ফুঁসছে উত্তরের নদ-নদী, বাংলাদেশের ১২ জেলায় বন্যা পরিস্থিতির অবনতি

0
বাংলাদেশে বন্যা।

ঋদি হক: ঢাকা

উত্তরের সব ক’টি নদীর জল বেড়েই চলেছে। রেকর্ড ভেঙে বিপদসীমার ওপর দিয়ে বয়ে যাচ্ছে ব্রহ্মপুত্র, যমুনা, পদ্মার জল। ব্রহ্মপুত্র-যমুনা ও গঙ্গা-পদ্মা নদ-নদীর জলতল বৃদ্ধি অব্যাহত থাকার পূর্বাভাস দিয়েছে বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র।

উত্তরের ১২টি জেলার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত

জল বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে গাইবান্ধা, কুড়িগ্রাম, মানিকগঞ্জ, টাঙ্গাইল, সিরাজগঞ্জ, জামালপুর, বগুড়া, সিরাজগঞ্জ, পাবনা, রাজবাড়ি, শরীয়তপুর এবং ফরিদপুর, এই ১২টি জেলার নিম্নাঞ্চল জলের তলায়। জল বৃদ্ধি পাওয়ায় পরিস্থিতির আরও অবনতি হতে পারে। বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্রের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আরিফুজ্জামান ভূঁইয়া জানান, আটটি নদ-নদীর ১৯টি পয়েন্টে জল বিপদসীমা অতিক্রম করে গিয়েছে।

জলেই বাস।

কুড়িগ্রাম থেকে সাংবাদিক শ্যামল ভৌমিক জানান, সেখানকার সার্বিক বন্যা পরিস্থিতির অবনতি ঘটছে। জল বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। ফসলের ক্ষতি হয়েছে। জলে ভাসছে বাড়িঘর। দেখা দিয়েছে জলবাহী নানা রোগ।

বিপদসীমার উপরে বিভিন্ন নদীর জল  

ধরলার জল কুড়িগ্রামে বিপদসীমার ৭ সেন্টিমিটার, চিলমারি পয়েন্টে ব্রহ্মপুত্রের জল ৪৯ সেন্টিমিটার এবং হাতিয়ায় ১০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। গাইবান্ধায় ঘাঘট নদীর জল বিপদসীমার ১৬ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। 

গাইবান্ধার ফুলছড়ি পয়েন্টে যমুনার জল বিপদসীমার ৪৮ সেন্টিমিটার, সাঘাটায় ২৯ সেন্টিমিটার, জামালপুরের বাহাদুরাবাদে ৫৯ সেন্টিমিটার, বগুড়ার সারিয়াকান্দিতে ৬৩ সেন্টিমিটার, কাজিপুরে ৫২ সেন্টিমিটার, সিরাজগঞ্জে ৫৮ সেন্টিমিটার, টাঙ্গাইলের পোড়াবাড়িতে ২১ সেন্টিমিটার, পাবনার মথুরায় ২৩ সেন্টিমিটার এবং মানিকগঞ্জের আরিচা পয়েন্টে বিপদসীমার ২৫ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

মাঠ ঘাট সব একাকার।

আত্রাইয়ের জল সিরাজগঞ্জের বাঘাবাড়িতে বিপদসীমার ৫৫ সেন্টিমিটার, টাঙ্গাইলের এলাসিন পয়েন্টে ধলেশ্বরীর জল ৬৪ সেন্টিমিটার এবং রাজবাড়ির গোয়ালন্দে পদ্মার জল বিপদসীমার ৬২ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। ভাগ্যকূলে পদ্মার জল ১ সেন্টিমিটার ও সুরেশ্বরে ১ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।  ঢাকার পাশের তুরাগ নদের জলও বিপদসীমা ছাড়িয়েছে। কালিয়াকৈরে বইছে বিপদসীমার ৪ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে।

বিভিন্ন নদ-নদীতে পূর্বাভাস কেন্দ্রের যে ১০৯টি পর্যবেক্ষণ স্টেশন রয়েছে তার মধ্যে বুধবার ৬৮টিতে জলতল বেড়েছে। কমেছে ৪০টি স্টেশনের জলতল। অপরিবর্তিত রয়েছে একটি স্টেশনের আর ১৯টি স্টেশনের জলতল বিপদসীমার ওপর দিয়ে বয়ে যাচ্ছে।

আরও পড়তে পারেন

অ্যাম্বুলেন্সের পর ভারতের উপহার, অক্সিজেন প্লান্ট পেল বাংলাদেশ

ম্যাগসেসে পুরস্কার পেলেন বাংলাদেশের কলেরা-টাইফয়েড টিকা গবেষক বিজ্ঞানী ফেরদৌসী কাদরী

এলডিসিভুক্ত দেশগুলোকে শক্তিশালী করতে হবে: বাংলাদেশের বিদেশমন্ত্রী

৩ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হচ্ছে বাংলাদেশ-ভারত উড়ান চলাচল

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন