কাশ্মীর ইস্যুতে জলঘোলা করার চেষ্টা হলে আইনানুগ ব্যবস্থার নিদান বাংলাদেশে

0
bangladesh
ছবি: যুগান্তর (বাংলাদেশ)-এর সৌজন্যে

ওয়েবডেস্ক: জম্মু ও কাশ্মীর থেকে সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ প্রত্যাহার ‘ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়’ বলে আগেই স্বীকার করেছিল প্রতিবেশী দেশ বাংলাদেশ। এ বার ওই একই ইস্যুতে বাংলাদেশে কেউ জলঘোলা করার চেষ্টা করলে তাঁর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দিলেন বাংলাদেশের র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)-এর ডিজি বেনজির অহমেদ।

অহমেদ স্পষ্ট বার্তা দিয়ে জানিয়েছেন, “কাশ্মীর ইস্যু ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়। তাদের নিজস্ব বিষয়ে আমাদের কোনো মন্তব্য নেই। আশা করব ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়টি নিয়ে দেশে জলঘোলা করার চেষ্টা করবেন না। তা করা হলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে”।

স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমে দাবি করা হয়েছে, গত ৯ আগস্ট দুপুরে ঢাকার কারওয়ানবাজারে র‌্যাব মিডিয়া সেন্টারে ঈদে নিরাপত্তাব্যবস্থা নিয়ে আয়োজিত সাংবাদিক বৈঠকে এক প্রশ্নের জবাবে এমনটাই সতর্কতাবার্তা দেন র‌্যাব-এর ডিজি।

তিনি বলেন, “দেশে কট্টর মৌলবাদীদের সংখ্যা খুব একটা বেশি নয়। যাঁরা রয়েছেন, তাঁদের উপর ২৪ ঘণ্টা নজরদারি চালানো হচ্ছে”।

[ আরও পড়ুন: জম্মু ও কাশ্মীরে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল পুনর্গঠন নিয়ে ভারতের পাশে দাঁড়াল পি-৫ গোষ্ঠীভুক্ত দেশ রাশিয়া ]

প্রসঙ্গত, গত সোমবার ভারত জম্মু-কাশ্মীর থেকে সংবিধানের ৩৭০ এবং ৩৫এ অনুচ্ছেদ প্রত্যাহার করে। পর দিনই জম্মু ও কাশ্মীরে পৃথক ভাবে দু’টি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল পুনর্গঠনের কথা জানায়। এমন ঘোষণার পর বিশ্বজুড়ে হইচই পড়ে যায়। বিষয়টি পৌঁছায় রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদেও। আরেক প্রতিবেশী রাষ্ট্র পাকিস্তান বিষয়টি নিয়ে বিশ্বব্যাপী বিরুদ্ধ-মত গঠনের তোড়জোড় চালায়। কিন্তু বেশির ভাগ রাষ্ট্রের তরফেই বিষয়টি নিয়ে ভারত-পাক, উভয়কেই শান্তিঋশৃঙ্খলা বজায় রাখার পরামর্শ দেওয়া হয়।

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here