darjeeling bangladesh rail
কলকাতা এবং ঢাকার মধ্যে চলে মৈত্রী এক্সপ্রেস। ছবি: ইউটিউব

শিলিগুড়ি: সব কিছু ঠিকঠাক চললে অচিরেই হয়তো শিলিগুড়ি থেকে ট্রেনে চেপে বাংলাদেশ পৌঁছে যাওয়া যাবে। সীমান্তের এ পারে হলদিবাড়ি এবং ও পারে চিলাহাটির মধ্যে রেল সংযোগ পুনরায় চালু করার ব্যাপারে উদ্যোগী হয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

উল্লেখ্য, ১৯৬৫ সালের আগে চিলাহাটি এবং হলদিবাড়ির মধ্যে রেল যোগাযোগ ছিল। ওই লাইন দিয়ে ট্রেনও চলত। কিন্তু ৬৫’র ভারত-পাক যুদ্ধের পরে সেই ট্রেন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। ধীরে ধীরে মাটির তলায় চাপা পড়ে যায় রেল লাইনটাও। সেই রেল লাইনকেই আবার তৈরি করা হবে বলে জানা গিয়েছে দু’দেশের সরকারের তরফে।

আরও পড়ুন ফরাক্কায় গঙ্গার ভাঙনে তলিয়ে গেল ২০টি বাড়ি

হলদিবাড়ি স্টেশন থেকে ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত পর্যন্ত তিন কিলোমিটার এবং সীমান্ত থেকে চিলাহাটি পর্যন্ত সাত কিলোমিটার রেল লাইন তৈরি করতে হবে। এই রেল লাইন তৈরি হয়ে গেলে ভারত এবং পড়শি দেশগুলির মধ্যে ব্যবসা-বাণিজ্যও আরও বাড়তে পারে। এই লাইন তৈরি হয়ে গেলে খুলনার মঙ্গলা বন্দর এবং চট্টগ্রাম বন্দর ব্যবহার করতে পারে ভারত, নেপাল এবং ভুটান। সম্প্রতি তাদের দুই বন্দর ভারত, নেপাল এবং ভুটানকে ব্যবহার করার অনুমতি দিয়েছে বাংলাদেশ।

উল্লেখ্য, ৬৫’র আগে ভারত এবং বাংলাদেশের মধ্যে যত ট্রেন লাইন ছিল, সবগুলোই নতুন করে তৈরি করার ব্যাপারে ঐক্যমত্যে এসেছে দুই দেশ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন