Connect with us

বাংলাদেশ

ইলিশের গড় ওজন বেড়েছে, কোন পথে সাফল্য পেল বাংলাদেশ

Published

on

ওয়েবডেস্ক : গত দু’বছর ধরে বাংলাদেশে বড় ইলিশের উৎপাদন দ্বিগুণ হারে বেড়েছে। তথ্য বলছে সাগর এবং নদীতে ধরা ইলিশের গড় ওজন গত তিন বছরে ৩৫০ গ্রাম বড়েছে। এ বছর ধরা পড় ইলিশের গড় ওজন ৮৩০ থেকে ৯০০ গ্রাম।

শুধু আকার বা ওজন নয় এ বছর ইলিশের উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা চেয়ে বেশি হবে বলে আশা মৎস বিভাগের।

গত বছর বাংলাদেশে ইলিশ উৎপাদন হয়েছিল ৫লক্ষ ১৭ হাজার টন। যা ছিল সর্বকালীন রেকর্ড। এবার ইলিশ উৎপাদন সেই রেকর্ডকেও ছাপিয়ে যাবে বলে দাবি মৎস বিভাগের।

ইলিশ উৎপাদনে বাংলাদেশের পরই ভারতের স্থান। বিশ্বের ১০ শতাংশ ইলিশ দেশ ভারত সরবরাহ করে থাকে। বাকি ইলিশ আসে মিয়ানমার মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলি থেকে।

তথ্য বলছে ২০১৬ সালে মোট ইলিশের ৩ শতাংশের ওজন ছিল এক কেজির উপরে। ২০১৮ সালে তা বেড়ে হয় ৫শতাংশে। চলতি বছরে যে ইলিশ ধরা পড়েছে তার ১০ শতাংশের ওজন এক কেজির উপরে।

কোন পথে এল এই সাফল্য?

মৎস দফতরের মহা সচিব আবু সাইদ মো. রাশেদুর হক জানিয়েছেন, ইলিশ প্রজননের অভয়াশ্রমের সংখ্যা বাড়ানোর ফলে এই সাফল্য এসেছে। আগে ছিল চারটি অভয়াশ্রম। এ বছরের মার্চ থেকে এই সংখ্যা বাড়িয়ে পাঁচ করা হয়েছে। তা ছাড়া এ বছর বঙ্গোপসাগরে ৬৫ দিন মাছ ধরা নিষিদ্ধ করার ফলে ইলিশ বড় হওয়ার সুযোগ পেয়েছে।

ইলিশ গবেষকদের মতে, ছোট ইলিশ ধরা বন্ধ এবং নিষিদ্ধ সময়ে মা ইলিশ ধরা বন্ধ করার জন্য ইলিশ উৎপাদনে সাফল্য এসেছে।

একটি ৩০০ থেকে ৫০০ গ্রামের ইলিশ একবার সাগরে গিয়ে ফিরে আসার জন্য ছ’মাস সময় নেয়। এই সময়কালে ইলিশের ওজন আরও ৪০০ থেকে ৫০০ গ্রাম বেড়ে যায়।
সূত্র : প্রথম আলো

দেশ

পেঁয়াজবোঝাই ট্রাক ঢুকছে বাংলাদেশে, অর্ধেক নষ্ট হওয়ার আশঙ্কায় ব্যবসায়ীরা

মহারাষ্ট্রের নাসিক থেকে পেঁয়াজবোঝাই ট্রাক ৬ দিন পরে ঘোজাডাঙায় এসেছে এবং সেখানে ৬ দিন ধরে অপেক্ষায় থেকেছে। ফলে অর্ধেক পেঁয়াজ নষ্ট হয়ে গেছে।

Published

on

পেঁয়াজবোঝাই ট্রাক।

নিজস্ব প্রতিনিধি, ঢাকা: ১২ দিন পর ভারত থেকে পেঁয়াজভর্তি ট্রাক প্রবেশ করতে শুরু করেছে বাংলাদেশে। ত্রিপল দিয়ে ঢেকে রাখার কারণে বস্তাবোঝাই পেঁয়াজের অর্ধেকটাই নষ্ট হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা করছেন ব্যবসায়ীরা।

