বাংলাদেশে স্ত্রী, সন্তান-সহ ৪ জনকে গলা কেটে হত্যা

0

ঋদি হক: ঢাকা

বাংলাদেশের (Bangladesh) টাঙ্গাইল (Tangail) জেলার মধুপুর (Madhupur) উপজেলা শহরের একটি বাড়ি থেকে স্ত্রী, সন্তান-সহ ৪ জনের গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। চাঞ্চল্যকর এই হত্যার রহস্য সম্পর্কে তাৎক্ষণিক ভাবে কিছুই জানাতে পারেনি পুলিশ।  

বৃহস্পতিবার রাতে যে কোনো সময়ে একই পরিবারের নারী ও শিশু-সহ ৪ জনকে গলা কেটে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। স্থানীয় বাসিন্দারা পুলিশকে জানিয়েছে, গণি মিয়া নতুন বসতি স্থাপন করেছেন। গত কয়েক দিন ধরে তাঁর বাড়ির গেট তালাবন্ধ ছিল। শুক্রবার সকালে গণির শাশুড়ি বাসার গেটে এসে ডাকাডাকি করে কোনো সাড়া না পাওয়ায় স্থানীয়দের মধ্যে সন্দেহের সৃষ্টি হয়। তখনই পুলিশে খবর  দেওয়া হয়।

খবর পেয়ে মধুপুর থানার পুলিশ সকাল ৯টা নাগাদ ঘটনাস্থলে আসে। তার পর মধুপুরের পল্লি বিদ্যুৎ রোড এলাকার বাড়িটি থেকে একে একে পরিবারের ৪ জনের মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য হাসপাতালে পাঠায়। নিহত চার জন, গণি মিয়া (৪৫) ও তাঁর স্ত্রী কাজিরন ওরফে বুচি (৩৭), কলেজপড়ুয়া ছেলে তাজেল (১৬) এবং মেয়ে সাদিয়া (৯)।

জেলার পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায় জানান, এ দিন সকালে উপজেলা শহরের পল্লি বিদ্যুৎ রোড এলাকার মাস্টারপাড়ার বাড়িতে মরদেহ উদ্ধারের সময় একটি কুড়ালও বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। হত্যাকাণ্ডে সেটি ব্যবহার করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

মধুপুর সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার কামরান হোসেন সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, জেলা থেকে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) ও পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) বিশেষেজ্ঞ টিম ঘটনাস্থলে আসছে। পুলিশ ঘটনাস্থল ঘিরে রেখেছে। এ ছাড়াও মধুপুর থানা পুলিশ এবং টাঙ্গাইল জেলা পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শ্যামল কুমার দত্ত-সহ পুলিশ আধিকারিক ও কর্মীরা ঘটনাস্থলে রয়েছেন।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন