শেখ হাসিনা ও খালেদা জিয়া

ওয়েবডেস্ক : আয়ের নিরিখে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে টপকে গিয়েছেন বিরোধী নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া। নির্বাচনী হলফনামায় আওয়ামী লীগ সভাপতি হাসিনা মাসিক আয় দেখিয়েছেন গড়ে ৬লক্ষ টাকা (বাংলাদেশী টাকা)। অন্যদিকে বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদার মাসিক আয় সাড়ে ১২ লক্ষ টাকার বেশি। শিক্ষাগত যোগ্যতায় হাসিনা বিএ পাশ। অন্যদিকে খালেদা জিয়া স্বশিক্ষিত।

হলফনামায় বিরোধী নেত্রী বাড়ি ভাড়া বাবদ ঋণ দেখিয়েছেন ১ কোটি ৫৮ লাখ টাকা। প্রধানমন্ত্রীর কোনো ঋণ নেই।

শেখ হাসিনা তাঁর সম্পদের পরিমাণ জানিয়েছেন, নগদ ৮৪ হাজার ৫৭৫ টাকা। ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানে জমার পরিমাণ ৭ কোটি ২১ লাখ ৮৫ হাজার ৩০৩ টাকা। পোস্ট অফিসে, সেভিংস সার্টিফিকেটসহ বিভিন্ন ধরনের সঞ্চয়পত্রে বা স্থায়ী আমানতে বিনিয়োগ ৫ লাখ টাকা। বৈদেশিক মুদ্রা নেই।

৬ লাখ টাকার যানবাহন থাকার কথাও উল্লেখ করেছেন তিনি।যেগুলি তিনি দানে পেয়েছেন। অলংকার রয়েছে ১৩ লাখ ২৫ হাজার টাকার। এছাড়া ৭ লাখ ৪০ হাজার টাকার আসবাবপত্র রয়েছে তাঁর।

৬ লাখ ৭৮ হাজার টাকার ৬ একর কৃষি জমি আছে, অকৃষি জমি রয়েছে ৬ লাখ ৭৫ হাজার টাকার। বাড়ি/অ্যাপার্টমেন্ট/দোকান বা অন্যান্য ভাড়া থেকে বছরে আয় করেন ৬৭ লাখ ৩১ হাজার ৩১৪ টাকা। শেয়ার, সঞ্চয়পত্র ব্যাঙ্কে আমানত থেকে আয় ৮৫ লাখ ৯ হাজার ৮১৩ টাকা।

অন্যদিকে বছরে খালেদা জিয়ার মোট আয় ১ কোটি ৫২ লাখ ৪১ হাজার ১২৭ টাকা। মাসে তার গড় আয় ১২ লাখ ৭০ হাজার ৯৩ টাকা ৯২ পয়সা। নগদ হাতে আছে ৫০ হাজার ৩০০ টাকা।

যানবাহন হিসেবে ৪৮ লাখ ৬৫ হাজার টাকার দু’টি টয়োটা জিপ রয়েছে। সোনা রয়েছে ৫০ তোলা (জহুরতসহ)। এছাড়া ৫ লাখ টাকার ইলেকট্রনিক সামগ্রী এবং ২ লাখ ৬০ হাজার টাকার আসবাবপত্র রয়েছে।

অস্থাবর সম্পদের মধ্যে আছে ১২ হাজার ৩০০ টাকা মূল্যের ৮ শতাংশ অকৃষি জমি। তাঁর  ১০০ টাকা মূল্যে গুলশানে একটি বাড়ি আছে। আর ৫ টাকা মূল্যের ক্যান্টনমেন্টের বাড়ি দখলে নেই বলে তিনি হলফনামায় জানিয়েছেন।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here