প্রচণ্ড গরমের মধ্যে ভারতের মহারাষ্ট্রের নাসিক থেকে সাতক্ষীরা সীমান্তে আসতে সময় লাগে ৬ দিন। তার পর হঠাৎ রফতানি বন্ধের নির্দেশনায় অপেক্ষা করতে হয়েছে আরও ৬ দিন। অর্থাৎ মোট ১২ দিন ধরে ট্রাকে বস্তাবোঝাই হয়ে রয়েছে পেঁয়াজ।

সাতক্ষীরার পেঁয়াজ আমদানিকারক মোস্তাফিজুর রহমান নাফিন জানালেন, ঘোজাডাঙায় পেঁয়াজবোঝাই তিনশতাধিক ট্রাক ৬ দিন যাবত অপেক্ষায় রয়েছে। মহারাষ্ট্রের নাসিক থেকে পেঁয়াজবোঝাই ট্রাক ৬ দিন পরে ঘোজাডাঙায় এসেছে এবং সেখানে ৬ দিন ধরে অপেক্ষায় থেকেছে। ফলে অর্ধেক পেঁয়াজ নষ্ট হয়ে গেছে।

শনিবার বিকাল নাগাদ সাতক্ষীরার ভোমরা, সোনামসজিদ ও হিলি দিয়ে পেঁয়াজবোঝাই ট্রাক বাংলাদেশে প্রবেশ করতে শুরু করেছে। কিন্তু ব্যবসায়ীদের বিপুল অঙ্কের লোকসান গুণতে হবে। তাঁরা জানান, বিভিন্ন বন্দরে শ’ শ’ ট্রাক আটকে আছে।

এর আগে ভারতের বাণিজ্য মন্ত্রকের পাঠানো এক চিঠিতে পেঁয়াজ রফতানির বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়। চিঠির কথা জানিয়ে সোনামসজিদ স্থলবন্দরের পেঁয়াজ  আমাদানিকারক হারুনুর রশিদ জানান, আগের খোলা ঋণপত্রের বিপরীতে গত ১৩ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত টেন্ডার হওয়া পেঁয়াজই প্রবেশের অনুমতি পাবে।

এ সময় পর্যন্ত কী পরিমাণ পেঁয়াজের টেন্ডার হয়েছে নিশ্চিত ভাবে তা জানা যায়নি। সীমান্তের অপর প্রান্তে বাংলাদেশে প্রবেশের অপেক্ষায় রয়েছে অন্তত পেঁয়াজভরতি দুশো ট্রাক। গরমের কারণে ট্রাকের পেঁয়াজ নষ্ট হচ্ছে বলে অভিযোগ তাঁদেরও।

প্রসঙ্গত, অভ্যন্তরীণ চাহিদা মেটাতে ১৪ সেপ্টেম্বর হঠাৎ পেঁয়াজ রফতানি বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয় ভারত সরকার। এর জেরে বাংলাদেশের অসাধু ব্যবসায়ীরা রাতারাতি পেঁয়াজের দাম কেজিপ্রতি ২০ থেকে ৩০ টাকা পর্যন্ত বাড়িয়ে দেয়। যার ফলে  অস্থির হয়ে উঠে দেশের বাজার। আর ভারতীয় পেঁয়াজের দাম বেড়ে যায় কেজিপ্রতি ২০ টাকা পর্যন্ত। প্রতিকেজি বিক্রি হয় ৫৫ থেকে ৬০ টাকায়। অনেক আড়তদার আবার বিক্রিও বন্ধ করে দেন।

খবর অনলাইনে আরও পড়তে পারেন

চার দিনের সম্মেলনে ১৪টি সিদ্ধান্ত, সীমান্ত-হত্যা শূন্যে নামাতে একমত বিজিবি-বিএসএফ

