ওয়েবডেস্ক: পথে-ঘাটে, বাসে-ট্রেনে যৌন হয়রানির শিকার হওয়া ব্যতিক্রমী কোনো ঘটনা নয়। ‘শিকারি’দের বার্তা দিতে বেছে নেওয়া হয়েছে হরেক পদ্ধতি। তা সত্ত্বেও কমার লক্ষণ কোথায়? এমন পরিস্থিতিতেই বাংলাদেশের এক ডিজাইনারের নির্দিষ্ট বার্তাবাহী টি-শার্ট নিয়েই উঠেছে সমালোচনার ঝড়। পাশাপাশি ওই টি-শার্টে উল্লেখিত মূল স্লোগানের জায়গায় কিছু অশ্রাব্য ভাষা সংযোজিত ফোটোশপ করা ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে।

টি-শার্টগুলি নকশা করেছেন জিনাত জাহান নিশা। যিনি ইউনিভার্সিটি অব ডেভেলপমেন্ট অল্টারনেটিভের (ইউডা)-র চারুকলা অনুষদ থেকে চিত্রকলায় স্নাতক ও স্নাতকোত্তর করেছেন। এক ফেসবুক পোস্টে জিনাত বলেছেন, “বাসে, রাস্তায় নিজের সাথে হওয়া অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার প্রতিবাদ, ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলাম ‘গা ঘেঁষে দাঁড়াবেন না’ লেখনি দিয়ে খোঁপার কাঁটায়। এ বার নিয়ে এলাম তা টি-শার্টে”।

কিন্তু প্রতিবাদের ভাষা হিসাবে এ ধরনের স্লোগান বেছে নেওয়ায়, সোশ্যাল মিডিয়ায় উঠেছে সমালোচনার ঝড়। ঠিক ততটা পরিমার্জিত নয়, দাবি করে জিনাতকে তুলোধনা করতেও ছাড়ছেন না অনেকেই।

কেউ কেউ বলছেন, “ব্যবহৃত স্লোগানটি ততটা রুচিকর নয়, যা নিয়ে পাল্টা প্রতিবাদ হওয়া প্রয়োজন। কারণ পোশাক নিয়ে কোনো বিতর্ক না-থাকলেও এ ধরনের নোংরা ভাষা কোনো মতেই সমর্থনযোগ্য নয়”।

[ আরও পড়ুন: মিশরের সুসজ্জিত সমাধিক্ষেত্রে মিলল বিড়াল, ইঁদুর ও পাখির মমি ]

আবার অনেকেই বলেছেন, “এই বিষয়টা ওনাদের কাছে ভালো মনে হয়েছে বলে প্রতিবাদ এই ভাবে করেছেন”। স্বাভাবিক ভাবেই দ্বিমতীয় এই তর্ক কোথায় গিয়ে ঠেকে সেটাই দেখার!

তবে নেটিজেনদের একটা বড়ো অংশ এ ধরনের উদ্যোগকে স্বাগত জানাচ্ছেন। অন্য দিকে যে সমস্ত ফোটোশপ করা ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়েছে, তা নিয়ে পুলিশের কাছে অভিযোগ পর্যন্ত জমা পড়েছে বলে জানা গিয়েছে।

ছবিগুলির উৎসস্থল যাচাই করা সম্ভব হয়নি।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here