নি।

পর গত ১৫ জুলাই ওই লকডাউনের মেয়াদ শেষ হলে তা পুনরায় ১৯ জুলাই পর্যন্ত বাড়ানো হয়। এ দিন শিলিগুড়ি এবং জলপাইগুড়িতে লকডাউনের মেয়াদ ফের সাত দিনের জন্য বাড়ানো হল।

জেলা শাসক অভিষেক তিওয়ারি জানিয়েছেন, সংক্রমণ বিস্তারের কথা মাথায় রেখে ফের জলপাইগুড়ি পুরসভা এলাকায় লকডাউন করা হচ্ছে বলে।

লকডাউনের মেয়াদ আবার একবার বাড়তেই শুরু হয়েছে পুলিশ-প্রশাসনের তৎপরতা। সাধারণ মানুষের উদ্দেশে রাস্তাঘাট ফাঁকা করে দেওয়ার আবেদন জানিয়েছে পুলিশ।

একটি মহলের দাবি, প্রথমের দিকে জলপাইগুড়িতে করোনা সংক্রমণ এতটা বিস্তারলাভ করতে পারেনি। কিন্তু অভিবাসী শ্রমিকদের ফেরার পর সংক্রমণ ক্রমশ ছড়াতে শুরু করে।

গত শনিবার রাজ্য সরকারে প্রকাশিত বুলেটিনে জানানো হয়, দার্জিলিং জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১২৩৭। শিলিগুড়ি (Siliguri) পুর এলাকা এর অন্তর্গত। নতুন করে এক দিনে আক্রান্ত হয়েছেন ৭০ জন! মোট মৃত্যু হয়েছে ১৪ জনের। জলপাইগুড়িতে (Jalpaiguri) এখনও পর্যন্ত করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৭২৯। শেষ চব্বিশ ঘণ্টায় আক্রান্ত হন ৬৪ জন। মৃত্য়ু হয়েছে মোট তিন জনের।

আরও পড়তে পারেন: ২৯টি রাজ্যে করোনা-মৃত্যুর হার জাতীয় গড়ের থেকেও নীচে

Continue Reading
Advertisement
আইপিএল6 hours ago

সুপার ওভারে পঞ্জাবকে হারিয়ে জয় ছিনিয়ে নিল দিল্লি

Md. Shami
আইপিএল8 hours ago

পঞ্জাবকে ১৫৮ রানের টার্গেট দিল দিল্লি

শিল্প-বাণিজ্য8 hours ago

জিএসটি ক্ষতিপূরণ: ২১টি রাজ্য বেছে নিল প্রথম বিকল্প, দ্বিতীয়টি পছন্দ নয় কারও

রাজ্য9 hours ago

রাজ্যে সুস্থতার হার ৮৭ শতাংশের উপর, তেমন কোনো হেরফের নেই দৈনিক সংক্রমণে

দেশ10 hours ago

সোমবার থেকে স্কুল খোলা বাধ্যতামূলক নয়, দেখে নিন কোন রাজ্য কী সিদ্ধান্ত নিল

corona
দেশ11 hours ago

৫টি রাজ্যেই মোট সক্রিয় কোভিডরোগীর ৬০ শতাংশ!

রাজ্য11 hours ago

বঙ্গোপসাগরে তৈরি নিম্নচাপের জেরে বৃষ্টি, হলুদ সর্তকতা জারি করল আবহাওয়া দফতর

দেশ13 hours ago

৬ বিধায়ক, ৩ সাংসদ এবং প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি-সহ আর যে সব ‘ভিভিআইপি’ করোনার শিকার

দেশ19 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ৯২৬০৫, সুস্থ ৯৪৬১২

শিল্প-বাণিজ্য3 days ago

এসবিআই এটিএমে টাকা তোলার নিয়ম বদলে গেল! দেখে নিন ওটিপি-ভিত্তিক পদ্ধতির খুঁটিনাটি বিষয়

কলকাতা3 days ago

কয়েকটি স্টেশনে ই-পাসের সংখ্যা বাড়াচ্ছে কলকাতা মেট্রো

Shreyas Iyer
ক্রিকেট2 days ago

আইপিএলের অন্যতম সেরা বোলিং লাইনআপ কি দিল্লি ক্যাপিটাল্‌সের?

দেশ10 hours ago

সোমবার থেকে স্কুল খোলা বাধ্যতামূলক নয়, দেখে নিন কোন রাজ্য কী সিদ্ধান্ত নিল

MS Dhoni
ক্রিকেট3 days ago

চেন্নাই সুপারকিংসের আদর্শ লাইনআপে কত নম্বরে ব্যাট করতে পারেন মহেন্দ্র সিংহ ধোনি?

ishan porel mohammad shami
ক্রিকেট2 days ago

কিংস ইলেভেন পঞ্জাবের হয়ে নতুন বলে বাংলার দুই পেসার?

শরীরস্বাস্থ্য3 days ago

কোভিড-১৯: স্কুল খোলার আগে নিজের সন্তানকে এই ৫টি তথ্য অবশ্যই জানাবেন

কেনাকাটা

কেনাকাটা2 days ago

সংসারের খুঁটিনাটি সমস্যা থেকে মুক্তি দিতে এই জিনিসগুলির তুলনা নেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিজের ও ঘরের প্রয়োজনে এমন অনেক কিছুই থাকে যেগুলি না থাকলে প্রতি দিনের জীবনে বেশ কিছু সমস্যার...

কেনাকাটা4 days ago

ঘরের জায়গা বাঁচাতে চান? এই জিনিসগুলি খুবই কাজে লাগবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : ঘরের মধ্যে অল্প জায়গায় সব জিনিস অগোছালো হয়ে থাকে। এই নিয়ে বারে বারেই নিজেদের মধ্যে ঝগড়া লেগে...

কেনাকাটা1 week ago

রান্নাঘরের জনপ্রিয় কয়েকটি জরুরি সামগ্রী, আপনার কাছেও আছে তো?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রান্নাঘরের এমন কিছু সামগ্রী আছে যেগুলি থাকলে কাজ করাও যেমন সহজ হয়ে যায়, তেমন সময়ও অনেক কম খরচ...

কেনাকাটা2 weeks ago

ওজন কমাতে ও রোগ প্রতিরোধশক্তি বাড়াতে গ্রিন টি

খবরঅনলাইন ডেস্ক : ওজন কমাতে, ত্বকের জেল্লা বাড়াতে ও করোনা আবহে যেটি সব থেকে বেশি দরকার সেই রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা...

কেনাকাটা2 weeks ago

ইউটিউব চ্যানেল করবেন? এই ৮টি সামগ্রী খুবই কাজের

বহু মানুষকে স্বাবলম্বী করতে ইউটিউব খুব বড়ো একটি প্ল্যাটফর্ম।

কেনাকাটা3 weeks ago

ঘর সাজানোর ও ব্যবহারের জন্য সেরামিকের ১৯টি দারুণ আইটেম, দাম সাধ্যের মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ঘর সাজাতে কার না ভালো লাগে। কিন্তু তার জন্য বাড়ির বাইরে বেরিয়ে এ দোকান সে দোকান ঘুরে উপযুক্ত...

কেনাকাটা4 weeks ago

শোওয়ার ঘরকে আরও আরামদায়ক করবে এই ৮টি সামগ্রী

খবর অনলাইন ডেস্ক : সারা দিনের কাজের পরে ঘুমের জায়গাটা পরিপাটি হলে সকল ক্লান্তি দূর হয়ে যায়। সুন্দর মনোরম পরিবেশে...

kitchen kitchen
কেনাকাটা1 month ago

রান্নাঘরের এই ৮টি জিনিস কাজ অনেক সহজ করে দেবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আজকাল রান্নাঘরের প্রত্যেকটি কাজ সহজ করার জন্য অনেক উন্নত ব্যবস্থা এসে গিয়েছে। তা হলে ঘণ্টার পর ঘণ্টা কষ্ট...

care care
কেনাকাটা1 month ago

চুল ও ত্বকের বিশেষ যত্নের জন্য ১০০০ টাকার মধ্যে এই জিনিসগুলি ঘরে রাখা খুবই ভালো

খবরঅনলাইন ডেস্ক : পার্লার গিয়ে ত্বকের যত্ন নেওয়ার সময় অনেকেরই নেই। সেই ক্ষেত্রে বাড়িতে ঘরোয়া পদ্ধতি অনেকেই অবলম্বন করেন। বাড়িতে...

কেনাকাটা2 months ago

ঘর ও রান্নাঘরের সরঞ্জাম কিনতে চান? অ্যামাজন প্রাইম ডিলে রয়েছে ৫০% পর্যন্ত ছাড়

খবরঅনলাইন ডেস্ক : অ্যামাজন প্রাইম ডিলে রয়েছে ঘর আর রান্না ঘরের একাধিক সামগ্রিতে প্রচুর ছাড়। এই সেলে পাওয়া যাচ্ছে ওয়াটার...

নজরে