Continue Reading

দেশ

চার দিনের সম্মেলনে ১৪টি সিদ্ধান্ত, সীমান্ত-হত্যা শূন্যে নামাতে একমত বিজিবি-বিএসএফ

পারস্পরিক বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক অটুট রাখতে এবং নিজেদের মধ্যে আস্থা বাড়াতে নানা পদক্ষেপ গ্রহণে সম্মত হয়েছে উভয় দেশের সীমান্তরক্ষা বাহিনী।

Published

on

BSF-BGB Meet
ঢাকায় বিজিবি ও বিএসএফ-এর বৈঠক।

ঋদি হক: ঢাকা

ঢাকায় চার দিনের সীমান্ত-সম্মেলনে ১৪টি গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য সীমান্তে হত্যা শূন্যে নামানো, যৌথ টহল, চোরাচালান ও মানবপাচার প্রতিরোধ ইত্যাদি।

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি, BJB) ও ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ, BSF) মহাপরিচালক পর্যায়ের ৫০তম সীমান্ত সম্মেলনে নেওয়া এই সব গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্তের কথা যৌথ সাংবাদিক বৈঠকে জানিয়েছেন বিজিবি মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মো. সাফিনুল ইসলাম ও বিএসএফ মহাপরিচালক রাকেশ আস্থানা।

বরাবরের মতো এ বারের সম্মেলনেও সীমান্ত-হত্যার বিষয়টি ছিল আলোচনার প্রধান বিষয়। সাংবাদিক বৈঠকে উভয় বাহিনীর প্রধান সীমান্ত-হত্যা শূন্যের কোটায় নামিয়ে আনতে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ বলে জানান। সীমান্ত সংশ্লিষ্ট নানা বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। পারস্পরিক বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক অটুট রাখতে এবং নিজেদের মধ্যে আস্থা বাড়াতে নানা পদক্ষেপ গ্রহণে সম্মত হয়েছে উভয় দেশের সীমান্তরক্ষা বাহিনী। জানা গেছে, নির্ধারিত আলোচনার বাইরেও অন্য বিষয়েও উন্মুক্ত আলোচনা হয়েছে। দু’ পক্ষই এ বারের সম্মেলনকে সফল বলে আখ্যায়িত করেছেন।

ভারতীয় হাইকমিশন সূত্রে জানা গেছে, প্রাণঘাতী নয়, এমন অস্ত্রই কেবল ব্যবহার করা হবে ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে। সকল নিরস্ত্র, নিরপরাধ এবং মানবপাচারের শিকার ব্যক্তিকে সংশ্লিষ্ট বাহিনীর সদস্যদের হাতে হস্তান্তর করা হবে। মানসিক প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের জাতীয়তা নির্ধারণে একটি স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং পদ্ধতি (এসওপি) তৈরির সিদ্ধান্তও হয়েছে। তাৎক্ষণিক গোয়েন্দা তথ্য বিনিময়ের জন্য উভয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী নোডাল কর্মকর্তা নির্বাচন করবে। সুনির্দিষ্ট গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে সীমান্তে পাচারকারীদের বিরুদ্ধে যৌথ অভিযান চালু করতেও রাজি হয়েছে উভয় বাহিনী।

সীমান্তে চোরাচালান সিন্ডিকেটগুলি যে নতুন পদ্ধতি গ্রহণ করছে তার প্রতিক্রিয়া হিসেবে চোরাচালানপ্রবণ এলাকাগুলো চিহ্নিত করা এবং পাচারকারীদের সিন্ডিকেটের তালিকা বিষয়ে তাৎক্ষণিক গোয়েন্দা তথ্য বিনিময় করার বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়েছে।

