ছেলেধরা সন্দেহে বাংলাদেশেও গণপিটুনি, মৃত ৩, আহত ৫

শনিবার সকালে রাজধানীর উত্তর বাড্ডা এলাকায় ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনিতে এক মহিলার (৩৪) মৃত্যু হয়। স্থানীয় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে এই ঘটনা ঘটে।

0
mob-lynching

ওয়েবডেস্ক : ছোঁয়াচে রোগের মতো ছড়িয়ে পড়ছে গণপিটুনি। বাংলাদেশেও ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনিতে মৃত্যু হল তিনজনের। চারজন মহিলাসহ গুরুতর আহত হয়েছেন পাঁচজন।

সাংবাদমাধ্যম প্রথম আলোর দেওয়া খবর অনুযায়ী, রাজধানীর উত্তর বাড্ডা ও কেরানীগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ, গাজীপুরের চান্দনা, চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড এবং ময়মনসিংহের ভালুকায় এই মারধরের ঘটনা ঘটেছে।

শনিবার সকালে রাজধানীর উত্তর বাড্ডা এলাকায় ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনিতে এক মহিলার (৩৪) মৃত্যু হয়। স্থানীয় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে এই ঘটনা ঘটে। পুলিশ সূত্র জানা গিয়েছে, ছেলেধরা সন্দেহে এক মহিলাকে বেধড়ক মারধর করা হয়। পুলিশ উদ্ধার করে তাঁকে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করেন।

এদিন সকালে নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে পৃথক ঘটনায় ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনিতে এক যুবকের (২৫) মৃত্যু হয়েছে এবং অন্য একটি ঘটনায় শারমিন আক্তার (২০) নামে এক মহিলা গুরুতর আহত হয়েছেন।

ঢাকার কেরানিগঞ্জের হজরতপুরের রসুলপুর গ্রামে শুক্রবার রাতে গণপিটুনিতে এক অজ্ঞাত পরিচয় যুবকের মৃত্যু হয়ে। গুরুতর আহত অন্য এক যুবক।

[আরও পড়ুন: জল নিয়ে বিবাদের জেরে বউমার গায়ে আগুন দিলেন শাশুড়ি!]

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে ছেলেধরা সন্দেহে এক মহিলাকে মারধরের পর পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়। পুলিশের অনুমান এই মহিলা মানসিক ভারসাম্যহীন।

অপর একটি ঘটনায় গাজিপুরের চন্দনা চৌরাস্তা এলাকায় ছেলেধরা সন্দেহে মমতাজ খাতুন নামে এক মহিলাকে গণপিটুনি দেওয়া হয়। গুরুতর আহত অবস্থা তাঁকে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পুলিশের দাবি ওই মহিলা মানসিক ভারসাম্যহীন। ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলায় খুনের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে এক মহিলাকে বেধড়ক মারা হয়। তাকে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করে পুলিশ।  

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here