করোনাকালীন সময়ে সীমান্তে উভয় বাহিনীর সমন্বিত টহল বন্ধ ছিল। দুই বাহিনীর মধ্যে পারস্পরিক আস্থা তৈরি করতে এবং সীমান্তে অপরাধ কমাতে ফের সমন্বিত টহল চালু করা হবে। করোনার প্রভাব কমে আসার পর উভয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর আত্মবিশ্বাস বাড়ানোর ব্যবস্থা এবং প্রশিক্ষণ কার্যক্রমের সিদ্ধান্তও হয়েছে। 

উভয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী গবাদি পশু পাচারকারীদের সহিংস হামলার বিষয়টি স্বীকার করেছেন। ভারতের সীমান্তবর্তী জেলাগুলিতে কোডিন জাতীয় কাশির সিরাপ চোরাচালানের বিরুদ্ধে বিএসএফের নিয়মতান্ত্রিক প্রচারের প্রশংসা করেছে বিজিবি। সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্সের নীতির পুনরাবৃত্তি করে, সুনির্দিষ্ট গোয়েন্দা তথ্য প্রদানের অনুরোধ করেছে এবং বিচ্ছিন্নতাবাদী গোষ্ঠীগুলির (যদি থাকে) বিরুদ্ধে যৌথ অভিযান পরিচালনা করার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে বিজিবির তরফে।

যৌথ নদী কমিশনের অনুমোদন অনুযায়ী বাংলাদেশের সীমান্তবর্তী অঞ্চলে নদী তীরের সমস্ত সুরক্ষা কাজ শেষ করার বিষয়ে একমত হওয়া গেছে। পার্বত্য চট্টগ্রাম অঞ্চলে বিজিবি এয়ার উইংয়ের দু’টি হেলিকপ্টারের অধিকতর ও ট্রেনিং অপারেশনাল ফ্লাইটের বিষয়ে বিএসএফ মহাপরিচালককে অবহিত করেন বিজিবি মহাপরিচালক। যে কোনো ধরনের বিভ্রান্তি বা ভুল বোঝাবুঝি এড়াতে তাঁকে তাঁর বাহিনীর প্রান্তিক পর্যায় পর্যন্ত অবহিত করার অনুরোধ জানান।

বিজিবি মহাপরিচালক সাফিনুল ইসলামের নেতৃত্বে ১৩ সদস্যের বাংলাদেশ প্রতিনিধি দল সম্মেলনে অংশ নেন। বাংলাদেশ প্রতিনিধিদলে বিজিবির অতিরিক্ত মহাপরিচালকরা ও বিজিবি সদর দফতরের সংশ্লিষ্ট স্টাফ অফিসারগণ ছাড়াও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, স্বরাষ্ট্র ও বিদেশ  মন্ত্রক, যৌথ নদী কমিশন এবং ভূমি রেকর্ড ও জরিপ অধিদফতরের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা প্রতিনিধিত্ব করেন। বিএসএফ মহাপরিচালক রাকেশ আস্থানার নেতৃত্বে ৬ সদস্যের ভারতীয় প্রতিনিধিদলে ছিলেন বিএসএফ সদর দফতরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এবং স্বরাষ্ট্র ও বিদেশ মন্ত্রকের কর্মকর্তারা। সম্মেলন শেষে শনিবার আগরতলার পথে ঢাকা ত্যাগ করেন বিএসএফ প্রতিনিধিদল।

খবর অনলাইনে আরও পড়তে পারেন

১৪ অক্টোবর থেকে ইলিশ প্রজনন ক্ষেত্রে ইলিশ-সহ সব মাছ ধরা ২২ দিন নিষিদ্ধ

Continue Reading

দেশ

আগের এলসির ছাড়, ভারত থেকে পেঁয়াজবোঝাই ট্রাক শনিবার ঢুকছে বাংলাদেশে

১৪ সেপ্টেম্বর রফতানি বন্ধের সিদ্ধান্তের আগে এলসির বিপরীতে টেন্ডার হওয়া পেঁয়াজ রফতানির অনুমোদন দিয়েছে ভারত সরকার।

Published

on

আটকে থাকা ট্রাক।

ঋদি হক: ঢাকা

বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে বিভিন্ন স্থলবন্দরে আটকে থাকা পেঁয়াজবোঝাই ট্রাক ছেড়ে দেওয়ার অনুমতি দিয়েছে ভারত সরকার। ফলে শনিবার থেকেই এই সব পেঁয়াজ দিনাজপুরের হিলি-সহ দেশের বিভিন্ন স্থলবন্দর দিয়ে প্রবেশ করবে বাংলাদেশে।   

ভারতের (India) বাজারে পেঁয়াজ-সংকট, তাই বাংলাদেশে (Bangladesh) পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ। ব্যাপারটা পাঁচ দিন গড়াল। কিন্তু রফতানিতে নিষেধাজ্ঞা জারির আগেই পেঁয়াজবোঝাই কয়েকশো ট্রাক বাংলাদেশে প্রবেশের জন্য বিভিন্ন স্থলবন্দরের কাছাকাছি পৌঁছে যায়। এবং পেঁয়াজ রফতানিতে নিষেধাজ্ঞা জারি হয়ে যাওয়ায় বিপুল পরিমাণ পেঁয়াজ নষ্ট হওয়ার আশঙ্কা দেখা দেয়। এই সব ভেবেই অবশেষে পেঁয়াজবোঝাই ট্রাক ছেড়ে দেওয়ার অনুমতি দেয় ভারত।

বাংলাদেশের বিদেশমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন বলেছেন, হঠাৎ করে পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করার সিদ্ধান্তে অনুতপ্ত ভারতের বিদেশ মন্ত্রক। ড. মোমেন বলেন, “আমরা চিঠি দিয়েছি। শুনেছি যে ভারতের বিদেশমন্ত্রক এ বিষয়টি নিয়ে অনুতপ্ত। কারণ তারা বিষয়টি জানত না।”

বিদেশমন্ত্রী আরও বলেন, “আমরাও বিষয়টি জানতাম না। পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ হয়ে যাচ্ছে, এই বিষয়টি আগেভাগে জানতে পারলে ব্যবস্থা নিতে পারতাম। আচমকাই পেঁয়াজ রফতানি বন্ধের বার্তা পাই। ভারতের বিদেশমন্ত্রকের কাছে জানতে চাই কেন হঠাৎ করে এমন হল? তখন ওরা বলেছে তারাও বিষয়টি জানত না।”

এ দিকে হিলির আমদানি-রফতানিকারক গ্রুপের সভাপতি হারুনুর রশীদ হারুন সংবাদমাধ্যমকে জানান, “অভ্যন্তরীণ বাজারে পেঁয়াজের সংকট ও মূল্যবৃদ্ধির অজুহাত দেখিয়ে গত সোমবার থেকে ভারত সরকার পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করে দেয়। এর ফলে আমাদের ২৫০টি ট্রাক পেঁয়াজ নিয়ে দেশে প্রবেশের অপেক্ষায় ভারতের অভ্যন্তরে বিভিন্ন সড়কে কয়েক দিন ধরে আটকা পড়ে যায়। একই সঙ্গে ১০ হাজার টন পেঁয়াজ আমদানির জন্য এলসি দেওয়া ছিল। এগুলোর কার্যক্রম বন্ধ রেখেছিল তারা। মঙ্গলবার ভারতীয় ব্যবসায়ীরা আমাদের জানিয়েছিলেন ১৪ তারিখের পূর্বে এলসির বিপরীতে টেন্ডার প্রক্রিয়া সম্পন্ন হওয়া পেঁয়াজ রফতানির অনুমতি দিতে পারে ভারত সরকার। সে অনুযায়ী বাংলাদেশে পেঁয়াজ প্রবেশের কথা ছিল। কিন্তু তখন অনুমতি মেলেনি। ফলে গত পাঁচ দিন ধরে ভারত রফতানি বন্ধ রাখায় ৯ থেকে ১০ দিন আগে লোড করা পেঁয়াজগুলো ট্রাকে ত্রিপল বাঁধা অবস্থায় রয়েছে। অতিরিক্ত গরম ও বৃষ্টিতে অনেক ট্রাকের পেঁয়াজে পচন ধরতে শুরু করেছে।”

এ অবস্থায় ভারতীয় ব্যবসায়ীদের চাপের মুখে শুক্রবার দিল্লির বাণিজ্য মন্ত্রক একটি নোটিশ জারি করে। তাতে বলা হয়, ১৪ সেপ্টেম্বর রফতানি বন্ধের সিদ্ধান্তের আগে এলসির বিপরীতে টেন্ডার হওয়া পেঁয়াজ রফতানির অনুমোদন দিয়েছে ভারত সরকার। শনিবার থেকে পেঁয়াজবোঝাই ট্রাক প্রবেশ করতে শুরু করবে।

খবরঅনলাইনে আরও পড়তে পারেন

দুর্গোৎসব বাংলাদেশে: সাংবাদিক বৈঠক ও মানববন্ধন করে ৩ দিন ছুটির দাবি

Continue Reading
Advertisement
corona
দেশ11 mins ago

৫টি রাজ্যেই মোট সক্রিয় কোভিডরোগীর ৬০ শতাংশ!

রাজ্য54 mins ago

বঙ্গোপসাগরে তৈরি নিম্নচাপের জেরে বৃষ্টি, হলুদ সর্তকতা জারি করল আবহাওয়া দফতর

দেশ2 hours ago

৬ বিধায়ক, ৩ সাংসদ এবং প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি-সহ আর যে সব ‘ভিভিআইপি’ করোনার শিকার

দেশ3 hours ago

রাজ্যসভায় বিক্ষোভ, নাটকীয়তার মধ্যেই পাশ হল দু’টি কৃষি বিল!

দেশ4 hours ago

কৃষি বিল নিয়ে উত্তপ্ত রাজ্যসভা, চরম বিশৃঙ্খলা

mamata banerjee
রাজ্য5 hours ago

সোমবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায়ের উত্তরবঙ্গ সফর স্থগিত

দেশ5 hours ago

‘কৃষকের মৃত্যু পরোয়ানা’য় স্বাক্ষর করব না, রাজ্যসভায় কৃষি বিল নিয়ে বলল কংগ্রেস

দেশ6 hours ago

ব্যথার কারণ খুঁজতে হল এক্স-রে, বন্দির মলদ্বারে হদিশ মিলল চারটি মোবাইলের

দেশ9 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ৯২৬০৫, সুস্থ ৯৪৬১২

শিল্প-বাণিজ্য2 days ago

এসবিআই এটিএমে টাকা তোলার নিয়ম বদলে গেল! দেখে নিন ওটিপি-ভিত্তিক পদ্ধতির খুঁটিনাটি বিষয়

কলকাতা2 days ago

কয়েকটি স্টেশনে ই-পাসের সংখ্যা বাড়াচ্ছে কলকাতা মেট্রো

Shreyas Iyer
ক্রিকেট2 days ago

আইপিএলের অন্যতম সেরা বোলিং লাইনআপ কি দিল্লি ক্যাপিটাল্‌সের?

MS Dhoni
ক্রিকেট2 days ago

চেন্নাই সুপারকিংসের আদর্শ লাইনআপে কত নম্বরে ব্যাট করতে পারেন মহেন্দ্র সিংহ ধোনি?

ishan porel mohammad shami
ক্রিকেট2 days ago

কিংস ইলেভেন পঞ্জাবের হয়ে নতুন বলে বাংলার দুই পেসার?

দেশ3 days ago

কৃষি বিপণন সংক্রান্ত বিলের বিরোধিতায় পদত্যাগ করলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী

কলকাতা2 days ago

ট্যাক্সি চালকের হাতে হেনস্থা মামলায় আলিপুর আদালতে গোপন জবানবন্দি সাংসদ- অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তীর

কেনাকাটা

কেনাকাটা1 day ago

সংসারের খুঁটিনাটি সমস্যা থেকে মুক্তি দিতে এই জিনিসগুলির তুলনা নেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিজের ও ঘরের প্রয়োজনে এমন অনেক কিছুই থাকে যেগুলি না থাকলে প্রতি দিনের জীবনে বেশ কিছু সমস্যার...

কেনাকাটা4 days ago

ঘরের জায়গা বাঁচাতে চান? এই জিনিসগুলি খুবই কাজে লাগবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : ঘরের মধ্যে অল্প জায়গায় সব জিনিস অগোছালো হয়ে থাকে। এই নিয়ে বারে বারেই নিজেদের মধ্যে ঝগড়া লেগে...

কেনাকাটা1 week ago

রান্নাঘরের জনপ্রিয় কয়েকটি জরুরি সামগ্রী, আপনার কাছেও আছে তো?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রান্নাঘরের এমন কিছু সামগ্রী আছে যেগুলি থাকলে কাজ করাও যেমন সহজ হয়ে যায়, তেমন সময়ও অনেক কম খরচ...

কেনাকাটা2 weeks ago

ওজন কমাতে ও রোগ প্রতিরোধশক্তি বাড়াতে গ্রিন টি

খবরঅনলাইন ডেস্ক : ওজন কমাতে, ত্বকের জেল্লা বাড়াতে ও করোনা আবহে যেটি সব থেকে বেশি দরকার সেই রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা...

কেনাকাটা2 weeks ago

ইউটিউব চ্যানেল করবেন? এই ৮টি সামগ্রী খুবই কাজের

বহু মানুষকে স্বাবলম্বী করতে ইউটিউব খুব বড়ো একটি প্ল্যাটফর্ম।

কেনাকাটা3 weeks ago

ঘর সাজানোর ও ব্যবহারের জন্য সেরামিকের ১৯টি দারুণ আইটেম, দাম সাধ্যের মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ঘর সাজাতে কার না ভালো লাগে। কিন্তু তার জন্য বাড়ির বাইরে বেরিয়ে এ দোকান সে দোকান ঘুরে উপযুক্ত...

কেনাকাটা4 weeks ago

শোওয়ার ঘরকে আরও আরামদায়ক করবে এই ৮টি সামগ্রী

খবর অনলাইন ডেস্ক : সারা দিনের কাজের পরে ঘুমের জায়গাটা পরিপাটি হলে সকল ক্লান্তি দূর হয়ে যায়। সুন্দর মনোরম পরিবেশে...

kitchen kitchen
কেনাকাটা1 month ago

রান্নাঘরের এই ৮টি জিনিস কাজ অনেক সহজ করে দেবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আজকাল রান্নাঘরের প্রত্যেকটি কাজ সহজ করার জন্য অনেক উন্নত ব্যবস্থা এসে গিয়েছে। তা হলে ঘণ্টার পর ঘণ্টা কষ্ট...

care care
কেনাকাটা1 month ago

চুল ও ত্বকের বিশেষ যত্নের জন্য ১০০০ টাকার মধ্যে এই জিনিসগুলি ঘরে রাখা খুবই ভালো

খবরঅনলাইন ডেস্ক : পার্লার গিয়ে ত্বকের যত্ন নেওয়ার সময় অনেকেরই নেই। সেই ক্ষেত্রে বাড়িতে ঘরোয়া পদ্ধতি অনেকেই অবলম্বন করেন। বাড়িতে...

কেনাকাটা1 month ago

ঘর ও রান্নাঘরের সরঞ্জাম কিনতে চান? অ্যামাজন প্রাইম ডিলে রয়েছে ৫০% পর্যন্ত ছাড়

খবরঅনলাইন ডেস্ক : অ্যামাজন প্রাইম ডিলে রয়েছে ঘর আর রান্না ঘরের একাধিক সামগ্রিতে প্রচুর ছাড়। এই সেলে পাওয়া যাচ্ছে ওয়াটার...

নজরে